গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

গল্পেরঝুড়িতে স্বাগতম ...

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

♥পেইনফুল "ভাইরাস "♥

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Ismail Ahnaf (০ পয়েন্ট)



♥পেইনফুল "ভাইরাস "♥ ♦ইসমাঈল আহনাফ ♦ ----------------------------- হঠাৎ একদিন মন খারাপ। রাতে পড়া শেষ করে বিছানায় শুয়ে পড়লাম। মনে হয় কাউকে miss করছি। আমি তাকে" ভাইরাস " বলেই ডাকি। অনেক পছন্দের নাম। সে ছিলো এক সময় আমারি কাছে। আজ হয়ত সে নেই। অথবা আমার ধারণা ভুল। চলে গেলাম কল্পনার রাজ্যা। "ভাইরাস" মোটেউ কোন জিবানু নয়। এটা একটি কাল্পনিক চরিত্রের নাম। কল্পনাই থেকে যাবে হয়ত। ছোট খাটো ছিম ছাম, দেখতে অনেক মিষ্টি। সে কথা বললে চুপ চাপ শুধু শুনতে ইচ্ছে করে । তার প্রতিটা কথার মধ্যে যেন বাদ্য যন্ত্রের ভেষে আশা সূরের সংমিশ্রণ । ভিষন রাগি ও একরোখা। তার কাছে আছে পাহাড় পরিমান অব্যাক্ত আবেগ। কিন্তু অনেক দয়ালু। তার রাগের মধ্যে যেন গভির ভালোবাসার আভাষ। মনে দাগ কাটার মত তার দুষ্টু মিষ্টি শিশুদের মত আচরণ। আবার কোন সময় পন্ডিত শুলভ দিক নির্দেশনা মুলক বক্তব্য। সব সময় সে ত এক মহারানী। নিজের অধিকার আদায়ে সব সময় অনড় প্রতিমূর্তি। নিজের যে কোন ভাবনাকে সঠিক যুক্তি দিতে একপা এগিয়ে। না পাওয়ার ব্যর্থতা লুকাতে সব সময় ব্যাস্ত। মনে দুঃখের ছায়া, আর চোখে মুখে ছল ছলে আনন্দের বর্ণধারা। তার সঙ্গে কাটানো প্রতিটা মুহুর্ত যেন কষ্ট পেয়ে হাসতে সেখায়। কষ্ট চেপে মিষ্টি করে হাসতে পারাটা তার বিশেষ গুন গুলোর একটা। এ এক আজব চরিত্রের সংমিশ্রণ। চাহুনিতে নিরীহ আবেগ, তার অলস হাটার গতি যেন আর এক মায়াবি রুপ। তার ছোট ছোট আব্দার গুলো যেন আমার স্তদ্ধ পৃথিবীকে ব্যাস্ত করে তোলে। চোখ বুজে তার কথা ভাবলেই যেন বাতাসে মিষ্টি গন্ধ ভেষে আশে। তার উপস্থিতি যেন সব কিছুকে পানির মত সরল করে দেয়। মাথার মধ্যে প্রতিটা নিউরন যেন সব সময় তোমার অস্তিত্য বহন করে। তার অনুপস্থিতি মনের মধ্যে যেন তৈরি করে "কোয়ান্টাম ফ্ল্যাকচুয়েশন"। মনের মধ্যে এক অদৃশ্যা প্রসান্তি..........!!! হঠাৎ সব প্রসান্তি ছেড়ে ঠান্ডা লাগতে শুরু করলো। কিছু সময় বাদে পানির ঝাপটা এ যেন কল্পনাকে ভেজাতে বৃষ্টির আবির্ভাব। উঠে দেখি কম্বলটা গোছানো, আম্মু দারানো হাতে পানির গ্লাস....... বাকিটা ইতিহাস............!!!


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৬৯৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ♥"রং-রোড"♥ পর্ব-প্রথম

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...