গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

যাদের গল্পের ঝুরিতে লগিন করতে সমস্যা হচ্ছে তারা মেগাবাইট দিয়ে তারপর লগিন করুন.. ফ্রিবেসিক থেকে এই সমস্যা করছে.. ফ্রিবেসিক এ্যাপ দিয়ে এবং মেগাবাইট দিয়ে একবার লগিন করলে পরবর্তিতে মেগাবাইট ছাড়াও ব্যাবহার করতে পারবেন.. তাই প্রথমে মেগাবাইট দিয়ে আগে লগিন করে নিন..

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

অগুছালো কিছু কথা

"ছোট গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান M.H.H.RONI (৪১৮ পয়েন্ট)



কাউকে যদি প্রশ্ন করা হয় আচ্ছা জীবন মানে কি?? কেউ দার্শনিকের স্বুরে বলবে জীবন মানে? জীবন মানে কষ্ট জীবন মানে যন্এনা।আবার কেউ চিকিৎসা শাস্এ খুলে নিয়ে বলবে জীবনমানে সুসাস্হ্যর অধিকারি হয়ে বেচে থাকা। কেউ আবার সেকুলার টাইপে বলবে জীবন মানে খাও দাও মজা করো,ঘুরে বেড়াও। আসলেই কি জীবন মানে এসব? জীবন মানে মস্ত বড় পাওয়া, জীবন মানে সফলতার প্রথম দাপ।জীবন মানেই একটা পরীক্ষা। জীবন মানেই সত্যেকে চেনা।জীবন মানে কিছু করে দেখানো। যারা জীবন মানেই খুব সুখ আর স্বাচ্ছন্দ মনে করে তারাই কষ্টকে অনুভব করে। জীবন একটা স্বপ্ন ছাড়া আর কিছু নয়। আর এই এক জীবনে আমরা কওো কিছু যে করতে চাই তার হিসেব নেই। জীবন মানে প্রচুর টাকা উপার্জন করে সমাজের মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত হওয়া নয় জীবন মানে অসহায়দের পাশে দাড়ানো।জীবন মানেই সর্বদা সত্যের পথে অবিচল থাকা। স্পষ্টতই কেউ সত্যের পথে অবিচল থাকলে খুব কমসংখ্যক লোক তাকে পছন্দ করবে কারন সত্যেকে সবাই চিনতে পারে না। আর তাতেও যিনি এগিয়ে যান তিনিই প্রকৃত মানুষ। যদি একজন ব্যক্তিকে সবাই পছন্দ করে তার মানে বুঝা যাবে তিনি সবসময় অপরকে সন্তুুষ্ট করে। কারন সব সত্যে কখনও কারও পক্ষে যাবেনা। কবি নজরুল হয়তো এজন্যই বলেছেন:: আমার সত্যে দেখাবে আমার পথ। হুম যে অপরের কথা চিন্তা করে কিছু বলে সে কখনও সত্যে বলে না। যদি কেউ সত্যে পথে থাকে সে পথে একজন হলেও সে তার শুভাকাঙ্খি পাবে যারা সর্বদা তার পথকে সুগম করতে সাহায্যে করবে।সত্যে পথে চললে তার জীবন এমন কিছু মানুষের দেখা মিলবে যাদের পেয়ে তার জীবন ধন্য হবে এটা চিরন্তন সত্যে। আর যিনি সত্যের পথে চলবেন না তার পাশে হাজারো লোক থাকবে। কিন্তুু তার পথকে সুগম করার মতো কাউকে তিনি পাবেন না।সত্যে আর অসত্যের পথ সবসময়ই আলাদা। কেউ যদি কাউকে পছন্দ করে তার উপর কখনও রাগ করা উচিৎ নয়।কারন রাগই একটা সম্পর্ককে ভেঙে ফেলতে পারে। আমরা যেহুতু মানুষ তাই এই বিষয়টা থাকবেই।কিন্তুু রাগ করার পর নিজের প্রিয় মানুষটিকে অবশ্যই বলে দেওয়া উচিৎ কেন রাগ করলাম। কারন মানুষ মাএই ভুল। পরে হয়তো দেখা যায় যে যিনি রাগ করেছে সেই ভুল। প্রিয় মানুষটিকে বলে দিলে সে যদি আসলেই ভুল করে থাকে তাহলে অবশ্যই সরি বলবে না বললে তাকে আপনি আপনার লাইফ থেকে বাদ দিয়ে দিন। কারন এরা সবসময় দুঃখই দিয়ে যাবে।আর যদি রাগ করার কারনটা অযথা হয় তাহলে ঐ ব্যক্তি হেসেই ভুলটা ধরিয়ে দিবে। আর এ সম্পর্ক কখনও ভাঙবে না। এখানে প্রিয় মানুষ বলতে যে শুধু প্রেম-ভালোবাসার সম্পর্ক বুঝাবে এটা কিন্তুু নয়। এছাড়াও পৃথিবীতে অনেক সম্পর্ক রয়েছে। তাই বলছি রাগ করার আগে সবসময় প্রিয় মানুষটিকে বলে রাগ করবেন। আরেকটা কথা আপনারা হয়ত ভাবতে পারেন গল্পের নাম অগোছাল কথা দেওয়া হয়েছে কেন? কারন এখানে একেক সময় একেক কথা বলা হয়েছে। বি.দ্র:: এগুলো যেহুতু আমার নিজস্ব মতামত তাই কারোর সাথে নাই মিলতে পারে ক্ষমা করবেন।আর কমেন্টে মন চাইলে আপনার মতামত জানাতে পারেন।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২৪১ জন


এ জাতীয় গল্প

→ করোনা ভাইরাসের কথা
→ স্বামীর জন্য কিছু চাওয়া
→ নও মুসলিমের কথা
→ বাস্তবিক কিছু কথা।হাসতে পারেন কিনা দেখেন।
→ যে সব কথা স্ত্রীকে বলবেন না
→ কিছুকাল পরে
→ 'নরম' কথা!
→ কিছু জোকস(সাথে একটি ধাধা পারলে আরেকটি ফ্রি)
→ বাংলাদেশ ক্রিকেটের কাল্পনিক কিছু কথা।

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...