বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

অপরূপা (পর্ব ৪)

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ESHRAT JAHAN (৫৫ পয়েন্ট)



X সুন্দর অনেক সুন্দর।দেখলে যেন প্রাণ জুড়ায়। পরদিন রনি আবার গেল।আজ মেয়েটি এখনো আসেনি।রনি ভাবলো ঐপারে যাবে।নৌকা দিয়ে পার হয়ে গেল।অপেক্ষা করতে লাগলো।মেয়েটি আসছে না।অস্থির লাগা শুরু হলো।এই অস্থির লাগার সাথে কেমন যেন ভালো লাগাও কাজ করে।মেয়েটি কি আসলেই পরী নাকি মানুষ!মেয়েটি যেন ভালোবাসার শিকল দিয়ে বেঁধে দিয়েছে তার হৃদয় তার সমস্ত শরীর। দূর থেকে কেমন যেন ঝুন ঝুন আওয়াজ আসছে।একটু পরেই রনি দেখতে পেলো সেই অপরূপা মেয়েটি।রনি উঠে দাঁড়ালো।তারই পায়ের পায়েলটা ঝুন ঝুন করে বাজছে।আজকেও কি নাচবে নাকি! ইসরাত বললো,"আপানি এই পারে!" "হ্যা।" "এই পারে শিকার করতে এসেছেন?বন্দুক তো হাতে দেখছি না।" "না এমনি এসেছি।" "ওহ" রনি বললো,"আপনার বাড়ি কোথায়?" "বাড়ির কথা জেনে কি করবেন?" "একটু বলেন।" ইসরাত চলে গেল।রনিও পিছে পিছে যেতে লাগলো।ভালোবাসার শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছে।সে যে দিকে যায় ছেলেটিকেও নিয়ে যায়। একটু দূরে যেয়ে ইসরাত থেমে গেল।তার পায়েলের আওয়াজটা যেন থেমে গেল। রনিও থেমে গেল।ইসরাত পিছন ফিরে রনির কাছে এসে বললো,"আপনি কি আমাকে ফলো করছেন?" "না।" "তাহলে আমি থেমে যাওয়ার সাথে সাথে আপনি কেন থেমে গেলেন।আর অনেকটা ঘাবড়েও গেসেন মনে। রনি চুপচাপ টিস্যু দিয়ে মুখ মুছতে লাগলো। ইসরাত বললো,"কি হলো এত ঘাবড়ে গেলেন কেন?" "না কিছু না ।আমি যাই।" রনি আর পিছু না করে উল্টো পথে হাটা শুরু করলো


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১০৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ অপরূপা (শেষ পর্ব)
→ অপরূপা (পর্ব৯)
→ অপরূপা (পর্ব৮)
→ অপরূপা ৭
→ অপরূপা (৬)
→ অপরূপা (পর্ব ৫)
→ অপরূপা (পর্ব ৩)
→ অপরূপা (পর্ব ২)
→ অপরূপা (পর্ব ১)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...