বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

আমাদের জীবনটাই অন্যরকম এবং জিজে মেম্ববারস৭

"জীবনের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ESHRAT JAHAN (২২৮ পয়েন্ট)



X তামিম বললো,"কিরে আমাদের দৌড়াতে বলি কেন?আমরা তো ওদের টাকা লুট করিনি।" আমি বললাম,"তোদের বাঁচিয়ে দিলাম।" মাহমুদ বললো,"বাঁচিয়ে দিলি মানে?" মোজাহিদ বললো,"শোন তোরা ঐখানে থাকলে তোদের বন্দি করে আমাদের বলতো তোমরা যদি টাকা না দেও তোমাদের বন্ধুদের ছেড়ে দিবো না।আর আমরা টাকা না দিলে তোদের থেকে টাকা নিতো।আর তোরা এসে আমাদের থেকে টাকা নিতি তখন কি হলো!' তামিম বললো,",তোরা টাকা পেলি দুইজন খাবি চিল করবি gj আমি বললাম,"আমরা তো তোদেরও সাথে করে নিয়ে খাবো।আরে আমরা ২ টাকার ১ টা চকলেট ভাগ করে ৩-৪ জন ফ্রেন্ডরা খেয়েছি।আর আমাদের কাছে তো টাকা আছে।আমরা ভাগ করে খাবো।আমার আর মোজাহিদের যে টাকা আছে তাতে আমরা ৪ জন ভাগ করে খাবো gjআমরা কি তোদের ছেড়ে কিছু খাই!' মাহমুদ বললো,"সেদিন তো তোরা দুইজন আমাদের রেখেই খেয়ে ফেললি gj মোজাহিদ বললো,"সরি আমরা ভুলে খেয়ে ফেলেছি।আর কখনো তোদের ছেড়ে খাবো না কোথাও যাবো না।এই প্রমিস।" আমি বললাম,"হ্যা আমিও প্রমিস করছি।আমরা এখন থেকে একসাথে খেলবো,ঘুরবো,পড়বো ,খাবো gjআর এই টাকা দিয়ে আমরা ৪ জন ঘুরতে যাবো yes রিদি বললো,"দেখ ওদের দেখে শিখে নে ফ্রেন্ড কাকে বলে।" রিশু বললো,"আমরা মনে হয় তোর জন্য কিছু করি না।কত সবজি বানিয়েছি তোর জন্য rant রিদি বললো,"ওই সবজিতে লবন হয়নি yucky আমি রুটি বানিয়েছি। রিশু বললো,"ওই রুটি গোল হয় নাই।" শাহরিয়ার বললো,"আরে টাকা পয়সা তো দিসই না তোরা।আর দেখ ওরা টাকাও ভাগ করে নিয়ে ঘুরে বেড়ায়।" আমি ওদের কাছে যেয়ে বললাম,"এই ঝগড়া করিস কেন?রুটি গোল হয়নি তাই কি হয়েছে খাওয়া হলেই হলো।যা ঝগড়া করিস না।যা ঘুরে বেড়া।" তারিন বললো,"হ্যা তোরা শুধু শুধু ঝগড়া করছিস।আর আপুদের দেখছিস কখনো ঝগড়া করতে!যা এখন ঘুরে বেড়া।" ঘুরাঘুরি করে টাকা সব শেষ করে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরলাম।বাড়িতে ঢুকলাম।রুবাইয়া আপু কিছুই বললো না।আমি সোজা বাথরুমে গেলাম।ফ্রেস হয়ে ঘরে ঢুকর চমকে গেলাম।ওমা,এত রেহনুমা আপু আর লাকি আপু আমার ঘরে বসে আছে।এরা আবার এখানে কেন তাও আমার ঘরে gj আমি বললাম,"কি আপুরা এখানে?" আমার কথার উত্তর না দিয়ে লাকি আপু বললো,"আমার টাকা দে।" রেহনুমা আপু বলল,"আমারটাও।" পিছন থেকে রুবাইয়া আপু বললো,"আমারটাও মোট ২ হাজার হয় cool আমি বললাম,"আমরা তো ৪ জন ভাগ করে খেয়েছি gj" রুবাইয়া আপু বলল,"হ্যা তোরা এখন ৪ ফ্রেন্ড ৫০০ টাকা ভাগ করে দে।এই ওকে চেয়ারের সাথে বেঁধে রাখ।" আমি বললাম,"আঃ আপুরা এসব কি করছো? gj লাকি আপু বলল,"তোরা টাকা না দেওয়া পর্যন্ত তোকে ছেড়ে দিব না।" আমাকে চেয়ারের সাথে বেঁধে রাখলো।রুবাইয়া আপুকে মোজাহিদকে ভিডিও কল দিয়ে বললো,"হিহিহি হাহা মোজাহিদ devil তোমার বান্ধবীকে যদি বাঁচাতে চাও তাহলে তোমরা তিন বন্ধু এখানে আসো।" মোহাজিদ বললো,"কি হয়েছে ইসরাতের?" তারপর মোজাহিদকে দেখালো আমাকে।মোজাহিদ দেখে বললো,"আমি আসছি বান্ধুবী তোর কোনো টেনশন নাই।"


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৪৩ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...