বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

হৃদয়ের নীলপরী (পর্ব১৩)

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ESHRAT JAHAN (০ পয়েন্ট)



X ইসরাত রিপ্লাই দিলো,"হুম বলো।" "কি করছো?" "পড়ছি।" "ডিস্টার্ব করলাম মনে হয়।" "না ঠিক আছে।আচ্ছা ফ্রি হলে নক করবো।" "ঠিক আছে।" পড়া কমপ্লিট করে ইসরাত রনিকে কল দিলো।রনি কল ধরে বলল,"পড়া কমপ্লিট?" "হ্যা।" "আচ্ছা একটা কবিতা বলবে!রোমান্টিক।" "আমি একটাই কবিতা পারি।"অনন্ত প্রেম" । "ওহ বলো।" "তোমারেই যেন ভালোবাসিয়াছি শত রূপে শত বার জনমে জনমে, যুগে যুগে অনিবার। চিরকাল ধরে মুগ্ধ হৃদয় গাঁথিয়াছে গীতহার, কত রূপ ধরে পরেছ গলায়, নিয়েছ সে উপহার জনমে জনমে, যুগে যুগে অনিবার" রনি কবিতা শুনে বললো,"খুল সুন্দর কবিতা।" "রবীন্দ্রনাথের।আমার খুব ভালো লাগে।" "ওহ।আচ্ছা কাল তো দেখা করছি।" "হুমম।বিকেলে।" "আচ্ছা।" "আমি এখন ফোন রাখি।" "ঠিক আছে।" পরদিন বিকেলে ইসরাত বের হচ্ছে।গেটে দাঁড়িয়ে।রনি আসলো বাইক নিয়ে।রনি বললো,"উঠে পড়।" ইসরাত বাইকে উঠে বললো,"কোথায় যাবে?" "যেখানে মন চায় চলো।" "কাশবনে আজকে যাবো না কিন্তু।" "আচ্ছা চলো।" রনি ইসরাতকে অনেক দূরে নিয়ে গেল।নদীর পাড়ে নিয়ে গেল।রনি বললো,"পছন্দ হয় জায়গাটা!" ইসরাত বললো,"হুমম হয়তো।আচ্ছা চলো পার্কে যাই।" "এখনি যাবো?" "হুমম চলো।" ইসরাত আর রনি পার্কে গেল।রনি বললাম,"১৫ তারিখে তোমার বার্থডে!" "হ্যা।" "হুমম ভালো তো।" "আচ্ছা শুনো কাশবনে চলো।" "না যাবো না।" "আরে চলো তো।" রনি ইসরাতকে কোলে তুলে নিলো।ইসরাত বললো,"এই যাবো না।আমি বললাম তো কাশবনে আজকে যাবো না।নামিয়ে দাও না হলে কিন্তু ১ মাস কথা বলবো না।" রনি ইসরাতকে নামিয়ে দিল।ইসরাত খুব রাগ করেছে।ইসরাত রেগে অন্য দিকে যাচ্ছিল।রনিও পিছে পিছে যাচ্ছে। "এই শুনো কামড় দিও না নখ দিয়েও খামছি দিও না।এই আমি আর তোমার কথার অবাধ্য হবো না।এইযে প্রমিস করছি তোমার কথা শুনবো।" রনি ইসরাতের ওড়না টেনে ধরে বলল,"প্লিজ রাগ করো না জানু।" ইসরাত রনির দিকে তাকিয়ে বলল,"ওড়না ছেড়ে দাও।" "না।" "ছেড়ে দাও বলছি।" রনি ওড়না ছেড়ে দিলো।ইসরাত রনির হাত ধরে বলল,"চলো।" "কোথায়?" "কাশবনে।" "তুমি তো না করলে আবার।" "তখন যেতে মন চায়নি।এখন মন চাচ্ছে।" "আচ্ছা চলো।"


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১৬৩ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...