গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

যাদের গল্পের ঝুরিতে লগিন করতে সমস্যা হচ্ছে তারা মেগাবাইট দিয়ে তারপর লগিন করুন.. ফ্রিবেসিক থেকে এই সমস্যা করছে.. ফ্রিবেসিক এ্যাপ দিয়ে এবং মেগাবাইট দিয়ে একবার লগিন করলে পরবর্তিতে মেগাবাইট ছাড়াও ব্যাবহার করতে পারবেন.. তাই প্রথমে মেগাবাইট দিয়ে আগে লগিন করে নিন..

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

আয়না পর্ব_৩ #Joker

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান ɴᴏʙɪ ᴛᴀ (১৩০ পয়েন্ট)



#আয়না পর্ব_৩ #Joker বাকি ২০টাকা তো আফরিনের আমি টাকা পকেটে রেখে দিলাম যেদিন দেখা হবে সেদিন দিয়ে দিব। | বেশ নিজের জায়গায় চলে গেলাম।আফরিনকে ধন্যবাদ বলতে পারলাম না।মেয়েটা যে এমন জলদিতে ছিল আমার বলার কিছু ছিল না। | ঘরে বসে গান শুনছি।আম্মু আমার জন্য ডিম পোস্ট করছে।প্রথমে আম্মু শাক দিয়ে চালিয়ে দিতে চাইছিল কিন্তু আমি মানা করে দিলাম। তাই আম্মু বাধ্য সন্তানের মত ডিম পোস্ট করতে হল। | আমি গানের মধ্যে মগ্ন।ভাত খাব বলে পা নাড়াতে নাড়াতে গান শুনতে হচ্ছে।হঠাৎ আমার ফ্লোর কাপতে শুরু করলো। | --আম্মু নিচে কি হচ্ছে? --আজকে একটা নতুন ভাড়াটিয়া আসছে তাই সব মালপত্র ঢুকাচ্ছে! --তাই বলে এত আওয়াজ আমার ঠিক করে বসতে পাচ্ছি না --তুই আবার কিছু করতে যাস না তোর আব্বু আসলে তোর খবর আছে | আমার আব্বুর নাম শুনলে বাতাস চুটে তাই কথা বাড়ালাম না।ভাতের বাসন নিয়ে ডাল নিয়ে ডিম দিয়ে ভাত পেটে পুড়ছি। বাসনকে চেটেপুটে খেয়ে আম্মু হাতে বাসনটা ধরিয়ে হাত ধুয়ে নিলাম। | বিকেলে আবার আমার ঘুম আসে না তাই আমার বেকার বন্ধু আবসারের কাছে যেতে হয়।আবসার আমার একমাত্র কষ্ট বুঝে।আবসারকে প্লেন করছি এ শুক্রবার তো ঘুরতে যাবো। | আমার কানে হেডফোন। গান শুনার বদঅভ্যাস কখন থেকে জানি না।কিন্তু গান গাওয়ার শখ ছোট থেকে। | গানের একটা একটা বিটে আমি সিডি দিয়ে নামছি।তখনই চেনা চেনা মুখ আমার সামনে ভেসে ওঠলো।আরে এ তো আর কেউ না আমার মানে আফরিন। | কার সাথে ঝকড়া করছে?আমি কাছে গিয়ে দেখলাম। মজুরের সাথে ঝকড়া করছে।আরে এ কেমন মেয়ে সবার সাথে রেগে কথা বলে।আমি ঝকড়া সামসল দিতে গেলাম কারন ঝকড়া থামাতে গেলে ওল্টা আমার ওপর তেড়ে ওঠবে যেটা আমি চাই না। | সোজা সিডি দিয়ে নেমে চলে আসলাম।কিন্তু তার মুখটা আমার মনে বার বার ভাসছে কেন? আবসার আমার জন্য চায়ের দোকানে বসে আছে। | --তোর অপেক্ষায় আমি চার গ্লাস চা খেয়ে গেলাম --আচ্ছা আমি তোর চায়ের টাকা দিব --কি আজ এত খুশি কেন? --তুই বল! --মা-বাবা টাকা দিছে!! --না!! --নতুন মোবাইল কিনে দিছে! --আবে না --তো কি! --ভাই একটা মেয়ে... --প্রেমে পড়ে গেছিস? --আমার কথা শেষ করতে দেয়! --আচ্ছা বল! --তোর মনে আছে আমি চকবাজার গেছিলাম --হুমম! --সেদিন মেয়েটাকে দেখছি কি একটা অদ্ভুত মেয়েরে বাবা!!