গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !
জিজে রাইটারদের জন্য সুঃখবর ! এবারের বই মেলায় আমরা জিজের গল্পের বই বের করতেছি ! আর সেই বইয়ে থাকবে আপনাদের লেখা দেওয়ার সুযোগ! থাকবে লেখক লিস্টে নামও ! খুব তারাতারি আমাদের লেখা নির্বাচন কার্যক্রম শুরু হবে

যাদের গল্পের ঝুরিতে লগিন করতে সমস্যা হচ্ছে তারা মেগাবাইট দিয়ে তারপর লগিন করুন.. ফ্রিবেসিক থেকে এই সমস্যা করছে.. ফ্রিবেসিক এ্যাপ দিয়ে এবং মেগাবাইট দিয়ে একবার লগিন করলে পরবর্তিতে মেগাবাইট ছাড়াও ব্যাবহার করতে পারবেন.. তাই প্রথমে মেগাবাইট দিয়ে আগে লগিন করে নিন..

যাদের গল্পের ঝুরিতে লগিন করতে সমস্যা হচ্ছে তারা মেগাবাইট দিয়ে তারপর লগিন করুন.. ফ্রিবেসিক থেকে এই সমস্যা করছে.. ফ্রিবেসিক এ্যাপ দিয়ে এবং মেগাবাইট দিয়ে একবার লগিন করলে পরবর্তিতে মেগাবাইট ছাড়াও ব্যাবহার করতে পারবেন.. তাই প্রথমে মেগাবাইট দিয়ে আগে লগিন করে নিন..

ঈশ্বরের সৃষ্টি

"ছোটদের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Y. A. Nafis (০ পয়েন্ট)



ঈশ্বর মানুষ সৃষ্টি করেন তারপর তারমধ্যে আত্মা দিয়ে প্রাণ সঞ্চার করেন। এভাবেই চলছিল। হঠাৎ একদিন তিনি মানুষ সৃষ্টি করতে গিয়ে দেখলেন মানুষের চেয়ে আত্মা কয়েকটা কম। কিন্তু মানুষ তো সৃষ্টি করতেই হবে| কি আর করার তিনি যম রাজ কে আদেশ দিলেন| যেভাবেই হোক কয়েকটা আত্মা পৃথিবী থেকে নিয়ে আস। যম রাজ পৃথিবীতে এসে দেখলেন মাঠে এক যুবক বসে আছে| যমরাজ যুবকের কাছে এসে নিজের পরিচয় দিলেন এবং তাঁকে সেচ্ছায় দেহত্যাগ করার অনুরোধ করলেন। যমরাজ এটাও বললেন এখন যদি আপনি ঈশ্বরের কাজের জন্য দেহ ত্যাগ করেন তাহলে আপনার নিশ্চয়ই স্বর্গ বাস হবে। এমনিতেই যুবক মানুষ রক্তের জোর বেশী। সে রেগে গিয়ে বলল ব্যাটা ফাইজলামি পাইছ। তুমি যম রাজ ঈশ্বর তোমাকে পাঠায়েছেন। চাপা মারার যায়গা পাওনা। তোমার এত স্বর্গে যাওয়ার শখ থাকলে তুমি নিজে মরে নিজের আত্মা দান কর। নিজে মরতে না পারলে আমাকে বল আমি তোমাকে সাহায্য করছি। যম রাজ দেখলেন অবস্থা বেগতিক। এখান থেকে সরে পড়াই ভাল। তারপর যম রাজ দেখলেন বট গাছের ছায়ায় এক বৃদ্ধ বসে আছেন। যম রাজ ভাবলেন লোকটার বয়স অনেক। আর ক দিনই বা আর বাঁচবে গাঁয়েও তেমন জোর নেই একে প্রস্তাব দেয়া নিরাপদ। যমরাজ বৃদ্ধের সাথে অনেক কথা বলে শেষে এই প্রস্তাব দিলেন। কিন্তু এবারও কপাল খারাপ যম রাজের প্রস্তাব শুনে বৃদ্ধ তেলে বেগুনে জ্বলে উঠল। এত বড় কথা। আমাকে বলে মরতে!!! সে তার ছেলে নাতি সবাই এক সাথে ডাকল। এই সালা টাকে ধর। ওর কত বড় সাহস বলে কিনা আমাকে মরতে আবার স্বর্গের লোভ দেখায়। যম রাজ এবার ও কোন মতে পালিয়ে বাঁচল। বুঝতে পারল মানুষ্য জাতী নিজেকে খুবই ভাল বাসে এরা সহজে মরতে চায় না। এদিকে রাত হয়ে আসছে একটা আত্মা ও পাওয়া গেল না। যম রাজ চিন্তিত হয়ে পড়লেন। হাঁটতে হাঁটতে তিনি একটা বনের ধারে চলে এসেছিলেন। হ


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩৯৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ আল্লাহর অপূর্ব সৃষ্টি মৌমাছি
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় ছয়
→ সৃষ্টির রহস্যের সমাধান!সত্যিই কী সম্ভব?
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় পাঁচ
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় চার
→ স্রষ্টাকে কে সৃষ্টি করলো?
→ স্রষ্টাকে কে সৃষ্টি করল? বিভ্রান্তি নাকি সত্যি?
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় তিন
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় দুই
→ ঈশ্বরের গণিত - অধ্যায় এক

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...