বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

# অবহেলার পরিনতি পর্ব: ৪

"জীবনের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ⏩المامون ⏩ (০ পয়েন্ট)



X খুব হাসি পাচ্ছে অরন্যর । কে বলল সাইকিয়াট্রিস্ট হতে ........ হায়হায় আল্লাহই জানে , আর কত জনের এটোগুলো খেতে হবে ........(ভাবতেছে আর মুচকি মুচকি হাসতেছে ) . কিন্তুু চিঠির ভাষাগুলো কিছুতেই মাথা থেকে সরাতে পারতেছে না । উফফ খুব অসহ্য লাগতেছে । এদিকে অরন্যকে এভাবে হাসতে কেউ কখনো দেখে নাই ,সবসময় গোমরা মেজাজে থাকে ।আজকে কি হল । . __নিঝুম .... . __হ্যা বজ্জাত মেয়েগুলো ডাকতেছ ক্যান . __ (ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেল )আমরাও তো তোমার বন্ধু তাই না . __একদমই না ,তোমরা তো পঁচা . __আর কখনো তোমাকে বকব না ,ধমক দিব না । সবসময় চকলেট দিব . __সত্যিইই দিবা . __পাক্কা . __তাইলে বন্ধু (হাত ২টো পেতে দিয়ে) ,কি হল হাত দেও ? . __ওকে ডান . __বকবে না কিন্তুু তাইলে ডাক্তার বাবুর কাছে বলে দিব । . __আচ্ছা বাবা বকব না । এবার বল তো ডাক্তার বাবুকে কি করেছ ,সে হাসতেছে কেন . __বাহ...রে । সেটা তোমাদের বলব ক্যান . __তোমার ডাক্তার বাবুর কাছে তো আমাদের কথা বলতে পার . __বলবই তো । ডাক্তার বাবুতো ভালো বন্ধু আর তোমরা তো বজ্জাত বন্ধু । . __(আবারও ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেল) . নিঝুমের অসুস্থ হওয়ার পিছনে কারনটা কি ,যতক্ষন প্রর্যন্ত জানতে না পারি শান্তি নেই । আর তাছাড়া কারনটা জানতে পারলে ট্রিটমেন্ট করাও সহজ হয়ে যাবে । অরন্য নিঝুমের দরজার সামনে এসে দেখে ,ওনারা কিছু জানার জন্য প্রেশার দিতেছে । অরন্যকে দেখেই নিঝুম বলে উঠল,, . __দ্যাখ না ডাক্তার বাবু ,আমি তোমাকে এটো আইসক্রীম খাইয়ে দিছি । এই বজ্জাত মেয়ে ২টা এগুলো জানতে চাচ্ছে । . (সবাই তো হাসতেছে আর অরন্য সেই লেবেলের একটা লজ্জা পাইছে ) . __আপনাদেরকে গোয়েন্দাগিরি করার চাকরি দেওয়া হয় নি । যান এখান থেকে . __ বাংলা পাঁচ এর মত মুখটা করে তারা চলে গেল । . __আন্টি আপনি আমার সাথে আসুন একটু। . __আম্মুউ আমিও যাব ,ছোট মানুষরা একা ভয় পায় তো । . __অরন্য পকেট থেকে ফোনটা বের করে নিঝুমের হাতে দিল ,বসে বসে কার্টুন দেখ । তাইলে ভয় থাকবে না . নিঝুমের মা কে নিয়ে একটা নিরিবিলি স্থানে দাড়ালো ,,, __আন্টি আমার জানতে হবে ঠিক কি ঘটেছিল নিঝুমের জীবনে । ঘটনার সূত্র ধরেই আমাকে ট্রিটমেন্ট করতে হবে । . ___নিশ্চুপ . __আন্টি কাঁদবেন না প্লীজ ,নিজেকে শক্ত করুন . __তুমি একটু দাড়াও আমি আসছি। . কিছুক্ষনের মধ্যে ওনি একটি ডায়েরি নিয়ে হাজির হলেন ।