গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !
নোটিসঃ কর্টেসি ছাড়া গল্প পাবলিশ করা হবেনা । আপনারা গল্পের ঝুড়ির নিয়ম পড়ে নেন ।

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

একটি গরুর আত্মকাহিনী

"জীবনের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ডিএল মাহমুদ হোসেন (২৯৮ পয়েন্ট)



একটা গভীর চাপা কষ্ট নিয়ে গল্পটা লিখলাম.. . আমি একটি গৃহপালিত গরু। মানুষের সবচেয়ে বিশ্বস্ত প্রাণী বললে খুব একটা ভুল হবে না। জীবনের প্রতিটা সময় মালিকের সাথে থেকেছি, সুখে দুঃখে, বিপদে আপদে সব সময়। শান্ত শিষ্ট ভদ্র স্বভাবের বলে আমাকে হয়তো তুমি খুব ভালোবাসতে, কিন্তু যতটা না ভালো বাসতে তার চেয়ে বেশি শাসন করতে। জমি চাষ করা থেকে শুরু করে সব ধরনের কাজ করিয়েছো আমার দ্বারা। যখনই তোমার যা ইচ্ছে হয়েছে তাই আমার দ্বারা করিয়েছো তুমি। যতটা না আমি করতে, পারি ততটা আমার দ্বারা করিয়েছো। একটু ভুল করলেই লাঠি দিয়ে মারতে। অবলা প্রাণী বলে নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে পারিনি। কিন্তু আমার ক্লান্ত, দুঃখ ভারাক্রান্ত চোখের চাহনি দেখে কি বুঝতে না আমি কি চায়? আমার অবস্থা কি একবারও বোঝার চেষ্টা করেছ? . কোনোদিন না খাইয়ে রেখেছো, কোনোদিন একবেলা খাইয়েছো, পরিমাণমতো খাবার পায়নি আমি। তুমি কি একবার বুঝতে চেয়েছো আমার কতটুকু খাবারের প্রয়োজন? খাবার না থাকলে তোমার মুখপাণে চেয়ে থাকতাম। আমার চেহেরাখানি দেখে কি তোমার একটুও দয়া, মায়া হতো না? . আমার বাছুর হওয়ার পরেরদিন থেকে আমার দুধ দহন করতে। আমি একটু নড়লেই আমাকে লাঠি দিয়ে মারতে। সব দুধ তোমরাই খেতে আর বিক্রি করতে। আমার বাছুরটাকে খেতে দিতে না। বাছুটা সামান্য কিছু দুধ পেত খাবার জন্য। আমার জন্য না হলেও‌ অন্তত আমার বাছুরটার দিকে তাকিয়ে তোমার কি একটুও দয়া হতো না? . আর কিছুক্ষণ পর তোমরা আমাকে কুরবানী দিবে। আমার মাংসগুলো কেটে সবাই ভাগ করে নেবে। কিন্তু একবারও জানতে চেয়েছো কি আমি কুরবানী হতে রাজি আছি কি না? আমাকে কুরবানী দিলে কি তোমার কষ্ট হবে? হয়তো হবে। অনেক বছর ধরে তোমার সাথে থেকেছিতো তাই মায়া জন্মে গেছে.. . আমি আমার সুখের স্মৃতিগুলো অস্বীকার করছি না। কিন্তু দুঃখের হৃদয়বিদারী স্মৃতিগুলো ভুলে গেলে চলবে না। . যাক! কিছুক্ষণ পর আমাকে তোমরা কুরবানী দিবে। হয়তো তোমাদের সাথে আমি অনেক খারাপ ব্যবহার করেছি।আমাকে ক্ষমা করে দিও। আজ আমার কোনো দুঃখ নেই, কষ্ট নেই, রাগ নেই, অভিযোগ নেই। শুধু একটাই অনুরোধ, আমার ছ’ মাসের বাছুরটার প্রতি আমার মতো অমানবিক আচরণ করিও না... . ইতি, তোমারই বিশ্বস্ত ভৃত্য, গরু


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১১৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ একটি শিক্ষামুলক গল্প
→ একটি শীতের সকাল
→ একটি সুযোগ চাই।
→ ভারতের রহস্যময়ী একটি গ্রাম "The Twin Town"(পর্ব ২)
→ ভারতের রহস্যময়ী একটি গ্রাম "The Twin Town"(পর্ব ১)
→ ধৈর্য্য সহকারে জাস্ট একটিবার পড়ে দেখুন!
→ একটি বৃষ্টিময় দিন
→ একটি নিম গাছের প্রতি ভালোবাসা
→ একটি বিকেলের স্বপ্ন

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...