গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

গল্পেরঝুড়িতে লেখকদের জন্য ওয়েলকাম !! যারা সত্যকারের লেখক তারা আপনাদের নিজেদের নিজস্ব গল্প সাবমিট করুন... জিজেতে যারা নিজেদের লেখা গল্প সাবমিট করবেন তাদের গল্পেরঝুড়ির রাইটার পদবী দেওয়া হবে... এজন্য সম্পুর্ন নিজের লেখা অন্তত পাচটি গল্প সাবমিট করতে হবে... এবং গল্পে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট থাকতে হবে ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

সেই তুমি

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মো আবু বকর সিদ্দিক(guest) (৩৩৮০ পয়েন্ট)



---থাসসস থাসসস থাসসস।তর এত বড় সাহস হয় কিভাবে।তুই তুই আমাকে প্রপোজ করিছ।(মেঘা) ---(আমি থালে হাত দিয়ে)কিছু বলতে যাব তখনি আবারো মেঘা বলা শুরু করল। ---তর মত ফকিন্নির বাচ্চাকে ভালোবাসব ইমপসিবল।তকে ভালোবাসব এটা তো কখনো কল্পনাও করতে পারি না । সেই ১ম দিন থেকে দেখে আসসি  ২ টা শার্ট পরেই কলেজে আসসিছ। আর তুই কিনা আমাকে? ---সরি(আমি) ---তর সরির গোষ্ঠী কিলাই আমি। আর নেক্সট টাইম যদি তকে আমার সামনে দেখি তর হাত পাঁ ভেঙ্গে দেব। দুর হ সামনে থেকে।ওয়াক ওয়াক তর গায়ের গন্ধ কি বিশ্রি।যা এখান থেকে। -চারপাশে অনেক স্টুডেন্ট জরো হয়ে গেছে। তাই সেখান থেকে সোজা ক্লাসে চলে আসলাম । কিছুক্ষণ পরেই  স্যার ক্লাসে আসলো। ---প্রিয় স্টুডেন্ট কালকে তোমারা সবাই নতুন পোশাক পড়ে আসবা। ---কেন স্যার।(ছাএ) ---উপরে থেকে কিছু লোক আসবে। ---আচ্ছা স্যার। ---হুম।আর আজকে তোমাদের কোন ক্লাস হবে না।চাইলে চলে যেতে পারো। একথা বলেই স্যার চলে গেল। আমিও ক্লাস থেকে চলে আসতে যাব তখন মেঘার বান্ধবিরা বলে উঠল। ---মেঘা দেখ এই ছেলেটার তো কোন নতুন শার্ট নাই।কালকে তো এইটাই পরে আসবে। একথা বলেই মেঘা সহ তার বান্ধবিরা হাসতে লাগল। আমি মাথা নিচু করে ক্লাস থেকে চলে আসলাম। এবার আমার পরিচয় দেওয়া যাক আমি সিদ্দিক। দরিদ্র ঘরের ছেলে। এক বেলা খেতে পেলে আরেক বেলা খেতে পাইনা। আর মেঘা হলো বড় লোকের দেমাগি মেয়ে। সেই ১ম দিন থেকে মেঘাকে পছন্দ করি। কিন্তু কখনো ওকে বলা হয় না।তাই আজকে বলে দিলাম। তারপর দেখলেনই তো ঘটনা। যাইহোক এবার গল্পে ফেরা যাক। কলেজের গেট দিয়ে বেরিয়ে ফুটপাত দিয়ে হাঁটছি। কারণ আমাদের বাড়ি ফুটপাতে পিছনের গলিতে। হাঁটতে হাঁটতে একসময় বাড়িতে চলে আসছি। ---কিরে বাবা।তুই আইজকা এত তারাতারি চইলা আসলি যে।(মা) ---আজকে ক্লাস হবে না তাই চলে আসলাম(আমি) ---ওহ।তা তর গাল লাল হইয়া আছে কেন? ---এমনি।কিছু হয় নাই।খিঁদে লাগছে খাবার দাও। ---বাবা বাড়িতে তো খাওয়ন নাই। ---ওহহ। ---হ বাবা। ---মা কালকে কলেজে নতুন পোশাক পড়ে যেতে হবে উপরে থেকে স্যাঁর আসবে। ---ওহহ বাবা তর তো নতুন কোন পোশাক নাই।তাহলে তর গায়ের শার্টটা দে।দুয়া দেই। ---আচ্ছা এই নাও। কালকে সকাল সকাল কলেজে গেলাম। কলেজে যেতেই মেঘা আমাকে দেখে মেঘার বান্ধবিদের বলল ---দেখ দেখ সেই পুরান ,ছিড়া শার্টটাই পড়ে আসসে(মেঘা) ---এই ফকিন্নি তকে কোন সাহসে প্রপোজ করে( মেঘার বান্ধবি) ---জানিনা এই কলেজে এসব পাগল কেমনে জুটে। ---আরে হ্যাঁ পাগলা গারতে না যেয়ে কলেজে আসে হাহাহাহা। তারা সবাই হাঁসতে লাগল। চলবে.......   


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১০৬৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ "আনিকা তুমি এমন কেন?"[২য় তথা শেষ পর্ব]
→ "আনিকা তুমি এমন কেন?"[১ম পর্ব]
→ কফি হাউসের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই
→ বঙ্গবন্ধু তুমি অনন্যময়
→ অদ্ভুত সেই হাতিটি
→ তুমি চিরকাল
→ তুমি কিসের মতো -পর্ব ২ (শেষ পর্ব)
→ স্কুল ফাকির সেই দিনটি
→ তুমি আর আমি কে!
→ তুমি কিসের মতো?

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...