গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

Super-Villain

"যুদ্ধের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান উন্নাসিক (০ পয়েন্ট)



Part-1 নিঃস্তব্ধ দুপুর।বাসা পুরো ফাঁকা।অবশ্য পুরো ফাঁকা না,বাসায় আমি আছে।বাড়িতে থাকে আরও একজন,সে আমার বড় ভাই।এখানেই চাকরি করে,আমি এখানকার স্কুলে পড়ি।মা-বাবা অনেক আগেই পরলোক গমন করেছেন।আমার নাম হোসেন আর ভাই এর নাম হাসান।দুই জনের নামই রেখেছে আম্মা।আমার থেকে ও ১১ বছরের বড়।আমার বয়স ১৫,ওর ২৬।সে বাসায় এসেছিল,আবার চলে গেছে।আজ ওদের অফিসে নাকি কি কাজ আছে,তাই চলে গেলো।আমার ভালোই হলো, বাসায় একা থাকতে আমার খুব ভালো লাগে। ঘটল এক বিপত্তি।বড় না ছোট,পায়ে একটা পিপড়া কামড় দিল। সামান্য ব্যাথা পেলাম,কিন্তু বেশি গুরুত্ব দিলাম না।কিন্তু সমস্যা শুরু হলো একটু পর থেকে।পায়ে প্রচন্ড ব্যাথা হতে লাগলো। ব্যাথা আরও বাড়ল।প্রচন্ড মাথা ব্যাথা করতে লাগল।কিন্তু,ব্যাথা বেশিক্ষন থাকল না। রাতে ভাই আসল।আগেই খাবার রান্না করা ছিলো। ও খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ল।আমিও ঘুমিয়ে পড়লাম,বেশি ভালো লাগতেছিল না।ঘুম প্রায় এসে গেছে,এমন সময় মনে হলো কেও দাকতেছে, "হাসান....হাসা-ন..." উঠে বসলাম,পাশেই ভাইয়া ঘুমুচ্ছিলো।কিন ্তু কাউকে পেলাম না।খাট থেকে উঠে রান্নাঘরে গেলাম পানি খেতে।পানি খাওয়ার পর শরীরটা কেমন জেনো লাগা শুরু করলো।হাতের চারিগুলা বড় হতে লাগলো। নিজের শরীরের উপর কেমন জেনো সব নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেল্লাম।শরীরের আকার আকৃতি বড় হতে লাগল।মনে হচ্ছিলো আমার শরীর অন্য কেও নিয়ন্ত্রণ করছে।দরজা খুলে সাদে চলে গেলাম। নিজের চিন্তা শক্তি আস্তে আস্তে হারিয়ে ফেলছি।মুখ দিয়ে একপ্রকার পশুর মতো শব্দ বের হচ্ছে।সাদ থেকে এক লাফে নিচে নেমে গেলাম।৬ তালা বিল্ডিং, এত উপর থেকে কেও পড়লে বাঁঁচবে কিনা সন্দেহ।কিন্তু আমার কিছু হলো না।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১০৮ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...