বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব৮)

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ESHRAT JAHAN (৪১৩ পয়েন্ট)



X রনি ইসরাতকে বিলের ভেতর নিয়ে গেল।ইসরাত বলল,"এই আমাকে নামিয়ে দিবে না।" "কেন নামা তো লাগবেই?" "না তুমি আমাকে নামিয়ে দিবে না।" "না নামিয়ে দিল এভাবে কোলে করে আর কতক্ষন রাখবো?" "তাহলে নিয়ে এসেছো কেন?আমার কাপড় সব ভিজিয়ে যাবে তো।" "তাই কি হয়েছে?একটু ভিজবে।দেখো সবাই ভিজছে।" রনি ইসরাতকে নামিয়ে দিলো।রনি বলল,"এই বিলে দেখো কত সুন্দর শাপলা।এর মাঝে তুমি দাঁড়িয়ে আছো কত সুন্দর লাগছে।থাম তোমার একটা ফটো তুলি।" রনি বিল থেকে উঠে আসলো।তারপর ইসরাতের ফটো তুলতে লাগলো।তারপর আবার ইসরাতের কাছে যেয়ে বলল,"এই দেখ কত সুন্দর লাগছে তোমাকে।" রনি একটা শাপলা ফুল তুলে ইসরাতকে দিলো।ইসরাতও ভুলটা নিয়ে নিলো। তারা সবাই হাঁটছে।হাটতে হাঁটতে একটা পুকুরের কাছে গেল।রনি বলল,"দেখো পুকুর।" ইসরাত বলল,"হুমম।" ইসরাত রনির দিকে তাকিয়ে পিছন দিকে পা ফালাচ্ছে।ইসরাত পুকুরে পড়ে গেল।ইসরাত চিৎকার করে বলল,"আহ রনিইইইইইই।" ইসরাত সাঁতার জানে না।রনি সাঁতার জানে।রনি তাড়াতাড়ি পুকুরে লাফ দিলো।ইসরাতের কাছে গেল।ইসরাত রনিকে জড়িয়ে ধরলো।রনি বলল,"উফফ রাত আরেকটু হলে তোমার কি হতো?" "জানি না কি হতো তুমি না এলে।" "আমাকে এভাবে জড়িয়ে ধরেছো সবাই দেখে কি মনে করছে?" "যে যা মনে করুক।আমি তোমাকে ছাড়বো না।আমাকে ওপরে নিয়ে যাও।" "ঠিক আছে।" রনি ইসরাতকে ওপরে নিয়ে এলো।রিফাহ বলল,"কিরে ঠিক আছিস তো?" "হুমম।কিন্তু সবই তো ভিজে গেল।" "হুমম রনি ভাইয়ারও সবই ভিজে গেছে।" "ভিজা কাপড়ে কতক্ষন থাকবো?" "জানি না।" তাদের ঘোরাফেরা করা শেষ। পরদিন ইসরাত পার্কে বসে আছে।রনি পাশে এসে বসলো। ইসরাত বলল,"কিছু বলবে?" "তুমি কেন বলছো না আমাকে বিয়ে করতে রাজি নাকি না?" ইসরাত কিছু বললো না।রনি বলল,"কি হলো?তোমার কোনো সমস্যা থাকলে আমাকে বলো।" "আসলে কয়েকদিন ধরেই খেয়াল করছি আমি একজনকে ভালোবেসে ফেলেছি।আর বিয়ে করলে তাকেই করবো।" ইসরাত উঠে দাঁড়ালো।হাটতে শুরু করলো।আবার ফিরে এলো রনির কাছে।রনি দাঁড়িয়ে গেল।ইসরাত রনির দিকে তাকিয়ে আছে।তারপর ইসরাত বলল,"কয়েকদিন ধরেই খেয়াল করছি সারাক্ষনই শুধু তোমার কথা মনে হয়।সকালে ঘুম থেকে রাতে ঘুমাতে যাওয়া পর্যন্ত।সবসময় শুধু তুমি আর তুমি।তোমার সাথে কথা না বললে ভালো লাগে না।আমার ভালো লাগে না তোমাকে ছাড়া।তোমাকে আমি ভালোবাসি রনি।" রনি কিছু বলছে না।চুপচাপ শুনে যাচ্ছে।ইসরাত আবার বলল,"একমাত্র তোমাকেই ভালোবাসি আর একমাত্র তুমি আমাকে রাত বলে ডাকো।আর কেউ ডাকতে পারবে না।আমি ডাকতে দিবোই না।" ইসরাত হাত বাড়িয়ে দিয়ে বলল,"দাও আমার হাতে আংটি পরিয়ে।আমি তোমাকে বিয়ে করতে চাই রনি।" ইসরাতের এ কথা শুনে রনির মন খুশিতে নেচে উঠলো।ইসরাতের দিকে তাকিয়ে আছে।ইসরাত বলল,"কি হলো?আংটি পরিয়ে দাও।" "এখনি পরিয়ে দিচ্ছি।" রনি পকেট থেকে আংটি বের করে ইসরাতকে পরিয়ে দিলো।রনি ইসরাতকে জড়িয়ে ধরলো।ইসরাত বলল,"এভাবে জড়িয়ে ধরলে কেন?কেউ যদি দেখে ফেলে?" "আমার মনে হয় আশেপাশে কেউ নেই।" "ছেড়ে দাও।রনিইই।" আয়শা,রিফাহ, শান্ত,নীরব এরা আড়াল থেকেই সবই দেখছিল।তারা বেরিয়ে এসে হাততালি দিতে থাকলো।রনি ইসরাতকে ছেড়ে দিলো।ইসরাত বলল,"তুমি তো বলেছিলে কেউ নেই।কিন্তু তারা তো সবই দেখলো।তুমি যে জড়িয়ে ধরলে সেসবও তো দেখলো।" "দেখছে তাই কি হয়েছে?তোমাকেই তো জড়িয়ে ধরেছি আর কাউকে নাতো।" "তাই না?" ইসরাত রনির গেল টেনে বলল,"ওরে আমার দুষ্টু।" রিফাহ বলল,"এতদিন ভাবছিলাম তোর স্বামীকে দুলাভাই বলবো।আর বলবো আমি আপনার শালি আপনার পকেট করবো খালি।কিন্তু তাতো হলো না।তুই তো আমার ভাবি হলি।হিহিহিহিহ।" আজ রাতে ইসরাত বগুড়ায় গেলো।বাবার কাছে বলল,"আব্বু আমি ঐ রনিকেই বিয়ে করতে চাই।এই দেখ আংটি পরিয়ে দিছে।" "তাই নাকি?" ইসরাতের মা কাছে এসে বলল,"খুব ভালো করেছিস বিয়েতে রাজি হয়ে।আমাদের সবার পছন্দ ছেলেটাকে।এখন তোর পড়াশোনা হোক।তারপর বিয়ের দিন ঠিক করবো।" ইসরাতের বাবা বলল"হুমম।তাই করা লাগবে।"


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫৯৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(শেষ পর্ব ১৩)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব১২)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব১১)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব১০)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব৯)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব৭)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব৬)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব ৪)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব৫)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব৩)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি (পর্ব২)
→ আমার স্বপ্নের গল্পে তুমি(পর্ব১)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...