শোন তাইলে ,,, __ আমাদের বিয়ের ৭বছর পর নিঝুম আসে আমার ঘর আলোকিত করে ,ডাক্তার জানায় আর কখনো বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা নেই । যাই হোক, বিয়ের এত বছর বাচ্চা হয়েছে সকলেই খুব খুশি । মনে হয় যেন আসমানের চাঁদ পেয়েছে সবাই । আস্তে আস্তে আমার সেই ছোট্র সোনা বড় হতে লাগল ,আর কখন যে বড় হয়ে গেল টেরই পেলাম না । আমার মেয়েটা কখনো একটা ড্রেসও পড়ে নাই ,আমাদের পছন্দের বাহিরে । নিঝুম যখন অর্নাস 1St ইয়ারে উঠে তখন ওর জন্য খুব বড় ভালো ফ্যামিলি থেকে proposal আসে । ওর বাবার ব্যাবসার খাতিরেই ওনাদের সাথে পরিচয় । কিন্তুু আমরা রাজি ছিলাম না ,কারন আমাদের মতে নিঝুমের বিয়ের বয়স হয় না । ওনারা বলে যে এখন Engage করে রাখবে .আমরা যখন চাইব তখন তারা বউ করে ঘরে নিবে । ছেলে /মেয়ে কেউ অমত করে নাই ,পারিবারিক ভাবেই engage করিয়ে রাখা হল(এইটুকু বলেই থেমে গেল) . __আন্টি তারপর . __ওনি আমার হাতে একটা ডায়েরি ধরিয়ে দিলেন ,তারপর এটাতে সব লেখা আছে,, __আমি কি এটা নিয়ে যেতে পারি . __হ্যা অবশ্যই । . যতক্ষন পর্যন্ত না জানতে পারব শান্তি পাব না । তাই ডায়েরিটা পড়তে শুরু করলাম,,, . প্রথম পৃষ্ঠা:বাসা থেকে বিয়ের কথা বলতেছে । আর তাদের মুখের উপর না বলার দুঃসাহস নিয়ে জন্মায় নাই । . ২:::: আজকের ছেলের বাসা থেকে দেখতে আসবে ,খুব ভয় করতেছে । একটু আগে আম্মু শাড়ি দিয়ে গেছে । খুব সুন্দর করে সাজলাম । কেমন যেন লজ্জা লজ্জা লাগতেছে . ::ছেলে পক্ষের সবাই আমাকে খুব পছন্দ করছে । ছেলেও দেখতে মাশাল্লাহ । ছেলের সাথে অনেকবার চোখাচোখি হয়েছে । আমাদেরকে আলাদা ভাবে কথা বলতে দেওয়া হল । রুমে ডুকার পর ,২জনেই নিরব ছিলাম । নিরবতা ভেঙ্গে আমাকে জিঙ্গেস করল __বিয়েতে আমার কোন আপত্তি নেই তো । . __বাবা-মায়ের ইচ্ছাই ,আমার ইচ্ছা . __যাক খুশি হলাম ,এর মানে ২জনেরই সেইম অবস্থা । . :::মুরুব্বিরা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২বছর পর বিয়ে । আহা আমার যে আর খুশি ধরতেছে না ,এর মানে ২বছর ফ্রীতে প্রেম করতে পারব . :::রাতে ওরা খাওয়া দাওয়া করে চলে গেল । আমিও খেয়ে ঘুমতে আসলাম ,কিছুক্ষন পর একটা অচেনা নম্বর থেকে বারবার কল দিতেছে । বিরক্ত হয়ে ফোনটা রিসিব করলাম . __হ্যালো . __নিশ্চুপ.... . __হ্যালো উফফ কথা বলছে না ক্যান . __কে আপনি . __মানুষ . __তা তো বুঝতে পারছি ,কোন জীব_জন্তুু তো আর ফোন দিতে পারে না . __আরে