গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

গল্পেরঝুড়িতে লেখকদের জন্য ওয়েলকাম !! যারা সত্যকারের লেখক তারা আপনাদের নিজেদের নিজস্ব গল্প সাবমিট করুন... জিজেতে যারা নিজেদের লেখা গল্প সাবমিট করবেন তাদের গল্পেরঝুড়ির রাইটার পদবী দেওয়া হবে... এজন্য সম্পুর্ন নিজের লেখা অন্তত পাচটি গল্প সাবমিট করতে হবে... এবং গল্পে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট থাকতে হবে ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (১৭)

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Tuba Rubaiyat (৮৭ পয়েন্ট)



শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ part: 17 writer :T.R♥ ♦♦ সময় তো থেমে থাকেনা।।সে তার আপন গতিতে ছুটতে থাকে।।পেরিয়ে গেছে আরো কয়েকমাস।।এই কয়েকমাসে বদলে গেছে অনেক কিছু।।।শ্রুতি এখন মি.&মিসেস চৌধুরীর মেয়ে।।।যেন অভির চেয়েও প্রিয় হয়ে গেছে,,,ওর মিষ্টি স্বভাব,,ওর চলাফেরা যে কাউকেই মুগ্ধ করবে,,,অভি শ্রুতির মধ্যেও অনেক কিছু বদলে গিয়েছে,,,অভির দুষ্টুমি ,, ওর খুনসুটি,, ফাজলামো,, শ্রুতির প্রতি কেয়ারনেস সবকিছু শ্রুতিকে মুগ্ধ করে।।।শ্রুতিও ভালো বাসে অভিকে যদিও কখনো বলেনি,,,,সবকিছু কি মুখে বলা লাগে???ভালোবাসা তো মুখে বলার জিনিস নয় অনুভব করার জিনিস।।।ভালোবাসা যে মুখে প্রকাশ করতে হবে এমনটা নয়,,,,মুখে বলা ছাড়াও ভালোবাসা প্রকাশ করা যায়।।।থাকনা কিছু অনুভুতি অপ্রকাশিত!!!!থাকনা কিছু কথা অজানা!!! শ্রুতির হাফ ইয়ারলি এক্সাম চলছে।।।ওর পড়াশোনায় অভি অনেক হেল্প করে।।এক্সাম শেষ করে কলেজের গেটে চরম বিরক্তি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে,,,,,, -- উফফ আর কতক্ষন দাঁড়িয়ে থাকবো!!!অভি এখনো আসছে না কেন???প্রায় একঘণ্টা ধরে দাঁড়িয়ে আছি,,,,,,আজ আসুক,,,, এর মধ্যেই অভি চলে, ,,,,,,,অভিকে দেখে শ্রুতি রাগী লুক নিয়ে অভির সামনে দাড়ালো।।।অভি মনে মনে ঢোক গিলল,,,,,এইরে ম্যাডাম তো এবার ইট দিয়ে মাথা ফাটাবে,,,,আল্লাহ বাচাও!!! --এত দেরী করলেন কেন???নিশ্চয়ই কোন পেত্নিকে নিয়ে ঘুরতে গিয়েছিলেন,,,,,,,,,,,,, --পেত্নি মানে??? -- পেত্নি বুঝেননা?? আপনার গার্লফ্রেন্ড,,,,,,,, -- আসতাগফিরুল্লাহ নাউজুবিল্লাহ কি বলো এসব??gj। আমার গার্লফ্রেন্ড মানে??আমি তো জীবনে তুমি ছাড়া কোন মেয়ের দিকে তাকাইওনি।। --তাহলে দেরী কেন করেছেন??? -- আসলে আমার এক স্যারের সাথে দেখা হয়েছিলো,,,,হাইস্কুলে থাকতে পড়াতেন উনি,,,,এখন বুড়ো হয়ে গেছেন,,,,ওনাকে বাড়ি পৌছে দিয়ে আসতে গিয়ে দেরী হয়ে গেছে।। -- তো এটা বলতে এতক্ষন লাগে??