বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

জুহরা নামক সেই মেয়েটি

"ছোট গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান রামিশা নূর রাওহা (০ পয়েন্ট)



X শয়তানের ইমামতি নামক কিতাবে আমি জুহরা সম্পর্কে অবগত হয়েছি!!! আজকে তাকে নিয়ে একটা ছোট্ট ঘটনা বলি!!! নিজের ভাষায় বলছি!!! বহু বছর আগে পৃথিবীতে আবির্ভাব ঘটে জাদুবিদ্যার!! এই জাদু বিদ্যা মানুষের হৃদয়ে বিরূপ ধারনার জন্ম দিতে শুরু করে!! তখনকার মানুষ আল্লাহর চেয়ে জাদুবিদ্যার প্রতি বেশি আস্থাভাজন হয়ে উঠছিল!!! তাই আল্লাহ তায়ালা হারূত এবং মারূত নামক দুজন ফেরেশতা কে ইসমে আজম দিয়ে জাদুবিদ্যা ধ্বংস করার জন্য পাঠান!! তারা ইসমে আজম নিয়ে পৃথিবীতে অবতরণ করেন!!! তখন জুহরা নামক একটি মেয়ে কীভাবে যেন জানতে পারে এই ফেরেশতাদ্বয়ের কাছে ইসমে আজম আছে!! তাই সে মনে মনে ভাবতে লাগলো কীভাবে তাদের কাছ থেকে ইসমে আজম শিখা যাবে!! কারন ইসমে আজম পড়ে যে দোয়া করা হয়, সেই দোয়াই আল্লাহর দরবারে কবুল হয়!! জুহরা ছিল অতিশয় রূপবতী!! সে তার রূপের জালে ফেরেশতাদ্বয়কে ফাঁসাতে চাইলো!! ফেরেশতাদ্বয় তাদের প্রতি আল্লাহর নিকট থেকে অর্পিত দায়িত্বের কথা ভুলে গিয়ে জুহরার মোহজালে আটকে গেল!! তারা দুজন ই জুহরার প্রেমে পড়লো!! আর সেই সুযোগে জুহরা ইনিয়ে বিনিয়ে তাদের কাছ থেকে ইসমে আজম শিখে নিল!! তখন আল্লাহ হারূত আর মারূত ফেরেশতাকে ধ্বংস করে দিলেন!!! অন্যদিকে জুহরা ইসমে আজম পড়ে দোয়া করলো সে যেন আকাশের বুকে নক্ষত্র হয়ে ভেসে বেড়ায়!!! আর আল্লাহ সেই দোয়া কবুল করেন!! এর পর থেকে সে মেয়ে থেকে নক্ষত্রে রূপ নিয়ে হাজারো নক্ষত্রের ভিড়ে নিজের স্থান করে নেয়!! আজও আকাশে প্রায়ই দেখা যায় জুহরা নামক নক্ষত্র টিকে!!! যাকে মানুষ শুকতারা বলে ডাকে!! অনেকেই হয়তো জানে না শুকতারা টি একদা একটি মেয়ে ছিল!!! যার স্থান ছিল ভূপৃষ্ঠে!!! আজ সে ঐ দূর আকাশের শুকতারা!!! তার শরীর থেকে আলো বিচ্ছুরিত হচ্ছে!! দিনের বেলায় তার অস্তিত্ব ঢাকা পড়ে যায়!! রাতের বেলায় স্বীয় মহিমায় জ্বলজ্বল করে উঠে!!!.............. সংক্ষিপ্ত!!!


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩৬৬ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...