গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

পরীমল স্যারে সাথে পিকনিক

"মজার গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Puspita (৩২ পয়েন্ট)



পরীমল শীল হলেন আমার কেজি স্কুলের হিন্দু টিচার। কি বলি এই স্যারকে নিয়ে স্যারটা অতিরিক্ত উপদেশ দেয়।gj অতিরিক্ত চকলেট খাবে না দাঁতে পোকা হবে, অতিরিক্ত আইসক্রিম খাবে না দাঁতে ব্যথা হবে না, বাইরের খাবার খাবে না পেটে ব্যথা হবে।gj আরে বাবা আমার দাঁতে ব্যথা হবে, দাঁতে পোকা হবে, পেটে ব্যথা হবে যা ইচ্ছে হোক তাতে আপনার কি?ras কিন্তু এই কথা কোনো সময় পারিনি। একদিকে আমার গুরুজন অন্যদিকে আমার স্যার এসব বলা কি যায়।gj মা বাবা বলছে বড়দের সম্মান করে কথা বলতে। এসব বললে তো অসম্মান করা হবে।gj আচ্ছা এসব কথা থাক গল্পে আসি। আমি তখন ক্লাস থ্রী তে পড়ি। স্কুল থেকে পিকনিকে নিয়ে যাবে কুমিল্লা কোটবাড়ি। সকলের বাবা মাকে তাদের সন্তানের সাথে যেতে বলছে। আমি বাড়িতে এসে বাবাকে বলাতেই বাবা রাজি।wow কিন্তু পিকনিকের জন্য যে ডেইট ফিক্সড করেছিল সেইদিন বাবা পূজোর মিটিং ছিল।gj তিনি যেতে পারবেন না।gj তাই তিনি আমার দায়িত্ব পরীমল স্যারের উপর দিয়েছেন।blush তবে পিকনিকের দিন বাবা ঘন্টায় ঘন্টায় ফোন করে খবর নিচ্ছে। আমি কি করছি, কি খাচ্ছি, দুষ্টুমী করছি কি না। gj আমার বাবাও ঠিক এই স্যারের মতো।gj দেখতে দেখতে পিকনিকের দিন চলে আসলো। বাবা আমায় ৫টায় ঘুমি থেকে উঠিয়ে দিলো। আর মা ব্যাগ ঘুছিয়ে দিলো এবং রেডি করিয়ে দিলো। এরপর বাবা আমাকে স্কুলে দিয়ে আসলো। পিকনিকের জন্য একটা বাস ও দুটো মাইক্রো নেওয়া হয়েছিলো। স্যারদের জন্য একটা মাইক্রো আর ম্যামদের জন্য একটা মাইক্রো। আর ছাত্রছাত্রী ও তাদের অভিভাবকের জন্য বাস। স্যার আমাকে আয়েশা ম্যামের মেয়ের পাশে বসিয়ে দিয়ে চলে গেল। ম্যামের মেয়ের নাম জেরিন। ও তখন ওয়ানে পড়তো। আমার ওর সাথে ভালোই বন্ধুত্ব।gj আমরা মজা করতে চলে আসলাম কোটবাড়ি। মাইক্রো থেকে নামতেই স্যার হাজির। ছোট ছিলাম এবং দুষ্টুও ছিলাম কখন কোন দিকে দৌড় দিয়ে চলে যাই বিশ্বাস আছে নাকি।gj তাই স্যার আমার হাত ধরে আছে আর পুরো কোটবাড়ি ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে দেখাচ্ছে। হঠাৎ স্যারকে বলে উঠলাম আমি: ও স্যার আমার খিদে পেয়েছে কিছু খাবো। blush স্যার: তো কি খাবে? আমি: যেটা আমি খেতে লাইক করি চকলেট এবং আইসক্রিম। স্যার: ওওও এই ছাড়া আর কোনো খাওয়ার নেই নাকি? আমি: না নেই। স্যার: ওকে চকলেট কিনে দিচ্ছি। দুটো চকলেট খাবে অতিরিক্ত খাবে না দাঁতে পোঁকা হবে। আমি: দুটোhuh স্যার: হুমমম দুটো। অনলি দুটো কিনেদিল। আমি চকলেট খাচ্ছি আর জায়গাটা ঘুরে ঘুরে দেখছি। পাথরের হাতি, গাছের মধ্যে বানর, জিরাফ আরো অনেক অনেক প্রাণি। সবগুলো পাথরের তৈরি। গাছের মধ্যে বানর দেখে মন চেয়েছিল এই স্যারটাকে বানরের সাথে বেধে রাখি। gj এরপর লাঞ্চের টাইম স্যারকে বললাম স্যার আমি আইসক্রিম খাবো গরম লাগছে। স্যার: এখন লাঞ্চের টাইম এখন তুমি লাঞ্চ করবে ওকে। আমি: স্যার.... স্যার: কোনো কথা হবে না চলো লাঞ্চ করতে। গেলাম লাঞ্চ করলাম।gj সকল স্যার ম্যাম সেখানে ঘুরেছে ছবি তুলেছ।gj বিকেলে সবাই বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিল। গাড়িতে উঠে ভাবছিলাম আর কোনোসময় এই স্যারের সাথে পিকনিকে যাবো না। ভাবতে ভাবতে ঘুম চলে আসলো। এরপর ঘুম যখন ভাঙলো দেখি স্কুলে গেইটের সামনে। এবং এরপর বাবা এসে আমায় বাড়ি নিয়ে গেলো। আর শপত করেছিলাম আর কোনো সময় এই স্যারের সাথে কোথাও যাবো না।হিহিহি gj এই পিকনিক সারা জীবন মনে থাকবে।gj [বি: দ্র: এই গল্পটি কাল্পনিক ও সত্য দুটোকে একসাথে খিচুরি বানিয়ে লিখেছি।gj একমাস পর গল্প দিলাম ভুল ক্রটি হলে ধরিয়ে দিবেন। না ধরিয়ে দিলে আপনাদের দোষ।gj সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। জনস্বার্থে প্রচারিত।gj ]


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২৭৮ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ♦আলাদিন ও তার জিনের সাথে একদিন♦
→ মুয়াজ এর সাথে জিনের দেখা।
→ শয়তানের সাথে এমনই হয়!!(হাসতে বাধ্য!! না হাসলে সময় ফেরত!!!)
→ আমার মামাদের সাথে ভূতুড়ে কাহিনী ঘটে ছিল
→ আমার নানার সাথে ঘটে ছিল কিছু ভূতুড়ে কাহিনী
→ জিজের সাথে সর্বপ্রথম যেভাবে সাক্ষাৎ!
→ জিজের সমবয়সী বন্ধুদের সাথে ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা! (শেষ পর্ব)
→ জিজের সমবয়সী বন্ধুদের সাথে ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা! (পর্ব-৫)
→ জিজের সমবয়সী বন্ধুদের সাথে ভূতুড়ে অভিজ্ঞতা! (পর্ব-৪)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...