প্রথমে বলে দিলেই তো হতো,,,উল্টো আমি কত গুলো কথা শুনালাম,,,, সরি,,, -- বলে দিলে তো এই বকা গুলো মিস হয়ে যেতো,,,যেটা আমার খুব ভালো লাগে,,,,,(বিরবির করে) -- কি বললে?? --কই কিছুনা তো,,,,,,তাড়াতাড়ি গাড়িতে উঠো,,,,, --হুম!! মিসেস চৌধুরী কিচেনে রান্না করছিলেন।।।এর মধ্যে কলিংবেল বেজে উঠে,,,,তিনি গিয়ে দরজা খুলেন,,,দরজা খুলেই অবাক হয়ে যান তিনি,,,,,,,, ---তোমরা??????? বাড়িতে এসে নিচে,,,,,,,,, অভি : ম্যাডাম কি এখনো আমার উপর রেগে আছো??? শ্রুতি:,,,,,,,,,,,,,, অভি: কি হলো কথা বলবেনা???(কাঁদোকাঁদো মুখ করে) শ্রুতি কিছু বলছেনা চুপচাপ দাঁড়িয়ে আছে।। আসলে অভির অবস্থা দেখে ওর খুব হাসি পাচ্ছে,,,,,,তবুও ওর কান্ড দেখার জন্য চুপ করে আছে।। অভি:ও তাহলে তো এটা ও কেউ খাবেনা কি আর করার!!!(শ্রুতির পছন্দের আইস্ক্রিম বক্স টা বের করে) হঠাৎ করেই শ্রুতি ওর হাত থেকে আইস্ক্রিম বক্স টা নিয়ে শ্রুতির ব্যাগ, ফাইল সবকিছু অভির হাতে দিয়ে সিড়ি দিয়ে উঠে গেলো।।।।ব্যাপারটা পুরোই অভির মাথার উপর দিয়ে গেছে।।। --আরে আরে কি হলো,,,,,এগুলো আমাকে ধরিয়ে দিয়েছো কেন??? --এটা আপনার শাস্তি,,,,,,,(আইস্ক্রিম খেতে খেতে) ওর কথায় অভি মুচকি হেসে পেছন পেছন আসতে লাগলো,,,,,,,শ্রুতি এসে কলিংবেল বাজাচ্ছে,,,হঠাৎ করেই দরজা খুলে কেউ একজন সারপ্রাইজ বলে ওকে জড়িয়ে ধরতে নিলো,,,,,,,,,কিন্তু থেমে গেলো,,,,ও তাকিয়ে দেখে একটা মেয়ে,,,মেয়েটা ওকে দেখেই বলে উঠলো,,,,,, --What the hell???Who are you?? --শ্রুতি,,,,,,, মেয়েট পেছন ফিরে দেখে অভি হাসতে হাসতে আসছে,,,,,,,,অভি ওকে দেখে অবাক হয়ে গেল,,,, অভি:ইলা তুমি!!! ইলা: অভিইইই বলেই অভিকে জড়িয়ে ধরতে নিলেই শ্রুতির হাত থেকে সব আইস্ক্রিম মেয়েটার গায়ে লেগে যায়,,,,,ইলা রেগে পুরো আগুন,,,,, শ্রুতি; সরি সরি,,,,,,,,, ইলা রেগে কিছু বলতে যাবে তার আগেই একটা ছেলে এসে অভিকে জড়িয়ে ধরল।।ছেলেটা অভির বয়সী।। অভি: আরে ইহান!!!মানে কি এসবের??? বিডি তে আসলি কবে???কাল রাতে কথা হলো তোর সাথে কিন্তু দেশে ফিরবি এটা তো বলিস নি।। ইহান: বলে দিলে সারপ্রাইজ হতো কি করে বল???আর তাছাড়া আগে থেকেও আসার কথা ছিলোনা হঠাৎ করে ই সব কিছু।।। [অভি আর ইহান সমবয়সী।। খুব ভালো ফ্রেন্ডও।।। তাই তুই করেই বলে] শ্রুতি চুপচাপ দাঁড়িয়ে আছে।।।কারন ও কাউকেই চিনেনা।।। অভি: ইহান ও হলো শ্রুতি,,,,তোকে বলেছি না?? ইহান: হুম আমি দেখেই বুঝেছিলাম।।।। অভি: আর শ্রুতি ও হলো ইহান আমার চাচ্চুর ছেলে,,,,আর ও ইলা ইহানের বোন।।। ইহান: আরেকটা সারপ্রাইজ কিন্তু এখনো রয়ে গেছে,,,,,,,, অভি: কি??? ইহান: সেটা পরেই বুঝতে পারবি,,,,,,, অভি: চাচ্চু,,,,,,,, অভি গিয়ে ওর চাচ্চুকে জড়িয়ে ধরে।।