গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

নৃত্যের পরিণতি(শেষ পর্ব)

"জীবনের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান TahmiNa ZiNat PrOmi (০ পয়েন্ট)



মহিলা কে তাড়িয়ে দিলেন,রাতে আফনান,ওর মা টেবিলে ডিনার করছিল আর সিস্মি ওদের পাশে দাঁড়িয়ে খাবার দিচ্ছিলো মাঃ-বাবা,তোর কাকিমা ফোন করেছিলেন,তোর কাকা অসুস্থ,চল কাল দেখে আসি আর ঘুরেও আসি আফনানঃ- ঠিক আছে মা,সিস্মি তোমার ব্যাগ গুছিয়ে নাও মাঃ-ওকে নিবি নাকি,ওখানে গিয়েও নাচ শুরু করবে, সিস্মিঃ- না,মা আফনানঃ- মা যা বলছে তাই ঠিক(প্লেট টা জুড়ে ধাক্কা দিয়ে চলে গেলো) পরদিন সকালে আফনান ও তার মা রওনা দিল,তখন ওই মহিলা আবার আসলেন,দরজায় নক করলেন সিস্মিঃ- দরজা খুলতে গিয়ে বলে মনে হয় কিছু রেখে গেছে (মনে মনে)তারপর দরজা খুলতেই দেখে ওই মহিলা আসলেন সিস্মিঃ- কি ব্যাপার আপনি? মনির মাঃ-আমার মেয়ে বায়না ধরছে যে নাচ শিখবেই আজ একটু হলেও,ওর আশা ফার্স্ট হবে,যদি আরেকটু ভালো করে সিস্মিঃ- না,দেখুন মনিঃ- প্লিজ আপু,প্লিজ সিস্মিঃ- আচ্ছা ভিতরে আসুন নাচ শেখাচ্ছে,,তখনি ওরা চলে আসলো,দরজাটা খোলা ছিল,,চুপচাপ দাঁড়িয়ে রইল তারা,মনির মা দেখে আতঙ্ক চোখে তাকালো,তখনি আফনানের মা হাততালি দিলো বাহ্ বাহ্ বাড়িটা নৃত্যকলা হয়ে গেছে বাবা মনির মাঃ-দেখুন,কাকিমা? আফনানঃ- আপনারা যান(শান্তস্বভাবে) তারা চলে গেলো, মাঃ-বাবা তোর তো সারাজীবন আইবুড়ো থাকাই ভালো ছিল,এমন একটা বেয়াদব থেকে, সিস্মিঃ- মা,শুনুন,,, আফনান ভিতরে রুমে গেলো,পিছু পিছু সিস্মি গেলো, সিস্মিঃ- দেখো বাচ্চাটা অনুরোধ করছিল,তাই আর কি,আর হবে না আফনান জগ থেকে গ্লাসে পানি নিয়ে সিস্মির মুখে ছুঁড়ে মারলো আফনানঃ- আর করবো না,করবো না,আররর হবে না,অনেক শুনেছি আমি,,তোর দেখি কাণ্ডজ্ঞান নাই ই, সিস্মিঃ- মাফ করে দাও আফনান তখন ওর মাথায় সিস্মির হাত রাখলো,বললো,শুনো এরপর যদি নাচো,আমার মরা মুখ দেখবে সিস্মি হতভাগ হয়ে তাকিয়ে রইল ছুটি নিলো তো তাই আজ বিকেলে আফনান বাসায়,টেবিলে বসে সংবাদপত্র পড়ছিল,তখনি বন্ধুর ফোন, আফনানঃ- হুম,বল বন্ধুঃ-ভাই,তোর বিবাহবার্ষিকীপার্টি চাই আফনানঃ-আচ্ছা,একটা হোটেলে ট্রিট দিবোনে যা বন্ধুঃ-আরে না, তোর বাড়িতেই পার্টি চাই আফনানঃ- চল,ঠিক আছে,কাল সন্ধ্যায় সবাইকে নিয়ে চলে আয় বন্ধু ঃ-ঠিক আছে ফোন কাটার পর, আফনানঃ- মা,একটা পার্টি রাখছি বাড়িতে কাল সন্ধ্যায়, মাঃ-ঠিক আছে বাবা পরদিন সন্ধ্যায় পার্টিতে সকল বন্ধু,অনুরাও আসলো,কেক আনা হলো,কাটা হলো, তখন সিস্মি ঠান্ডা শরবত দিতে যাচ্ছিল, বন্ধু ১ঃ-না ভাবি, আফনানঃ- কি ব্যাপার নিলি না যে বন্ধুঃ-তো বিবাহবার্ষিকী তে শরবত খেতে আসি নি, আফনানঃ- বুঝলাম,দেখ মাও