এভাবে রাগ দেখাচ্ছ কেন . __তো কি করব দ্যাই দ্যাই করে নাচব । দেখেন না ফোন কেটে দিতেছি তারপরও আহাম্মকের মত ফোন দিতেছেন . __এত ক্ষ্যাপতেছ ক্যা ,আমি তো অন্য কারো কাছে ফোন দেই নাই । আমার একমাত্র বউয়ের কাছে ফোন দিয়েছি . __বউ শব্দটিতে অন্যরকম মায়া ,ভালোবাসা,ভালোলাগা জড়িয়ে আছে । একদম নিশ্চুপ হয়ে গেলাম . __কি হল কথা বলবা না ,না কথা বললে সারারাত একটুও ঘুমাবো না ।তাই বাধ্য হয়ে কথা বললাম ।কথা বলতে বলতে কখন যে ফজরের আযান দিয়ে ফেলছে । বুঝতেই পারলাম না . এভাবেই প্রতিরাত কাটে আমাদের স্বপ্নের জাল বুনে । ২জন ২জনের প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পরছি । কেয়ারিং,শেয়ারিং মোটকথা খুব প্রেম জমে উঠছে । সুযোগ পেলেই আমাকে নিয়ে ঘুরতে বের হয় । . যদিও কারো কোন আপত্তি নেই তবুও আব্বু আম্মু সবসময় বলত ,, __মা মাত্র engage হয়েছে ,বিয়ে তো আর হয় নাই । এত্ত বেশি জড়ানো ঠিক না । . __উফফ এখানেও বাঁধা ,আমার বরের সাথেই তো নাকি । . একসাথে অনেক টাইম কাটাই ।তখন মনে হয় ,কেন যে ২টা বছর অপেক্ষা করাইতেছে । . ::: রোহিতের বাসায় প্রায়ই নিয়ে যেত ,ওর আম্মু মানে শাশুড়ি মা খুব আদর করে আমাকে । . ::::: মাত্র আর ৩টা মাস বাকি আছে ২বছর পূর্ন হতে । ২ পরিবারই বিয়ের আগাম প্রস্তুুতি নিচ্ছে । ইদানিং রোহিত আমাকে খুব ইগনোর করতেছে । করুক যত পারে ,আর তো মাত্র কয়টা দিন । তখন সব সুধে আসলে শোধ করব । . :::মেহেদি, হলুদ অনুষ্ঠান খুব জাকঝমক ভাবে সম্পন্ন হল । সকল আত্মীয় স্বজন আসা শুরু করলো । ২দিন পর বিয়ে । . :::আজকে রোহিত দেখা করার জন্য ডেকেছে ।ইশ ২দিন পরতো permanently পেতে যাচ্ছে । আজকেও দেখা করতে হবে । খুব সেজেগুজে বাসা থেকে বের হলাম । গিয়ে দেখি রোহিত আগে থেকেই ওয়েট করতেছে ,ওর পাশে একটা মেয়ে বসা । মেয়েটাকে দেখেই বুকের বাম পাশে চিনচিনিয়ে ব্যাথ্যা করতেছে । তবুও খুব স্বাভাবিক ভাবে গিয়ে বসলাম । . :::: রোহিত বলল পরিচয় করিয়ে দেই ,, __ও হচ্ছে রিশা । আর রিশা এটা.... . __বুঝতে পেরেছি আর বলতে হবে না ,ও নিঝুম । রাইট . (রিশা নামটা শুনেই আমার ভিতরে তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে ) অসহায়ভাবে রোহিতের দিকে তাকালাম কিন্তুু ওর কোনো ভ্রুক্ষেপই নেই । . আমার সামনেই রিশা মেয়েটি রোহিতকে আষ্টেপিষ্ঠে জড়িয়ে আছে ,আমার পুরো দুনিয়া থমকে যাচ্ছে । আমার হাত_পা কাপতেছে ,পুরো ঘেমে গেছি । . রোহিত আমাকে জিঙ্গেস করল,,,, __আর ইউ ওকে মিস নিঝুম .. . (আমার ভিতর থেকে কোন শব্দ বের হচ্ছে না ,শুধু মাথা নাড়লাম) রোহিত রিশা মেয়েটার আঙুল গুলো দুহাতের মুঠো(এই দৃশ্যটা একটা মেয়ের কাছে কতটা কষ্টের শুধু সেই জানে) নিয়ে বলতে শুরু করল,,, __নিঝুম শুনতে খারাপ লাগলেও এটাই সত্যি এই সেই রিশা যার কথা তোমাকে বলেছিল । একটা ভুলের কারনে ২জন আলাদা হয়ে গিয়েছিলাম । দীর্ঘ ৪বছর পর আমাদের আবার দেখা হইছে , রিশা ওর ভুল বুঝতে পারছে । আমার হাত_পা ধরে অনেক কেঁদেছে । আমি ফিরিয়ে দিলে আত্মহত্যা করবে । রিশাকে যতটুকু ঘৃনা করেছি ,তার থেকেও অধিক বেশি ভালোবাসতাম । ওর চোখের পানি সহ্য করা আমার পক্ষে পসিবল না । ১৫ দিন হল রিশার সাথে আমার সব ঠিকঠাক হয়েছে । . __আমি বিশ্বাস করি না ,তুমি মিথ্যা বলতেছ । রোহিত মাত্র ২দিন পর আমাদের বিয়ে আর আমি তোমাকে খুব বেশি ভালোবাসি । আর আমি জানি তুমিও আমাকে ভালোবাস । প্লীজ এসব কথা বন্ধ কর ,আমার খুব কষ্ট হচ্ছে । তুমি আমার আর কারো না . __হ্যা ভালোবাসি আর তুমিও বাস । কিন্তু তা রিশার ভালোবাসার কাছে কিছুই না । রিশা এই ১৫ দিনে আমাকে যে ভালোবাসা দিয়েছে ,তা তুমি ১৫বছরেও পারবে না । রিশা জানে কিভাবে ভালোবাসার মানুষকে খুশি রাখতে হয় । তোমার আমার বিয়ে ঠিক হওয়ার সত্ত্বেও নিজেকে গুটিয়ে রেখছো । কিন্তুু রিশা আমাকে পরিপূর্নভাবে সুখি করেছে । (আমার সামনেই রোহিত রিশাকে কে চুমো দিল) । . আমার হাত থেকে জোর করে রিংটা খুলে নিয়ে রিয়ার হাতে পরিয়ে দিল । খুব কেঁদেছি অনেক বেশি ,রোহিতে পা ধরে কেঁদেছি ,, __তুমি এতটা নিষ্ঠুর হইও না গো । আমি শেষ হয়ে যাব । এই তুমিই তো আমাকে ভালোবাসতে শিখিয়েছ । আমার থেকে আমার ভালোবাসা কেড়ে নিও না । এই সমাজ আমাকে বাঁচতে দিবে না । আমার সব ভালোবাসা তো আমি তোমার জন্যই জমা রেখেছি ।আমার জীবনে বাবার পর কোন পুরুষকে ভালোবাসলে সেটা তুমি । . কিন্তু আমার কথাগুলো হয়ত তাদের কান অবধি পৌছায় নি । অনেকদূর চলে গেছে । . এলোমেলো ভাবে পা ফেলে বাসায় গেলাম ,আমার এমন বেগতিক অবস্থা দেখে সবাই দৌড়ে আসল । কাউকে কিছু বলতে পারি নাই,আমার বাকশক্তি হারিয়ে গেছে । রুমে ডুকে দরজা লক করে দিলাম........ . তারপর আর কিছু ডায়েরিতে লেখা ছিল না । নিঝুমের মাকে ডায়েরিটা ফেরত দিলাম এবং পরের ঘটনা জানতে চাইলাম ......... .


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৯৫২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ #অবহেলার পরিনতি পর্ব: ৫
→ #অবহেলার পরিনতি পর্ব: ৩
→ অবহেলার পরিনতি পর্ব: ২
→ অবহেলার পরিনতি পর্ব: ১

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...