বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

আমার জীবনের অংশ সেই মেয়েটি

"জীবনের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান সোহানুর রহমান সাগর (০ পয়েন্ট)



X আমি অতি সাধারন একটি ছেলে,, গ্রামেই আমার জন্ম আর সেখানেই বড় হয়েছি..আমি আমাদের এখানকার একটি স্কুলে পড়াশুনা করেছিলাম,,অনেকের কাছে কলেজ লাইফ টা বেস্ট হয় কিন্তু আমার জীবনের বেস্ট হবে স্কুল লাইফটা...এভাবে চলতে চলতে আমি যখন ক্লাস ৯ এ উঠলাম তখন স্কুলে একটি মেয়েকে দেখে ভালো লাগলো..স্কুলের মাঠে আমার সামনে দিয়ে সাইকেল নিয়ে হেটে যাচ্ছে আর তার চুল গুলা দুলতেছে...সেদিনই আমি ওকে ভালোবেসেছিলাম...কিন্তু কাউকে বলিনি..এভাবে একটা বছর কেটে গেলো আমি শুধু ওকে দেখেই আসতেছিলাম...এমন সময় আমি ক্লাস ১০ এ উঠলাম আর ও ক্লাস ৮ এ...স্কুলের সব ছেলে মেয়ে কাউকে না চিনলেও তারা আমায় চিনতো এর কারন হলো যখন স্কুলে প্রত্যাহিক সমাবেশ হতো তখন আমি সেটা পরিচালনা করতাম..আর আমি একজন স্কাউট ছিলাম তাই অনেক দায়িত্বই পালন করেছি স্কুলের... হ্যা তার পর একে একে সবাই জেনে গেলো আমি ঐ মেয়ে টাকে পছন্দ করি...কিন্তু জানি না কেন আমি ওকে বলতেই সাহস পেতাম না..একদিন আমার বন্ধুদের মাধ্যমে ওর বান্ধবিদের আর ওকেও জানালাম..প্রথমে ও বললো না , তার পরের দিন থেকে আমিও আর তেমন ভালো ছিলাম না ..খুব খারাপ লেগেছিলো..যদি না বলে নিজেই নিজেই যদি ওকে ভালোবেসে আসতাম তাহলে হয়তো মনে একটা আসা থাকতো যে ও আমাকে ভালোবাসে...যেদিন ওকে বলেছিলাম তার পরের দিনেই আবার ও ক্যানজানি রাজি হয়ে গেলো...সেদিন থেকেই আমার জীবন আর একা থাকলো না ..বন্ধুদের মিষ্টি খাওয়ালাম ওকেও একটু খাইয়ে দিলাম...তখন থেকেই সব চিন্তা ভাবনা ওকে নিয়েই ,মনে হতো আমাকে আর একার চিন্তা করলে হবে না দুজনেরই করতে হবে আর তাই হচ্ছে আজও...অনেক বাধা বিপত্তি অনেক হাসি কান্না পেরিয়ে আজ প্রায় আমাদের সম্পর্কটা আড়াই বছরের কাছাকাছি চলে আসলো...


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৬১৯ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...