সবার সাথে কথা বলে,,,,,, ইহান: সারপ্রাইজ টা হলো আমরা সবাই কাল দাদুবাড়ি যাচ্ছি।।।কারন রিহা আপ্পির বিয়ে,,,,,,, অভি & শ্রুতি: হোয়াটট!!!! অভির মা: হুম্ম,,,,, অভি : রিহা আপ্পির বিয়ে??? আপি আমাকে বলেনি??আর এত তাড়াতাড়ি হঠাৎ?? ইহান: আপ্পি সারপ্রাইজ দিতে চেয়েছিলো সবাইকে,,,,,আমিই বলতে না বলেছিলাম,,,,সবাইকে সারপ্রাইজ দেবো বলে তাইতো এত তাড়াহুড়ো করে আসা,,,, অভি: সবকিছু ঠিক ঠাক হলো কি করে??? অভির মা: রেহান ঠিক করেছে।।রিয়াদ নামের ছেলেটা নাকি রেহানের ছোটবেলার বন্ধু,,,,অনেক বছর দেখা ছিলোনা।।। অভি: ওও তাই?? তাহলে আমরা কবে যাচ্ছি?? অভির মা: কাল শ্রুতির এক্সাম শেস হলেই বিকেলে রওনা দেবো ।।।। অভি: ওকে,,,,, ইলা: তাহলে আজ বিকেলে শপিং করে নেবো,,,,,তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে শপিং করতে পারিনি আমি,,,,,অভি বেবি বিকেলে আমরা শপিং এ যাবো,,,,হুম্ম?? অভি: আচ্ছা যেও,,,তোমাকে বলেছিনা এইসব বেবি টেবি ডাকবেনা আমাকে,,,,,আই ডোন্ট লাইক দিজ,,,,,আর তাছাড়া আমি তোমার বয়সে বড় তাই ভাইয়া ডেকো,,,,,,,,, কথা টা বলেই অভি চলে গেল।।। ইলা: বেবি তোমাকে তো আমি বেবিই ডাকবো,,,,আর কতদিন এভাবে পালিয়ে থাকবে???(ডেভিল স্মাইল দিয়ে) এদিকে শ্রুতির কাছে কেন যেন ইলাকে ভালো লাগছেনা।। সন্ধায়,,,,,,, শ্রুতির পরদিন ম্যাথ এক্সাম।।।তাই ও পড়তে বসে গেছে,,,,এরমধ্যে ইলা চিল্লিয়ে বলতে লাগল,,,,,, --এই শ্রুতি না ট্রুতি আমাকে এক কাপ কফি দাও,,,,,,, শ্রুতি খুব মনযোগ দিয়ে অংক করছে,,,,তাই ও শুনতে পায়নি,,, ইলা: কি হলো শুনতে পাচ্ছোনা নাকি?? বেয়াদব মেয়ে,,,কি বুঝাতে চাইছো?? খুব পড়ালেখা করো??চাচা চাচী কি পাগল হয়ে গেছে যে এমন একটা রাস্তার মেয়েকে আবার পড়ালেখা করাচ্ছে!!!তাড়াতাড়ি কফি করে এনে দাও,,,,, বলেই ইলা হনহনিয়ে চলে গেল,,,,,ইলার কথা গুলো শুনে শ্রুতির কান্না এসে গেল,,,তবুও চোখের জল আড়াল করে কফি বানাতে গেলো,,,,,,,,অভি বাসায় এসে দেখে শ্রুতি কিচেনের দিকে যাচ্ছে।। -- কিচেনে যাচ্ছো কেন??? -- ক কফি বানাতে???ইলা আপুর জন্য,,,,, --তোমার কাল এক্সাম আছে না??তুমি কফি কেন বানাতে যাচ্ছো??শেফাকে বললেই তো হতো,,,, --না ঠিক আছে শেফাকে বলার কি দরকার?? আমি বানিয়ে নিয়ে আসি,,,পাঁচ মিনিট লাগবে,,,, -- তোমার কফি বানাতে হবে না যাও,,, গিয়ে ভালোমতো প্রিপারেশন নাও এক্সামের,,,, --কফিটা বানিয়ে যাচ্ছি,,,, -- আমি তোমাকে যেতে বলেছি???