বাড়িতে, চল ভিতরে রুমে যায় আফনান ২জন বন্ধু নিয়ে ভিতরে রুমে গেলো অনঃ-ভাবি,রাখো তো ট্রে টা,নাচো এবার, বাকি বন্ধু রাঃ-ভাবি নাচুন,কত ভালো নাচেন আপনি সিস্মিঃ- না,মা আর আফনানের পছন্দ না, তখনি শ্বাশুড়ি ডকলো,সিস্মি শোন উল্টা পাল্টা করবি না,তিনি সবাইকে বলে খাবার ব্যবস্থা করতে ভিতরে গেলেন অনুঃ-অন্যের পার্টিতে নাচো,আজ নিজের বিবাহবার্ষিকী তে নাচবে না,তা হয় না,ভাইয়া আসছে মিউজিক অফ করে দিবো তখনি বন্ধু রা মিউজিক অন করলো,তখনি সিস্মি নৃত্যপ্রেমী নাচ শুরু করলো, তখন একটা বন্ধু ভিতরে গিয়ে বললো,তোরা এখানে,আসল মজা তো ওখানে হচ্ছে,ভাবি কত সুন্দর নাচছে আফনানঃ- মাথা খারাপ,আমরা খেয়েছি, তুইও কখন খেলি,সিস্মি নাচবে না(সিওর হয়ে বললো,সিস্মি নাচবে না) বন্ধুঃ-আমরা যায়,ভাবি নাচছে, আফনান রেগে গিয়ে গ্লাসটার ড্রিংক টা একডুবে খেয়ে নিল,তারপর ওখানে গেলো, সত্যি দেখে সিস্মি নাচছে,ওর খুব রাগ হলো,ধীরে ধীরে গেলো,সিস্মির নাচের মাঝেই ওর হাত ধরে ঘুরালো,তারপর ২টা জুড়ে থাপ্পড় মারলো সবার সামনে,ওর রাগ এতো হলো যে,সিস্মির গলা টিপে ধরলো,বললো,সব মান সম্মান ডুবায় দিলি,আজ তোর নিস্তার নেই, সবাই ছাড়াতে চেষ্টা করলো,এতো জোরে ধরলো ছাড়াতে পারলো না, সিস্মির দমটা চলে যাচ্ছিল,হঠাৎ ওর নাড়াচাড়া বন্ধ হয়ে গেলো,তখন আফনান গলা থেকে হাতগুলো সরালো, কিন্তু এর ভিতরেই যা হবার হলো,সিস্মি পৃথিবী থেকে চলেই গেলো, সবাই অবাক হয়ে তাকিয়ে আছে, মাঃ-এটা কি করলি তুই- আফনান কিছু বললো না,মাটিতে বসে পড়লো,(হত্যা করেছে অবশ্যই পুলিশ হেফাজতে থাকবে আফনান) -সিস্মির নৃত্যের প্রতি এতো আগ্রহ,,শ্বাশুড়ি আর স্বামীর সাপোর্ট না পাওয়া,,ওর ভিতরে ইচ্ছের দাফন হলো,রাগের বশে নিজের স্ত্রী কে হত্যা,,সম্মান বাঁচাতে আজ হত্যাকারী,মায়েরও ছেলেকে,বউকে বোঝানো উচিত ছিল ঠান্ডা মাথায়,, আমাদের উচিত কারো ইচ্ছে কে প্রাধান্য দেওয়া এবং অতিরিক্ত আসক্ত ভালো নয় যেমনটা সিস্মি করেছে,আর অতিরিক্ত রাগ ধ্বংসের কারণ,যেমনটা আফনানের হলো""নিস্তব্ধতা বাড়িতে আজ,মা বড় একা হয়ে গেলো-বাড়িতে হাহাকার,নিঃশব্দে নৃত্যের পরিণতি হলো মৃত্যু - সমাপ্তি.......(ধন্যবাদ)


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২৫০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ জিজের পরিচিতরা যে কারণে প্রিয় (শেষ পর্ব)
→ অভিশপ্ত আয়না পর্র৬(শেষ পর্ব):-
→ শেষ বসন্ত-(প্রথম পর্ব)
→ ♥ তোমাকেই খোঁজছি (শেষ-পর্ব) ♥
→ তুমি কিসের মতো -পর্ব ২ (শেষ পর্ব)
→ সহধর্মিণী (শেষ পর্ব)
→ ~ অচেনা ভুবন(১ম পর্ব)
→ আমি তাকে হারাতে চাইনা (শেষ পর্ব)
→ নৃত্যের পরিণতি(পর্ব ২)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...