বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

অজানা রহস্য

"ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Saraf Hasan (০ পয়েন্ট)



X ঘটনাটা আজ থেকে কয়েক বছর আগে আমার মামির সাথে ঘটা।চাকরির সুত্রে আমার মামা ও মামি পুরান ঢাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকত।মামার সেই বাসাটার পাশেই একটা ক্লিনিক ছিল।গর্ভবতীদের সন্তান প্রসব এবং এবোশোন করানো হতো সেখানে।অনেকসময় মৃত সন্তান এবং ভ্রুণগুলোকে ক্লিনিকের পাশের ফাঁকা স্থানে ক্লিনিকের আয়ারা পুঁতে দিত।আমার মামি তখন ৬ মাসের অন্তঃসত্তা ছিল।মামি রোজ ফজরে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পরে কুরআন পাঠ করত।একদিন মামি ফজরের নামাজ পরে কুরআন পাঠ করতে বসবেন এমন সময় একটা বাচ্চার কান্নার আওয়াজ শুনতে পারল মামি।গেট খুলে বাহিরে তাকিয়ে দেখল যে বাহিরে তখনও অন্ধকার।মামির নাকি তখন খুব একটা ভয় লাগছিল না।তাই সাহস করে একটা লোহার পেরেক হাতে নিয়ে সে আগাতে লাগল। কান্নার আওয়াজ ক্রমশ গভীর হচ্ছিল।মামি এগোতে এগোতে সেই ফাঁকা স্থানটিতে গিয়ে দাঁড়াল।মামি জানত যে এখানে মৃত বাচ্চাদের লাশ এবং এবোশনের ভ্রুণ পুঁতে ফেলা হয়।তবুও মামি সাহস করে সেখানে দাঁড়িয়ে চারপাশে তাকিয়ে খুঁজতেছিল কোথায় থেকে আসতেছিল সেই বাচ্চাটির চিৎকারের আওয়াজ।এমনসময় কিছু একটা চর্বিজাতীয় জিনিস খুব জোরে মামির মুখে এসে পরে এবং মামি চিৎকার দিয়ে অজ্ঞান হয়ে যায়।(চলবে. . .)


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫৫৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ অজানা রহস্য (বাকি অংশ)
→ রহস্যময়ী তাজমহলের অজানা কিছু তথ্য
→ অজানা এক রহস্য
→ তাজমহল সম্পর্কে অজানা কিছু রহস্য,
→ ভয় ভয়ঙ্কর অজানা রহস্যময় গল্প। "ডাকিনী" ২য় পর্ব
→ অজানা রহস্য
→ « ভয় ভয়ংকর অজানা রহস্যময় গল্প (ডাকিনী) পর্ব-04
→ « ভয় ভয়ংকর অজানা রহস্যময় গল্প (ডাকিনী) পর্ব-03
→ « ভয় ভয়ংকর অজানা রহস্যময় গল্প (ডাকিনী) পর্ব-02
→ টাইটানিকের কিছু অজানা রহস্য
→ একটি অজানা রহস্য

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...