বাংলা গল্প পড়ার অন্যতম ওয়েবসাইট - গল্প পড়ুন এবং গল্প বলুন

বিশেষ নোটিশঃ সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান - আপনারা যে গল্প সাবমিট করবেন সেই গল্পের প্রথম লাইনে অবশ্যাই গল্পের আসল লেখকের নাম লেখা থাকতে হবে যেমন ~ লেখকের নামঃ আরিফ আজাদ , প্রথম লাইনে রাইটারের নাম না থাকলে গল্প পাবলিশ করা হবেনা

আপনাদের মতামত জানাতে আমাদের সাপোর্টে মেসেজ দিতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে মেসেজ দিতে পারেন , ধন্যবাদ

দুষ্টু মিষ্টি ভালোবাসা

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Bad Boy (০ পয়েন্ট)



X দৌড়াতে দৌড়াতে পার্কের ভিতর ঢুকতেই দেখি মেঘা আগেই এসে বসে আছে ৷ আমার আসতে দেরী হয়েছে, আসলে দেরী হয়েছে বললে ভুল হবে, ইচ্ছা করেই দেরী করেছি ৷ কারন, আমি বরাবরই দেরীতে পৌছতাম, আজও তার ব্যতিক্রম হওয়া উচিত না ৷ ভয়ে ভয়ে কাছে গেলাম, > একটু লেট হয়ে গেল, না? (আমি) > (নিরব) (মেঘা) > কথা বলবে না? > (নিরব) > ঠিকই তো, কথা বলাই উচিৎ না ৷ একদম বলবে না > (ভ্রু কুচকে তাকালো) > কান ধরবো? > (নিরব) > আচ্ছা কিছু বলা লাগবে না ২০টাকা দাও, রিক্সাওয়ালা দাড়িয়ে আছে ৷ > কি?? > মা..মা..মানিব্যাগ ফেলে এসেছি > এতক্ষণ বলা যায়না, দৌড় দাও (২০ টাকা দিয়ে বলল) > থ্যাঙ্কু, হি হি কিছুক্ষন পর বাদাম নিয়ে ফিরে আসলাম > নাও, বাদাম খাও > (একটু অবাক হয়ে তাকালো) > খাবা না? ওকে, ছুলে দাও আমি খাই > মিথ্যা বললে কেন? > কথা বলছিলে নাতো > তাই, দাড়াও বাদাম খাওয়াই তোমায়... অবস্থা ভাল মনে হলো না, দিলাম দৌড় ৷ কিন্তু একি, মেঘা আজ আর তাড়া করলো না ৷ যাই হোক, ভালই হলো ৷ একটু ঘুরে ফিরে তারপর যাব, তার মধ্যে একটু ঠান্ডা হোক ৷ আধা ঘন্ট পরে গোলাম ৷ হায় হায়, চলে গেল নাকি? বাদাম গুলো সব খেয়ে ফেলেছে, কি মেয়েরে বাবা! যাই, বাড়ির ছেলে বাড়ি যাই ৷ কিন্তু ঘুরতেই চমকে উঠলাম ৷ ফুলনদেবী ডান্ডা হাতে দাড়িয়ে ৷ আত্মসমর্পণই শ্রেয় মনে হলো ৷ হাত উচু করে দাড়িয়ে গেলাম ৷ দস্যুরানী ডান্ডা ঘোরাতে ঘোরাতে আমার দিকে আগাতে লাগলো ৷ অটোমেটিকালি চোখ বন্ধ হয়ে গেল, হাত দুটো কানে চলে গেল ৷ হটাৎ পিঠে পিটানির বদলে বুকে ভালবাসা অনুভব করলাম ৷ ভয়ে ভয়ে একটা চোখ খুলে দেখি দস্যুরানী প্রেমকুমারী হয়ে বুকের জমিন দখল নিয়ে বসে আছে... : এই মেয়েটা কখন যে কোন মুডে যায় বুঝিনা ৷ ইনি আমার একমাত্র গৃহিণী ৷ গতকাল সন্ধ্যায় আমারে না বলেই বাপের চলে গেল ৷ রাতে বাড়ি ফিরে না দেখে ফোন করে জানলাম উনি আমার শশুর বাড়িতে আছেন ৷ রাতে ঘুমাতে যাবো, হটাৎ ফোন দিল, > হ্যালো (আমি) > কি করো? (মেঘা) > এই শুয়ে পড়লাম > খেয়েছ? > হুম > তোমায় খুব দেখতে ইচ্ছা করছে > আচ্ছা কাল আসবো > হুম, কিন্তু পার্কে > কেন? > বিয়ের আগে যেভাবে দেখা করতাম, কালকে সেভাবে দেখা করবো > কেন? > কেন মানে? যা বলছি তাই করো > ওকে ওকে > এইতো লক্ষী ছেলে, এবার ঘুমাও, গুড নাইট > হুম গুড নাইট মেয়েটা সত্যই পাগলী ৷ কলেজ জীবন থেকেই প্রেম হয় আমাদের ৷ তারপর পড়াশুনার শেষে পরিবারের সম্মতিতেই বিয়ে হয় ৬ মাস আগে ৷ টোনা-টুনির মিষ্টি সংসার ৷ দুষ্টুমি আর ভালবাসায় ভরানো। .


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩১৭ জন


এ জাতীয় গল্প

→ দুষ্টু মিষ্টি অভিমানে ঘেরা ভালোবাসা
→ দুষ্টু মিষ্টি ভালোবাসা
→ দুষ্টু মিষ্টি ভালোবাসা
→ দুষ্টু ছেলের মিষ্টি ভালোবাসা
→ দুষ্টু মিষ্টি ভালোবাসা
→ দুষ্টু মিষ্টি ভালোবাসা

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...