বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

SMS বিভ্রাট

"মজার গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Rafi Orton (০ পয়েন্ট)



X তখন সময় ১২:৪২.....ফেসবুকিং করছিলাম এমন সময় গ্রামীন সিমে অপরিচিত নাম্বার থেকে একটা মেসেজ এলো,তাতে লেখা "I love you" নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে হচ্ছিলো ৷ এবার বুঝি আমার প্রেম টা হয়েই যাবে মেসেজ রিপ্লে দিতে গিয়ে দেখি ফোনে টাকা নেই বাড়ির পাশেই একটা দোকান সেটাও বন্ধ ,বাধ্য হয়ে বাজারে গেলাম ৷ বাজারে গিয়ে দেখি সব ফেক্সিলোডের দোকান বন্ধ ৷ কি করবো বুজতে পারছিলাম না ৷ নিজেকে খুব অসহায় মনে হচ্ছিলো ,এই প্রথম কোনো মেয়ে আমায় প্রপজ করলো ৷ আর ফোনে টাকা নেই ৷ এর মধ্যেই এক বন্ধুর সাথে দেখা -দোস্ত তোর বিকাশ আছে? (আমি) -না রে,কেন? (বন্ধু) -আরে বলিস না,এক মেয়ে মেসেজে আমারে প্রপজ করছে,কিন্তুু ফোনে টাকা নেই রিপ্লে দিতে পারছি না -ও এই নে আমার ফোন দিয়ে রিপ্লে দে -না থাক,আমার প্রথম প্রেম,আমার ফোন দিয়েই শুরু করবো। -তা পার্টি দিবি কখন? -কিসের পার্টি? -প্রেম করতে যাচ্ছিস আর আর পার্টি দিবা না এটা কেমন কথা বন্ধু? -আরে এখনো তো প্রেম শুরুই হয়নি -হয়নি হবে তো,আর এখনি পার্টি হবে । তারপর কি আর করার,বন্ধুর আবদার তো রাখতেই হবে,হারামী টা ফোন দিয়ে আরো দুই বন্ধু কে ডাকলো। "সিঙ্গেল রে একটা মেয়ে প্রপজ করছে " প্রেম করবো আমি,আর ওদিকে ওরা আমার চেয়ে বেশি খুশি! যাইহোক তাদের খুশি দেখে পার্টি টা দিয়েই দিলাম,খরচ হলো ৩০০০টাকা। শালার ভাগ্য রে, প্রেম এখনো শুরুই হলো না,আর খাওয়া-দাওয়া শেষ! বন্ধুদের বিদায় দিয়ে বাড়িতে ফিরলাম, সেই রাতে আর ঘুম হলো না,কখন ফোনে টাকা রিজার্জ করবো আর কখন সেই মেয়েটার সাথে কথা বলবো.... সকাল ৫টায় আবার বাজারে গেলাম, কিন্তুু এত সকালে দোকান ইই খোলে নি ৷ ধুর ভাল্লাগে না,এবার আর বাড়িতে আসলাম না, ফেক্সিলোডের দোকানের সামনে বসে ছিলাম, সকাল ৮টায় দোকান খুললো, ৫০টাকা দিলাম, নিজেকে যে কতটা ভাগ্যবান মনে হচ্ছিলো ঠিক বলে বোঝাতে পারবো না, মেয়েটিকে মেসেজ না দিয়ে ডিরেক্ট ফোন দেওয়ার কথা ভাবলাম, শুনেছি যারা প্রেম করে তারা ৯০-১৫০ মিনিট পর্যন্তও নাকি কথা বলে। তাই ২৪ টাকায় ৮০ মিনিট কিনণাম। পরে,একটা ফাঁকা স্থানে গেলাম,আশে পাশে দেখলাম কেউ আছে কিনা, কেউ নেই , ফোনটা বের করে নাম্বার টা ডায়াল করার সময় বুকে হাত দিয়ে দেখলাম হার্টবিট টা কেন যানি ধুক ধুক করছে,প্রথম প্রেম বলে কথা,আবার বাজারে গিয়ে এক গ্লাস পানি খেয়ে আগের যায়গায় ফিরে আসলাম। এবার সত্যিই ওই মেয়েটার নাম্বার ডায়াল করলাম,রিসিভ ও করলো.... -আস্সালামু ওলাইকুম.... (আমি) -ওলাইকুম আস্সালাম, কে আপনি?(মেয়ে) -জ্বি আমি রিয়াদ,গতকাল রাত ১২:৪২ এ আমার ফোনে একটা মেসেজ পাঠিয়ে ছিলেন... -ওহহ সরি ভাইয়া,আসলে অন্য একজন কে পাঠাতে গিয়ে আপনার ফোনে ওই মেসেজ টা চলে গেছে, কিছু মনে করবেন না ভাইয়া .. বাকিটা ইতিহাস..।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১১৮১ জন


এ জাতীয় গল্প

→ রিয়েক্ট বিভ্রাট
→ লেখক বিভ্রাট
→ বিয়ে-বিভ্রাট
→ প্রেম বিভ্রাট
→ ভালবাসায় বিভ্রাট
→ বিবাহ বিভ্রাট
→ বিবাহ বিভ্রাট
→ ডান বাম বিভ্রাট!
→ ডান বাম বিভ্রাট!

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...