বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

বিশ্বের শ্রেষ্ট ধনী বিল গেটসের বাড়ি সম্বন্ধে জানুন অজানা ১০ তথ্য

"রহস্য" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Ajidur Rahman Taju (০ পয়েন্ট)



X বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ধনী বিল গেটসের বাড়ি সম্পর্কে জানুন অবাক করা ১০ তথ্য! ‌বিল গেটস। মাইক্রোসফট-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম সম্পদের মালিক তিনি। তার সম্পদের পরিমাণ এই মুহুর্তে প্রায় ৯ হাজার কোটি ডলার। তার বিলাসবহুল প্রাসাদটিতেও তাক লাগনোর মতো। ওয়াশিংটনের ম্যাডিনাতে বিশাল এই বাড়িটি লেক ওয়াশিংটনের পাড়ে অবস্থিত। জেনে নিন বিল গেটসের বাড়ির অজানা কিছু কথা— ১। ১৯৮৮ সালে বাড়িটি কেনা হয় ২০ লক্ষ ডলারে। বছরে মোট ১০ লক্ষ ডলার সম্পত্তি-কর দেন গেটস। ২। ৬৬ হাজার বর্গ ফুটের বাড়ি তৈরি করেন ৩০০ জন নির্মাণকর্মী। এর মধ্যে ২০০ জনই বিদ্যুৎকর্মী। ব্যবহৃত হয় ৫ হাজার বর্গ ফুট কাঠ। ৩।বাড়ি লাগোয়া হ্রদের পারে ৫০০ বছরের প্রাচীন ‘ডগলাস ফার’ গাছের সারি। ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ থেকে বার্জে ভাসিয়ে আনা বালি দিয়ে মুড়ে ফেলা হয় জলাশয়ের চারপাশ। ৪। প্রতিটি ঘরে হাই-টেক সেন্সরের সাহায্যে পছন্দসই তাপমাত্রা এবং আলোর ব্যবস্থা করা হয়। বাড়ির সর্বত্র পছন্দ অনুযায়ী গান শোনার ব্যবস্থাও রয়েছে। ৫। বাড়ির পারিপার্শ্বিক প্রাকৃতিক সম্পদকে কাজে লাগিয়েই দূষণহীন পরিবেশের ভারসাম্য বজায় থাকে স্বাভাবিক উপায়ে। ৬। গেটসের বাড়ির দেওয়ালের ছবি পছন্দমতো বদলানো যায়। একটি বোতামে চাপ দিলেই বদলে যায় ছবি। ৭। ৬০ ফুট লম্বা সুইমিং পুলটি তৈরি করা হয়েছে সম্পূর্ণ একটি আলাদা ভবনে। আয়তন ৩,৯০০ বর্গ ফুট। পুলে জলের নিচে সাউন্ড সিস্টেম রয়েছে। ৮। পুলে প্রায় ৯০ ফুট লম্বা ও ৬৩ ফুট উঁচু সিড়িতে ৮০টি ধাপ রয়েছে। সিড়িটি শেষ হয়েছে পুলের একবোরে নিচে। ৯। বিল গেটসের বাড়িতে জিমের আয়তন ২,৫০০ বর্গ ফুট। এছাড়াও জিমের সঙ্গেই রয়েছে স্টিম ও সওনা বাথের আলাদা ব্যবস্থা। ১০। ওই বাড়িতে রয়েছে ২৪টি শৌচাগার। সেই সঙ্গে রয়েছে ৬টি পাকেরঘর। বাড়ির বিভিন্ন প্রান্তে এগুলি তৈরি করা হয়েছে, যাতে ইচ্ছে অনুযায়ী প্রাসাদের যে কোনো অংশে খাবরের ব্যবস্থা করা যায়।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৮২১ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...