বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

ধৃতরাষ্ট্রের জীবনবৃত্তান্ত ২

"পৌরাণিক গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মোঃ তাওহীদ(guest) (১৬৯৬ পয়েন্ট)



X এভাবে কথা কাটাকাটি করার সময় মা পাখিটি গাছ থেকে আগুনে পড়ে যায়।রাজা দেখে তীর দিয়ে জ্বলসে যাওয়া পাখিটিকে তুলে খেল।পাখিটিকে খেয়ে রাজার খিদে আরো বেড়ে যায়।রাজা দেখল যে গাছের ওপর আরো পাখি আছে।তাই সে গাছে ওঠে বাবা পাখি এবং ছানাগুলোকে ধরে ফেলে।রাজা তীর দিয়ে এক একটি পাখির চোখে বিদ্ধ করে এবং আগুনে জ্বলসে খায়।তার এই কৃতকর্মের জন্য পরের জন্মে তিনি অন্ধ এবং কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধে শতপুত্র হারান।তিনি গান্ধার রাজ্য আক্রমণ করে রাজকন্যা গান্ধরীকে বিবাহ করে।তার স্বামি অন্ধ থাকায় তিনি নিজের চোখ ঢেকে রাখতেন।গান্ধারী ধৃতরাষ্ট্রের ঔরসে গর্ভবতী হয়।গান্ধারী যখন গর্ভবতী তখন অন্ধ রাজা ধৃতরাষ্ট্রের সেবাযত্ন করার জন্য এক বৈশ্য দাসী রাখা হয়।দাসী অসাবধনতাবশত অন্ধ রাজাকে ছুঁয়ে ফেলে।যে কারণে রাজা কামের বশফর্তী হয়ে গান্ধারীর অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে দাসীকে নগ্ন করে সম্তোগ করে।গান্ধারীর গর্ভে ধৃতরাষ্ট্রের একশ পুত্র ও একটি মেয়ে এবং বৈশ দাসীর গর্ভে যুযুৎসু নামক পুত্রের জন্ম হয়।কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধে যুযুৎসু ব্যাতীত সকল পুত্র নিহত হয়।যুদ্ধের পর যুদিষ্ঠিরের আশ্রয়ে কিছুকাল থাকেন।শেষকালে গভীর তপস্যারত অবস্থায় গান্ধারী ও কুন্তির সাথে অগ্ণিকুন্ডে মৃত্যু হয়।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৭৫৮ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ধৃতরাষ্ট্রের জীবনবৃত্তান্ত

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...