গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !
জিজে রাইটারদের জন্য সুঃখবর ! এবারের বই মেলায় আমরা জিজের গল্পের বই বের করতেছি ! আর সেই বইয়ে থাকবে আপনাদের লেখা দেওয়ার সুযোগ! থাকবে লেখক লিস্টে নামও ! খুব তারাতারি আমাদের লেখা নির্বাচন কার্যক্রম শুরু হবে

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

কালো তাতে কি? সেও তো মানুষ!

"শিক্ষণীয় গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান রঙ তুলি (০ পয়েন্ট)



আজ রাতে মেয়েটির গায়ে হলুদ....???? স্টেজে বসে মেয়েটি দেখলো ঘনঘন তার হবু বর ফোন দিচ্ছে...ফোন আসার কারণ সে জানে....হবু বর তার মেহেদি লাগানো হাত দেখতে চাচ্ছে। মেয়েটিরও হাতভর্তি মেহেদি দেখাতে বড় ইচ্ছে করছে,তবু কোথাও একটা সংকোচ কাজ করছে...মেহেদীর রঙ গাঢ় লাল হয়েছে,কালোর উপর গাঢ় লাল মানায় না একদমই। মেয়েটির গায়ের রঙ কালো....কালো মেয়েদের এদেশে সুন্দরী ধরা হয় না....তাকেও তাই কেউ কখনো সুন্দরীর কাতারে ফেলেনি। স্কুলে পড়ার সময় কেউ কখনো তার প্রেমে পড়েনি,কোচিংয়ের শেষে কখনো তার হাতে কেউ প্রেমপত্র গুঁজে দেয়নি.... স্কুলের গাঢ় কমলা ইউনিফর্মটা তার গায়ে মানাতো না,কালোর উপর কমলা মানায় না। তবু তার বিয়ে....তার গায়ের রঙের পেছনে এক জোড়া সুন্দর চোখ ছিলো....ডাগর ডাগর চোখ....সেই সুন্দর চোখজোড়া কেউ আবিষ্কার করতে পারেনি,তবে যে ছেলেটি আজ মেয়েটির বর হতে যাচ্ছে,সে ঠিকই প্রথম দেখায় তার অপরূপ চোখজোড়া আবিষ্কার করে ফেলেছে। ছেলেটা এই মেয়েটাকে নিয়ে প্রতিটা দোকানে ঘুরে ঘুরে আগ্রহের সাথে বিয়ের কেনাকাটা করেছে....গায়ে হলুদে জোর করে একটা হলুদ শাড়ি কিনে দিয়েছে....মেয়েটার হলুদ রঙ অনেক পছন্দ ছিলো,তবে কালোর উপর হলুদ অদ্ভুত লাগে বলে কখনো কেনা হয়নি....ছেলেটি এতসব শুনেনি।শাড়ির দোকানে হলুদ শাড়িটা গায়ে জড়াতেই ছেলেটা সবকিছু ভুলে চোখ বড় বড় করে তাকিয়ে ছিলো,সেই বড় চোখে মুগ্ধতা ছিলো,সেই কালো মেয়ের প্রতি ভালোবাসা ছিলো। এই ভালোবাসাটা হওয়ার ছিলো....মেয়েটার জন্য এই ছেলেটাকেই সৃষ্টি করা হয়েছিলো.....মেয়েটিকে তাই আগে কেউ ভালোবাসেনি,কেউ আগে এসে তার হাত ধরেনি,তাকে দেখে মুগ্ধ হয়নি। সবচেয়ে অসাধারণ একটা ব্যাপার হলো,যার সাথে আপনার ভবিষ্যৎ জীবন কাটবে,তাকে সৃষ্টিকর্তা ঠিক করে রেখেছেন....আপনি কুৎসিত হোন,চেহারা সুন্দর না হোক,যত যা-ই হোক,সে ঠিকই এসে আপনার পাশে দাঁড়াবে.....আজ হ্যান্ডসাম না বলে পছন্দের মেয়েটার হাতে রিজেক্ট হওয়া ছেলেটার জন্যও কেউ একদিন রাত না খেয়ে বসে থাকবে.....সে আছে,এত মানুষের ভীড় থেকে ঠিকই বের হয়ে এসে কেঁদে লাল হয়ে সেজেগুজে এসে এক রাতে আপনার রুমে বসে থাকবে....আপনি মুগ্ধ হয়ে তার দিকে তাকাবেন,বাইরে থেকে মরিচবাতির আবছা আলো ঘরে আসবে। আজ পছন্দের মানুষটার সামনে সুন্দর না বলে মন খারাপের কিছু নেই....আপনি যেমন,তেমনভাবে আপনাকে ভালোবাসার,দেখে মুগ্ধ হওয়ার একটা জিন আপনার "তার" মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার অপেক্ষায় থাকুন....সে আসবে...ভালোবাসবে????


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১২২৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ হৃদয়ের ভবন
→ ইচ্ছেগুলো...
→ ঘরে রহমতের ফেরেশতা আসতে দাও
→ হযরত আলী রা ও তার সন্তানদের বুদ্ধিমত্তা
→ মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর আতিথেয়তায় ইসলাম গ্রহণ
→ কবিতা শোনাবে আজ রাতে।
→ গদ্যকার্টুন_১ বাবা রোবট, তোমারে কলাম লিখতে হবে কেন
→ আল্লাহর অপূর্ব সৃষ্টি মৌমাছি
→ সন্তানকে চরিত্রবান করে গড়ে তোলা বাবার দায়িত্ব
→ নেককার স্ত্রী তার স্বামীর জন্য সবচেয়ে বড় সম্পদ

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...