বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

রোমান্টিক অত্যাচার ৩

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান PRINCE FAHAD (২ পয়েন্ট)



X Part: 3 _ ইমরানের কথা শুনে মিম চোখের পানি আটকাতে পারল না মিম নিজের হাত দিয়ে তাড়াতাড়ি চোখের পানি মুছে নিলো দুপুরের পরে মিম ইমরান বাসায় ফিরে আসে ইমরান ফ্রেশ হয়ে বিছানায় শুয়ে পড়ে - মিম (মা) - জি (মিম) - ইমরান কফি পছন্দ করে,তুমি ওর জন্য এক কাফ কফি বানিয়ে নিয়ে যাও(মা) - জি মা(মিম) মিম ইমরানের জন্য এক কাফ কফি বানিয়ে রুমে গেলো _ এই যে শুনছেন(মিম) - হুম বলো (চোখ বন্ধ করে ইমরান) - আপনার কফি(মিম) ইমরান মিমের কথা শুনে চোখ মেলে তাকালো - তোমাকে কি বলেছি আমার জন্য কফি আনতে[মিম) - আপনি নাকি কফি পছন্দ করেন,তাই নিয়ে এলাম,খান না খেলে কি হয়(মিম) - দেও (ধমক দিয়ে ইমরান) ইমরান মিমের হাত থেকে কফি নিয়ে খেতে লাগলো - কফি তো ভালই বানাতে পারো(ইমরান) - thank you আচ্ছা একটা কথা বলবো(মিম) - হুম - আপনি না অনেক সুন্দর (মিম) মিম এই কথা বলে দিলো এক দোড় ইমরান তো হা হয়ে গেলো,মেয়েটা কি বলে গেলো প্রশংসা করছে ভালো কথা,আবার দোড় দিলো কেনো - মনে হয় লজ্জা পেয়েছে (ইমরান) মিম রুমে এলে ইমরান কে দেখতে পায় না হঠাৎ করে ওয়াশরুমের দরজা খোলার শব্দে মিম সেদিকে তাকায় মিম সেদিকে তাকিয়ে হা হয়ে গেলো ইমরান শুধু তোয়ালে পড়ে দাড়িয়ে আছে, ফর্সা পেট বিন্দু বিন্দু পানি জমে আছে মিমের তো তা দেখে নেশা লেগে গেছে মিম এক পা এক পা করে ইমরানের দিকে এগিয়ে আসে,কিছু না ভেবে ইমরানের বুকে একটা চুমু দিলো সাথে সাথে ইমরান মিমের গালে ঠাস করে একটা থাপ্পড় মারে মিম কিছুই বুঝতে পারে নি তার সাথে কি হলো পরে হুশ আসলে লজ্জা না পেয়ে উলটা থাপ্পড় এর কথা ভেবে চোখ দিয়ে পানি বের হয়ে গেলো - ওই রাখ তোর ন্যাকা কান্না, তোর সাহস কি করে হয় আমার কাছে আসার আমার বুকে চুমু দেওয়ার, বলছিনা নিজের সীমার মধ্যে থাক (ইমরান) মিম এবার আর চুপ করে থাকে নি - আমি আপনার বিয়ে করা বউ আপনার উপর আমার সব অধিকার আছে আপনি না মানলে ও তা মিথ্যা হয়ে যাবে না (মিম) মিম এক দোড়ে রুম থেকে বের হয়ে গেলো মিম মায়ের রুমে গেলো - কিরে মা তোর চোখে পানি কেনো,কি হয়েছে[মা) - তোমার ছেলে মারছে(মিম) _ কিইই,কেনো (মা) - তোমার ছেলেকে জিজ্ঞাস করো(মিম) - ইমরান ইমরান(চিৎকার করে মা) মায়ের চিৎকার শুনে ইমরান দোড়ে মায়ের রুমে এলো এসে দেখে মিম মায়ের কোলে শুয়ে আছে - কি হলো ডাকছো কেনো[ইমরান) - মিমের গালে থাপ্পড় মেরেছিস কেনো(মা) - ও বেয়াদবি করেছে,তাই(ইমরান) - এজন্য বুঝি নিজের বউকে মারবি(মা) - প্রয়োজন হলে তাই করবো(ইমরান) - চুপ বেয়াদপ,মিম বল তো ওর সাথে কি করেছিস(মা) -না তোমার ছেলে বলবে,আমার সরম করে -ইমরান বল কি করছে মিমে(মা) - পারব না বলতে (ইমরান) - ঠিকাছে তাহলে আমি বলি(মিম) - বল(মা) - আমি উনার বুকে চুমু দিয়েছি,এজন্য(মিম) ইমরান তো ভ্যাবাচেকা খেয়ে গেছে,ইমরান ভাবে নি মিম এই কথা মা কে বলে দিবে - ইমরান মিম যা বলছে তা সত্যি(মা) - হুম, সত্যি (ইমরান) to continue


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২২০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ রোমান্টিক অত্যাচার ৪+৫
→ রোমান্টিক অত্যাচার পর্ব ১+২
→ বউয়ের রোমান্টিক অত্যাচার
→ বউয়ের রোমান্টিক অত্যাচার
→ বউয়ের রোমান্টিক অত্যাচার পর্ব ২
→ রোমান্টিক বউয়ের অত্যাচার

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...