গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

শিক্ষাণীয় গল্প

"শিক্ষণীয় গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান M A Kadir Efthe (০ পয়েন্ট)



এক পালোয়ান মল্ল যুদ্ধে খুব পারদর্শিতা অর্জন করেছিলো। মল্ল বিদ্যায় সে তিনশত ষাটটি কৌশল আয়ত্ব করেছিলো। নিত্য নতুন কায়দায় সে কুস্তি লড়তো। কাজেই সে সময়ে কোন কুস্তিগীর তার সাথে মল্ল যুদ্ধে জয় লাভ করতে পারতো না। তার বহু শিষ্য ছিলো। তার মাঝে একজন রুপে- গুনে অস্তাদের প্রিয় পাত্র ছিলো। দূরদর্শী ওস্তাদ তাকে তিনশত উনষাট টি কৌশল শেখান, একটা বিশেষ কৌশল শেখালেন না থাকে। সেই যুবক অল্পদিনে শক্তি সামর্থ্য কলা কৌশলে এমন খ্যাতি অর্জন করতে লাগলো যে, সেই সময়ের কোন পাহলোয়ান তার সাথে মোকাবেলা করার সাহস পেতনা। যুগের শ্রেষ্ট কুস্তিগীর উপাধী পাওয়ায় তার মনে অহংকার মাথা চাড়া দিয়ে উঠলো। এমন কি একদিন, বাদশাহর সামনে গল্প দিয়ে বসলো যে, আমার উস্তাদ যার কাছে আমি কুস্তি শিখেছি, শিক্ষা গুরু হিসাবে তিনি আমার চাইতে বড় ও সম্মানের পাত্র হতে পারেন বটে, কিন্তু শক্তি ও কলা কৌশলে আমি তার চাইতে কম না। বাদশার কাছে কথাটি যুক্তিহীন মনে হল। তখনি তিনি প্রতিযোগিতার আদেশ দিলেন। প্রতিযোগিতার জন্য একটি বিরাট মাঠ নির্বাচন করা হল। ওস্তাদ ও ছাত্রের প্রতিযোগিতা দেখার জন্য দেশের বিশিষ্ট ব্যাক্তি বর্গ ও সেখানে হাজির হল এবং প্রতিযোগিতা শুরু হল। উস্তাদ জানতেন, যুবক শিষ্যের শারীরিক শক্তি তার চাইতে বেশি। তাই তিনি তার শিষ্যকে নতুন কৌশলে আক্রমন শুরু করলেন। সেই নিয়ম ছাত্রকে না জানিয়ে গোপন রেখেছিলেন। কাজেই সে নিরুপায় হয়ে পড়লো। উস্তাদ থাকে দুই হাত দিয়ে মাথায় উটিয়ে মাটিতে ফেলে দিলো। উস্তাদ বিজয়ের মুকুট মাথায় পড়ে নিলেন। বাদশাহ উস্তাদ কে মুল্যবান পুরস্কার দিলেন। এর পর ছাত্রের অহংকারের জন্য তিরস্কার করে বললেন, তুমি একটা নির্বোধ ও বেয়াদব। তাই নিজের উস্তাদের সাথে সমকক্ষতার দাবি করতে লজ্জা বোধ করেনি। তাই বোকার মত লড়াই করলে এবং পরাজিত হলে। ছাত্র বিনীত ভাবে বলল হে বাদশাহ, উস্তাদ গায়ের জুরে আমার সাথে পারতেন না। কিন্তু কি করব কুস্তি বিদ্যার সকল কৌশল আমায় শেখানো হয়নি। তিনি কিছু কোশল গোপন রেখেছিলেন। আমার অজানা সেই কৌশল দিয়ে জয়লাভ করলেন। উত্তরে উস্তাদ বললেন হ্যা বাবা এই দিনের জন্য তা যত্ন করে রেখেছিলাম। নইলে আজ তুমি আমার সুনাম বরবাদ করে দিতে। নীতি কথা : বন্ধুকে ভালবেসে এতো শক্তি শালী কর না যেন সে যদি কখনো শত্রতা করে বসে তবে তুমি পরাজিত হও। (শেখ সাদি)


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৬৪১ জন


এ জাতীয় গল্প

→ অনুপ্রেরণাময় গল্প ২
→ অনুপ্রেরণামূলক গল্প ১
→ বিলাসী গল্পের রিভিউ
→ ~ভূত নামানো(গল্পটি বলেছেন ড.মুহাম্মদ জাফর ইকবাল)।
→ কাছে আসার সাহসী গল্প
→ ~শ্রেষ্ঠ গল্প-গী দ্য মোপাসাঁ।
→ গল্প থেকে শিক্ষা: শিকারি ও বুদ্ধিমান পাখি
→ আমার মা (একটি সরল গল্প)
→ একজন মুসলিম বোনের গল্প
→ গল্পে গল্পে হযরত উসমান (রাঃ)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...