বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

ফেসবুক বন্ধুর সাথে প্রেম

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান অদৃশ্য (০ পয়েন্ট)



X আজ আবির ইরার সাথে দেখা করতে কুমিল্লায় যাচ্ছে, তাদের আর কখনো দেখা হয়নি.... অহহহ,,,পরিচয় ই তো দেওয়া হলো না_ আবির এইবার অনার্স ৩য় বর্ষ তার বাড়ি চাঁদপুর। আর ইরা অনার্স ১ম বর্ষ... তাদের বন্ধুত্ব হয় ফেসবুক এর মাধ্যমে, কখনো কেউ কাউকে দেখেনি। তাদের বন্ধুত্ব অনেকটা গভীরে চলে গেছে, কেউ কারো সাথে একদিন কথা না বলে থাকতে পারে না!! একজন আরেকজন কে তুই বলে ডাকে ছয় মাস আপনি বলে ডাকেছে আবির ইরাকে... যদিও ইরার কাছে আপনি ভালো লাগতো না, হঠাৎ ইরা আবিরকে তুই বলে ডাকার অনুমতি দেয়! প্রথমে তুই বলতে একটু সমস্যা হলেও পরে ঠিক হয়ে যায়,,, হ্যাঁ ইরাও কিন্তু আবিরকে তুই বলেই ডাকে... কখনও কখনও তাদের মাঝে একটু ঝগড়াও হতো। একদিন অনেক ঝগড়া হয়। তিন দিন কথা হয়নি তাদের মাঝে। দুজন অনেক কান্নাও করছে!! তিন দিন তাদের কাছে তিন বছরের মতো লেগেছে,,, এভাবে চলতে থাকে তাদের বন্ধুত্ব আবির মনে মনে ইরাকে ভালোবেসে ফেলেছে। কিন্তু কখনো ইরাকে বুঝতে দেয়নি,, আবির ভয়ে ছিলো যদি তাদের বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে যায়.....! ???? ইরাও আবিরের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েছে, ইরা চাইছে আবির যদি তাকে ভালোবাসার কথা বলে তাহলে তাকে ফিরিয়ে দেবে না!! আবির ইরার বন্ধুত্ব দুই বছর উপলক্ষে দেখা করতে চাচ্ছে তারা.... ইরার প্রিয় রং ছিল হলুদ আবির ইরার পছন্দের রং এর হলুদ পাঞ্জাবী পড়ে ইরার সাথে দেখা করার জন্য কুমিল্লা উদ্দেশ্যে ট্রেন এ যাচ্ছিলো। ট্রেন এর জানালার ধারে বসে মাথা বাহিরে বের করে মনে মনে কল্পনা করছিলো আর মুচকি হাসছিলো। আবিরের চুল গুলা বাতাসে বার বার এলোমেলো করে দিচ্ছিলো???? এসব কল্পনা করতে করতে কখন যে ট্রেন স্টেশনে পৌঁছেছে কিচ্ছু বুঝতে পারেনি ও,, আবির ট্রেন থেকে নেমে চারদিক ভালো করে দেখছিলো। হঠাৎ তার চোখ একটু দূরে চলে যায় স্টেশন এর পাশে একটা গাছের নিচে। হলুদ শাড়ী পড়ে বেঞ্চের উল্টো দিক ঘোরে বসে আছে একটা অপরূপ পরি...!???? হ্যাঁ পরি-ই হবে চুল গুলো বাতাসে এমন ভাবে উড়ছিলো চোখ একদম সরাতেই পাচ্ছিলো না আবির ???? আবির পরির দিকে তাকিয়ে ইরাকে কল দিলো। দেখলো পরি ফোন কানে নিলো, আবির ফোন কেটে দিলো আবার কল দিলো একোই অবস্থা, তাহলে কি অই পরিটাই ইরা??? হুমমমমমম.....????ওটাই আমার ইরা। নাহহহ,,, ইরা বলা যাবে না... পরি!! আবির গুটি গুটি পায়ে ইরার কাছে গিয়ে পাশে বসে, আবার ইরা বলে ফেললাম ইরা বললে পাপ হবে! পরি বলতে হবে???????? কেমন আছো ইরা?? (আবির) আমি আবির!! ইরা আবিরের চোখের দিকে তাকিয়ে আছে কিছু বলতে পাচ্ছে না,,,, কি যেনো বলতে চাচ্ছে....... কিন্তু কোন এক অজানা শক্তি তাকে আটকে রেখেছে... আবিরের অবস্থাও একই! শুধু দুজন দুজনের চোখের দিকে তাকিয়ে কি যেনো বলছে,, যার ভাষা তারা ছাড়া আর কারও বুঝার সাধ্য নেই!!! ???? হঠাৎ আবির ইরার হাত শক্ত করে ধরে বলে উঠলো I LOVE YOU ❤️ ইরা আরো শক্ত করে হাত ধরে আস্তে আস্তে বলে উঠলো ❤️LOVE YOU 2❤️ কাল্পনিক R


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১০৭৪ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...