গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

যারা একটি গল্পে অযাচিত কমেন্ট করছেন তারা অবস্যাই আমাদের দৃষ্টিতে আছেন ... পয়েন্ট বাড়াতে শুধু শুধু কমেন্ট করবেন না ... অনেকে হয়ত ভুলে গিয়েছেন পয়েন্ট এর পাশাপাশি ডিমেরিট পয়েন্ট নামক একটা বিষয় ও রয়েছে ... একটি ডিমেরিট পয়েন্ট হলে তার পয়েন্টের ২৫% নষ্ট হয়ে যাবে এবং তারপর ৫০% ৭৫% কেটে নেওয়া হবে... তাই শুধু শুধু একই কমেন্ট বারবার করবেন না... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

পিঁপড়ে ও হাতির প্রেম (শুভ সূচনা)

"ছোট গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Shahriar Hasan (০ পয়েন্ট)



একদা এক বনে একটি হাতি ছিল। লেজ কাটা মেয়ে হাতি। হাতির নাম ছিল হাতু। তার লেজ নেই বলে বাকি হাতিরা তার সঙ্গে খুব একটা মিশতে চাইত না। ফলে হাতু ছিল একা, নিঃসঙ্গ। তার ছিল না কোনো বন্ধু। ফলে সে সারাদিন উদাস হয়ে থাকত। একদিন বনে একটি ছেলে পিঁপড়ে এলো। পিঁপড়াটা ছিল খুব দুষ্টু প্রকৃতির। কাকতালীয় ভাবে একদিন বনের মধ্যে দিয়ে যাবার সময় পিঁপড়া হাতুকে দেখে ফেলে। প্রথম দেখাতেই সে হাতুর প্রেমে পড়ে যায়। রোজ সে হাতুকে দেখতে যেত। হাতু তো ছোট্ট পিঁপড়াকে দেখতেই পেত না। পিঁপড়ার নাম ছিল পিপু। পিপু বনের অন্য প্রাণীদের কাছ থেকে জানতে পারে তার ভালোবাসার হাতিটির নাম হলো হাতু। এদিক হাতু অনুভব করে কেউ তাকে ডাকছে। কিন্তু হাতু চারিদিকে তাকিয়েও কাউকে দেখতে পায় না। _ ‘হাতু নিচের দিকে তাকাও। এই যে আমি।’ হাতু নিচের দিকে চেয়ে দেখে, তার পা ঘেঁষে ছোট্ট টকটকে লাল একটা পিঁপড়ে দাঁড়িয়ে আছে। সে নিচু হয়ে পিঁপড়ার নিকট তার মুখ এগিয়ে আনলো। পিঁপড়ার কাছে আসতেই সে দেখল পিঁপড়া খুব লজ্জা পাচ্ছে। হাতু পিঁপড়াকে বলল, ‘কী হয়েছে? আমাকে কেন ডাকলে? কিছু বলবে কী? আমার সাথে তো কেউ স্বেচ্ছায় বলতে চায় না।’ _ ‘হাতু, আমার নাম পিপু।’ হাতু কিছু বলল না। হ্যাঁ সূচক মাথা নাড়ালো। পিপু আবারও বলে উঠে, ‘হাতু আমি না তোমায় খুব পছন্দ করি। আমি না তোমার প্রেমে পড়ে গেছি।’ হাতু এবার খুব লজ্জা পেল। এতটাই লজ্জা পেল যে নিজের ইয়া বড় বড় কান দিয়ে মুখ লুকানোর চেষ্টা করতে লাগল। পিপু তার সাথে করে আনা চিনির ছোট্ট দানাটা হাতুর দিকে এগিয়ে দিয়ে বলল, ‘ হাতু,শুধু মাত্র তোমার জন্যে আঠারো কিলোমিটার হেঁটে শহরতলিতে গিয়ে, গুদাম ঘর থেকে এই ছোট্ট চিনির দানাটা চুরি করেছি। আমার এই ছোট্ট চিনির দানাটি গ্রহণ করো।’ . . এক দানা চিনিকে সাক্ষী রেখে শুরু হয় তাদের খুনসুটি প্রেম কাহিনী। পিপু এবং হাতুর প্রেম কাহিনী দেখে জ্বলত সারা বন। তাদেরকে সকলেই হিংসে করত। পিপু আর হাতু এসবের তোয়াক্কাই করত না। . . তাদের দিনগুলি খুব ভালো কাটছিল। কিন্তু একদিন হাতুর সাথে পিপুর অনেক ঝগড়া হয়। হাতু রাগ করে সেখান থেকে চলে গিয়ে পাহাড়ের চুড়ায় উঠে। অভিমান করেছে সে। পিপু তার অভিমান না ভাঙ্গালে সে পাহাড় থেকে লাফ দিবে। কিন্তু দুর্ঘটনা বসত হাতুর ওজনের কারণে পাহাড়ের এক পাশ খসে পড়ে। পা পিছলে হাতু পাহাড় থেকে পড়ে যায়। পিপু হাতুকে পাহাড় থেকে পড়তে দেখে তৎক্ষণাৎ পাহাড় থেকে ঝাঁপ দেয় এবং হাতু বাঁচিয়ে ফেলে। পিপুর ভালোবাসা দেখে হাতু কান্না করে ফেলে। এরপর হাতু ও পিপুর প্রেম আর গভীরে চলে যায়। মাসখানেক পর হাতু মা হয়। খবরটি শেয়াল বনের বাঘের কাছে গিয়ে বলে। বাঘ শুনে তো অবাক! সে শেয়ালকে প্রশ্ন করে, ‘বাচ্চাটা কী পিঁপড়ে হয়েছে না হাতি?’ প্রশ্নটা শুনে শেয়াল হাত মাথায় হাত দিয়ে বলে, ‘মহারাজ, জটিল প্রশ্ন তো। চলুন গিয়ে দেখে আসি হাতি হয়েছে না পিঁপড়ে।’ সমাপ্ত বিঃদ্রঃ #পিঁপড়ে_ও_হাতির_প্রেম সিরিজটি চলবেই। তবে আজকের জন্যে শুভ সমাপ্তি। দেখা হবে অন্য কোনো দিন হাতু ও পিপুর নতুন কোনো গল্প নিয়ে ।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৪৯৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ "ওয়ালা নিয়ামাল জাইশ,যালিকাল যাইশ"
→ আধুনিক প্রেম
→ অামি তোমায় ভালোবাসি,তুমিও কী অামায় ভালোবাস?
→ মুসলিম হয়েও অমুসলিম
→ পাওয়া
→ ইসলামে চিকিৎসকের মর্যাদা ও কর্তব্য
→ সুলতান সুলেমান-"সিরিয়াল" ও ইতিহাস...
→ বাঘ ও দয়ালু ব্রাহ্মণ ১
→ নীলস বোর ও মজার কাহিনী
→ হাবিব ইবনে ওমর (রহঃ) -এর সংক্ষিপ্ত জীবনী

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...