যার তার ওপর রেগে যায়। এখন আজ দেখলাম আমাদের নতুন ভাড়াটিয়াও ওই মেয়েটা! --ভাই তুই সাবধানে থাকিস তোর হিটলার বাবা কিন্তু তোকে জানলে অনেক পেদাবে। | আবসার চলে যাচ্ছে।গাড়ির একটা জড়ো বাতাস যেন আমায় আঘাত করে চলে গেল।আমি এসময়গুলোকে ধরে রাখতে চাইছিলাম।কিন্তু সেগুলো হাত থেকে একটা একটা চলে যাচ্ছে। | ঢাকার ধুলোবালি আমার নাকে ভরে আছে।তাই কম দামি একটা মাস্ক কিনলাম।মাস্কটা বেশ ধুলো বালি থেকে রক্ষা করছে। | আফরিন আমাকে মাস্কে চিনতে পারলো না।আফরিনের পাশে তার মা।আফরিন ঠিক মায়ের মত।জানি না রাগটা কি মায়ের নাকি বাপের।বাপ কে তো দেখছি না? | আমি ক্লান্ত ছিলাম বলে আর বেশিক্ষণ দাড়িয়ে না থেকে ওপরে উঠে গেলাম।আমরা দুইতলায় ছিলাম।আর আফরিনরা গ্রাউন ফ্লোরে।আমি ওয়াশরুমে গিয়ে মুখটা ধুয়ে নিলাম। | ফ্রেস হয়ে বিছানায় শুয়ে গেলাম কখন যে ঘুম চলে আসলো জানতে পারলাম না।ঘুম থেকে উঠে দেখি আম্মু নেই।তাই ঘর থেকে বের হলাম আম্মু কোথায়? | আম্মু আওয়াজ ঠিক আফরিনের ঘর থেকে শুনা যাচ্ছে তাই চটফট একটা নতুন ড্রেশ পড়ে স্প্রে লাগিয়ে নিচে গেলাম। | আম্মু আফরিনের আম্মুর সাথে কথা বলছেন।আমিও যোগ দিলাম।কিন্তু আমার চোখ খুজছিল আফরিনকে। তখন নজর গেল বেডরুমে।আফরিন বেডে পা ফেলে ল্যাপটপে কি যেন করছে। হয়তো চ্যাটিং? | আমাকে জানতে হবে আফরিনের আইডি!! তাদের ঘরে বেশিক্ষণ ছিলাম না। | কফির খেতে বেশি ভালোবাসি কিন্তু নিজের হাতে। অন্যের হাতের কফি আমি খাই না।এমন কি আম্মু বানালেও।আমি কফি বানাতে মজা পাই। | নিজের মধ্যে একটা শান্তি খুজে পাই।কফিটা আবার আরেকটা জায়গায় কাজ করে।সন্ধ্যায় আমার বেশ ঘুম পাই।কফিটা মাস্ট থাকতে হবে। | কফির গ্লাস হাতে নিয়ে ভাবছি যদি আফরিনে ফেসবুক আইডি কোথায় পাবো????? , , , , , , চলবে,,,,,,,,


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২০২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ অভিশপ্ত আয়না পর্র৬(শেষ পর্ব):-
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৫:-
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৪:-
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৩:-
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব২:-
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব১:-
→ কলেজ লাইফের প্রেম ( পর্ব ৩)
→ অবনীল(পর্ব-৩)
→ আয়নার ঘর

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...