যাও গিয়ে পড়তে বসো,,, অভির ধমক শুনে শ্রুতি চলে গেল,,,,অভি কফি বানিয়ে নিয়ে গেল,,,,শ্রুতিকে এক মগ দিয়ে,,,ইলার কাছে গেলো,,,ইলা অন্যদিকে ফিরে মোবাইল টিপছিলো,,,,, --ইলা,,, --আরে বলোনা তোমাদের ওই কাজের মেয়ে শ্রুতি না কি যেন ওকে সেই কখন কফি দিতে বলেছি এখনো দিচ্ছেনা,,,,, --হোয়াট?? কি বলছো তুমি??? --আরে তুমি কফি নিয়ে এসেছো কেন???ওই মেয়েটা কোথায়,,,আর তোমরা রাস্তার মেয়েটাকে এত আদর করো কেন??? -- ইলায়ায়া!!!কিসব আবোলতাবোল বলছো???কাজের মেয়ে রাস্তার মেয়ে এসব কি???নিজের ভাষা ঠিক করো,,,,শ্রুতি এ বাসার কাজের মেয়ে নয়,,,,আর না ও রাস্তার মেয়ে,,,আর কখনো ওকে এসব বলবেনা।ও কষ্ট পাবে এসব শুনলে ।।ও এখন এই বাড়ির মেয়ে,,,আর তোমার কিছু লাগলে শেফাকে বলতে পারো,,,শেফা ছাড়া ও আরো কাজের লোক আছে তাদের বলতে পারো,,,,,শ্রুতিকে বলবে না,,,,,,, -- তোমার এত দরদ কেন ওর জন্য??? -- যেটা সত্যি আমি সেটাই বলেছি,, এখানে দরদ আসল কোথা থেকে,,,,আর কফি আমিই বানাই,,,খেয়ে দেখো,,,পছন্দ না হলে শেফা আবার বানিয়ে দেবে,,,,, বলেই রুম থেকে বেড়িয়ে গেল অভি,,,,,শ্রুতির রুমে গিয়ে দেখল শ্রুতি খুব মনোযোগ দিয়ে প্রব্লেম সলভ করছে,,,, ওর যে মন খারাপ সেটা চোখ মুখ দিয়েই বোঝা যাচ্ছে।।।অভি গিয়ে ওর পাশে বসল,, --কি হয়েছে???মন খারাপ কেন?? -- কে বলেছে মন খারাপ হবে কেন?? --আমি বুঝতে পারছি,,,,,সরি, -- আপনি সরি বলছেন কেন??আমি ঠিক আছি,,,, আসলে কয়েকটা প্রব্লেম সলভ করতে পারছিনা তাই মন খারাপ,,,, --অভি বুঝতে পারছে যে শ্রুতি কথা লুকোতে চাইছে তাই আর কিছু না বলে ওকে সুন্দর করে পড়া বুঝিয়ে দিলো,,,, --বুঝেছো???আর কোন প্রব্লেম আছে??? -- নাহ আর কোন প্রব্লেম নেই,,, পরদিন ওরা অভিদের দাদুবাড়ি পৌছে যায়,,,,ওর দাদুবাড়ি গ্রামে,,,,আর রিহার বিয়ে গ্রামের বাড়িতেই হবে,,,,,,, সেখানে পৌছে,,,,, (চলবে)


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৭৮৮ জন


এ জাতীয় গল্প

→ শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (২৩)
→ শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (২৩)
→ জিজের পরিচিতরা যে কারণে প্রিয় (শেষ পর্ব)
→ অভিশপ্ত আয়না পর্র৬(শেষ পর্ব):-
→ শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (২২)
→ শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (২১)
→ "আনিকা তুমি এমন কেন?"[২য় তথা শেষ পর্ব]
→ শেষ বসন্ত-(প্রথম পর্ব)
→ সীরাহ কেন পড়া উচিৎ? রাসূল (সা:) এর জীবনী বৈজ্ঞানিক উপায়ে সংরক্ষিত হয়েছে – শেষ পর্ব
→ শেষ বিকেলের মায়াবতী♥ (২০)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...