গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

যারা একটি গল্পে অযাচিত কমেন্ট করছেন তারা অবস্যাই আমাদের দৃষ্টিতে আছেন ... পয়েন্ট বাড়াতে শুধু শুধু কমেন্ট করবেন না ... অনেকে হয়ত ভুলে গিয়েছেন পয়েন্ট এর পাশাপাশি ডিমেরিট পয়েন্ট নামক একটা বিষয় ও রয়েছে ... একটি ডিমেরিট পয়েন্ট হলে তার পয়েন্টের ২৫% নষ্ট হয়ে যাবে এবং তারপর ৫০% ৭৫% কেটে নেওয়া হবে... তাই শুধু শুধু একই কমেন্ট বারবার করবেন না... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

অস্তিত্বের খোঁজে

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Nafisa Muntaha Riya (০ পয়েন্ট)



পর্ব-দুই --আমাকে আবার টেনে হিচড়ে হাইসে উঠিয়ে বাসার সামনে ফেলে চলে যায়। --আমাকে টানা হিচড়া করায় বোরকা ছিড়ে গেছে।হিজাবের ঠিক নেই।মাথা ভর্তি সিদুর। --আমি মাথা নিচু করে বাসার সামনে এসে দেখি অনেক মানুষ।সবাই আমার দিকে তাকিয়ে আছে।অনেকে বলছে এই মেয়ের ইজ্জত কি আর রাখছে সব শেষ। --আমি বাসার ভিতর ঢুকে পরলাম।ডাইনিং রোমে ঢুকতেই চাচা কে দেখতে পেলাম।উনি এসে সোজা আমায় থাপ্পর মেরে বললো,,,বাহিরে মুখ দেখানোর আর জো রাখলিনা। --জন্মের সময় মা মারা গেছে।তার এক বছর পরেই বাবা মারা যায়।এই চাচার কাছেই আমি মানুষ। --খুব কষ্টে এতো দূর পর্যন্ত আজ এসে এতো বড় একটা অঘটন ঘটে গেলো। --চাচার চিৎকারে চাচী আর নিপা রোম থেকে বের হয়ে এলো। চাচা সেফ বলে দিলো ও যেনো আর ঘরে না ঢুকে। --নিপা এসে বললো রিয়া কই ছিলি? সবাই তর নামে খারাপ কথা বলছে।ওরা তকে কোথায় নিয়ে গেছিলো?তর মাথায় সিদুর কেনো?তুই ঠিক আছিসতো? --আমি নিপা আপুকে জড়িয়ে ধরে ডুকরে কেদে উঠলাম। -- চাচী এসে সোজা জানিয়ে দিলো তুই কোথায় যাবি জানিনা।কিন্তু আমার বাসায় তর কোনো জায়গা নেই।মুখপুড়ি মুখপুড়ে এখন এখানে এসেছে।আর কোথাও যাওয়ার জায়গা পেলি না।তর জন্য এখন আমার মেয়েটাকে ভালো জায়গায় বিয়ে দিতে পারবো না।এতো মানুষ মরে তর মরণ হহয় না। গলায় দরি দিয়ে মরতে পারিস না,,, --আমার কান্না দেখে নিপা আপুও কান্না করে দিলো।আল্লাহ আমি কি করবো।।আমায় মৃত্যু দাও আল্লাহ।দেয়ালে আমার পিঠ ঢেকে গেছে।আমি কই যাবো আল্লাহ।আমার তো যাওয়ার জায়গা নাই। _ওখানেই এভাবে বসে রইলাম।পাশের বাসার জয়নাল চাচা এসে চাচা কে এসে কি যেনো বুঝালো। --আমায় শুধু বললো ছেলে গুলোকে চিনতে পারবো কিনা --আমি শুধু হুমম বললাম,,, --রাত 9 টা পর্যন্ত আমি ওখানেই বসে রইলাম। নিপা আপু এসে আমাকে রোমে নিয়ে গেলো।নিজের বাসাটাও আজ অচেনা লাগছে...রাত ১১ টার সময় আমি ধীরে ধীরে ছাদের চিলেকোটার রোমে গিয়ে ওড়নাটা টিনের চালের বাশের সাথে ভালো করে বাধলাম.......... next coming.....


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৭৫৪ জন


এ জাতীয় গল্প

→ অস্তিত্বের খোঁজে
→ অস্তিত্বের খোঁজে
→ অস্তিত্বের খোঁজে
→ এক টুকরো সুখের খোঁজে -শেষ পর্ব
→ এক টুকরো সুখের খোঁজে -১
→ গোয়েন্দার খোঁজে
→ গল্প : #বড়লোক_এর_মেয়ের_খোঁজে !!!
→ বাসুকির সঙ্গীদের খোঁজে
→ আল্লাহর অস্তিত্বের প্রমাণ

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...