বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

পারসিয়ালিটি

"ছোটদের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Akil-75(guest) (৩৭ পয়েন্ট)



X Akil আজকাল চলে পারসিয়ালিটি।যে আপনাকে চিনবে সেই আপনাকে আপনাকে সুযোগ সুবিধা বেশি দেবে। এটা ঢুকে গেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও। যাই হোক এটা সম্পর্কে আমার দারুন কাহিনী আছে। আমি প্রাইমারি স্কুলের জীবণে তিনটা স্কুলে পড়েছি আম্মুর স্কুলে,নানুর স্কুলে আর নানু বাডির পাশের স্কুলে । আম্মুর স্কুলে পরিবেশ ওতটা ভালো ছিলনা আর নানুর স্কুলে নানু অবসরে চলে গিয়েছিলো তারপর সেই স্কুল চলে যাই।ঘটানাটা শুরু হয় সেই স্কুলে।ছাত্র হিসাবে আমি ভালোই ছিলাম ক্লাস ফোরে থেকে পাইভে ৭২ রোল থেকে ৪ এ যায়। আমার রোল ১এর মা ছিল আবার সেই স্কুলের শিক্ষিকা ওনার এইটা সহ্য হয়না। উনি আমাই ঘৃণা করা শুরু করে। তারপর শুরু পারসিয়ালিটি। তো কিছু ঘ টনা দিলাম ১ ফাইভের মাঝখানে শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ পরিক্ষা। আমি আর চারজন বৃত্তি পেলাম।রোল ১ পেলো না পরের দিন তার মা এসে আমাকে বলে I WANT TO BE A DOCTOR প্যারাগ্রাফটা বলতে এটা আমাদের উনি শিখায়নি।বানিয়ে বলার জন্য ও পাচ মিনিট সময় লাগে কিন্তু এক সেকেন্ড পরে আর যারা বৃত্তি পেয়েছে তাদেরকে প্রশ্ন করে ১ কে প্রশ্ন বলে তখন ও বলে(আগে থেকে শিখিয়ে এনেছিল)তারপর হেডকে ডেকে এনে বলে উনি আমাদের বেদম মারে। আমি অবাক হলাম এসব দেখে ২ চলবে


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫১ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...