গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

ফাতেমা (রাঃ) এর পতিগৃহে যাএা

"ইসলামিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Md.Mofizul Hossain (৩৯ পয়েন্ট)



আসসালামু আলাইকুম। হযরত আলী (রাঃ) এর বিবি ফাতেমা (রাঃ) বিয়ের পর আলী (রাঃ)এর সম্মুখে এক বিরাট সমস্যা দেখা ছিল।আর তা হলো গৃহ সমস্যা। পৃথক গৃহ বলতে হযরত আলী (রাঃ) এর কিছুই ছিলনা। কারণ তিনি হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর পরিবারের একান্নভুক্ত সদস্য ছিলেন।হিজরতের আগে তারাএক গৃহে ই বাস করতেন এবং মদিনার পর তারা সকালেই আনসারদের গৃহে প্রবাস জীবন যাপন করছিলেন। ফাতেমা (রাঃ) এর বিয়ের কিছুদিন আগে পর্যন্ত রাসুলুল্লাহ সাঃ আবু আইয়ুব আনসারীর গৃহে অবস্থান করছিলেন। মাএ কিছুদিন আগেই তিনি অন্য একটা গৃহে বসবাস শুরু করেছিলেন।হযরত আলী (রাঃ) তখন অন্য একজন আনসারীর গৃহে বাস করছিলে।। কাজেই বিয়ের পরও বিবি ফাতেমা (রাঃ) কে বেশ কিছুদিন পিতার গৃহেই অবস্থান করতে হয়েছিল। তারপর হযরত আলী (রাঃ) নিজের জন্য হযরত হারেছ (রাঃ) নামক জনৈক আনসারীর নিকট থেকে একটি ঘর ভাড়া করে নিয়েছিলেন এবং সে ঘরেই স্ত্রী ফাতেমা (রাঃ) কে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করলেন। আলী (রাঃ) এর ছোট ভাই আকীল (রাঃ) হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর নিকট আলী (রাঃ) এর ইচ্ছা র কথা প্রকাশ করলেন।হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম খুশি হয়েছিলেন এবং আলী (রাঃ) কে কিছু দিরহাম দিয়েছিলেন বাজার করার জন্য। বাজার করার পর আনসার ও মোহাজেরগণকে দাওয়াত করা হলো। সকলে তৃপ্তি সহকারে খেলো।এরপর হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বিবি ফাতেমা (রাঃ) কে কিছু উপদেশ দিয়েছিলেন তিনি বিবি ফাতেমা (রাঃ) কে বললেন,"মা! তোমার স্বামী দরিদ্র হলেও মনে রেখ সে আল্লাহর প্রিয়জন।আর আল্লাহ পাক দরিদ্রতাই পছন্দ করেন।আর এ কথা সত্য ও যে, তোমার স্বামী দরিদ্র হলেও সকলের কাছে প্রশংসিত।তার মত জ্ঞানী-গুণী,বিদ্বান, বুদ্ধিমান, নেকবান এবং বীর যোদ্ধা সমগ্র আরব দেশে আর কোথাও নেই।তাঁর সেবা যত্ন এর ভার তোমার ওপর বর্তিত হলো।মনে রেখ,স্বামী ই হচ্ছে স্ত্রীর শ্রেষ্ঠ সম্বল।" হযরত আলী (রাঃ)- কে মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছিলেন," হে আলী! মনে রেখো, দুনিয়ার সর্বোত্তম নারী রত্ন তুমার ভাগ্যে ঘটেছে।তাকে যথাসাধ্য আদর-যত্ন ও স্নেহ মমতা করতে ক্রুটি করনা।আমি দোয়া করি,ফাতেমা জোহরা দ্বীন ও দুনিয়ার সৌভাগ্যের প্রতিক হক।"এই বলেই রাসুলুল্লাহ (সাঃ) ফাতেমা (রাঃ) কে হযরত আলী (রাঃ) নিকট সমর্পণ করলেন এবং তাদের কপালে চুম্বন করে কন্য ফাতেমা (রাঃ) কে বিদায় দিলেন।। তারপর স্বামী স্ত্রস্ত্রী একটি উঠের পিঠে আরোহণ করে নিজের গৃহে রওনা দিলেন। বিদ্রঃ গল্প এ ভুল ক্রটি থাকলে মাফ করবেন


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৪০৬ জন


এ জাতীয় গল্প

→ হাবিব ইবনে ওমর (রহঃ) -এর সংক্ষিপ্ত জীবনী
→ হযরত ফাতেমা (রা) এর চাদরের ঘটনা
→ বিবি ফাতেমা (রাঃ) এর নছিহত (২)
→ বিবি ফাতেমা (রাঃ) এর নছিহত (১)
→ বোধ এর উন্মেষ
→ ব‌উ এর সাথে বাজার
→ অত্যাচারী বাদশাহ এর গল্প
→ গার্ল ফ্রেন্ড এর বিয়ে
→ কেমন হবে ২০২১ এর শিক্ষা ব্যবস্থা??
→ বকুলের গার্লফ্রেন্ড এর বিয়া পর্ব-১

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...