Deprecated: mysql_connect(): The mysql extension is deprecated and will be removed in the future: use mysqli or PDO instead in /var/sites/g/golperjhuri.com/public_html/gj-con.php on line 6
রংবাজ মেয়ে

গল্পেরঝুড়িতে লেখকদের জন্য ওয়েলকাম !! যারা সত্যকারের লেখক তারা আপনাদের নিজেদের নিজস্ব গল্প সাবমিট করুন... জিজেতে যারা নিজেদের লেখা গল্প সাবমিট করবেন তাদের গল্পেরঝুড়ির রাইটার পদবী দেওয়া হবে... এজন্য সম্পুর্ন নিজের লেখা অন্তত পাচটি গল্প সাবমিট করতে হবে... এবং গল্পে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট থাকতে হবে ...

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

রংবাজ মেয়ে

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মোঃ রাসেল খান(guest) (৩৫৮০ পয়েন্ট)



পার্ট____ দুই ®®®®®®®®®®®®®®®® এক পর্বের পর থেকে........... .আরে এতো সেই কলেজের রংবাজ মেযেটা। কিন্তু এখানে এল কিভাবে? আমি নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিনা। শুধু অবাক হযে তাকিযে আছি মেযেটার দিকে। এদিকে মেযেটাও আমাকে দেখে এক প্রকার সকট খেযেছে। মনে হযে ওনি ও ভাবতেছেন আমি এখানে কি করে? সে জন্য ওনিও আমার দিকে অবাক চোখে তাকিযে আছে। আমার এরকম তাকিযে থাকার ঘোর কাটিযে আঙ্কেল বললেন্...... >> রাসেল বাবা এখানে বস, আর হ্যা তোমাদের পরিচয করিযে দেই এই হলো ( মেযেটাকে উদ্দেশ্য করে) আমার একমাত্র মেযে তামান্না। আর তামান্না এ হলো রাসেল তোমার মিথিলা আন্টির ছেলে। আজ থেকে ও আমাদের সাথেই থাকবে। , বলতে বলতেই হঠাৎ করে ঘরের ল্যান্ডলাইনে একটা ফোন এল। তাই আঙ্কেল আমাদের উদ্দেশ্য বলল.... >> তোমরা পরিচিত হও আমি দেখি কে ফোন করল। বলে উনি ঘরে চলে গেলেন। আর আমি এখন অবাক দৃষ্টিতে তাকিযে আছি। ভাবতেছি মেযেটা আসলেই পরী, আচ্ছা এটা কি সত্যিই সেই মেযেটা? নাকি এরা জমজ। আমার দৃষ্টি আটকিযে মেযেটা তুরি বাজিযে বলল...... >> এই এভাবে কি দেখতেছি। , নাহ্ এবার আর কোনো সন্দেহ রইলা এর কথার স্টাইল দেখে বুঝতে পারলাম এটা আসলেই কলেজের মেযেটা। কিন্তু বুঝতে পারলামনা এ বাড়িতে এবাবে বোরকা আর হিজাব পড়েছে কেনো। তাই সন্দেহ কাটাতে বললাম....... >> আচ্ছা আপনি ঐ মেযেটা না? >> কোন মেযেটা ( না বোঝার ভান করে) >> আরে আজ কলেজে আমাকে থ্রেট দিলেন আর এখনেই ভুলে গেলেন। >> ক ক ই নাতো। (এবার ওনি একটু থোতলালেন ) আমি এবার স্পষ্ট বুঝতে পারতেছি ও আমার কাছে কিছু লুকাচ্চে। তাই এবার একটু সাহস নিযে বললাম...... >> দেখুন ম্যাডাম আমাকে একদম মিথ্যা বলবেন না। আমি কিন্তু আপনার একটা ফটো তুলেছি.....(এমনিতেই বললাম) >> দেখুন আমি সত্যিই জানি না আপনি কার কথা বলতেছেন। >> ওকে আঙ্কেল কে পিক টা দেখাচ্চি ... যে আপনার মতো দেখতে একটা মেযে বাইকে শুযে সিগারেট খাচ্ছে.... (সত্যি বলতে তো আমার কাছে কোনো ফটোই নেই এমনিতেই একটু চাপা মারলাম) এবার মেযে টা একটু ভয পেযে আমার কাছে এসে বসলেন আর আলত করে আমার হাতটা ধরে একটু মুচকি হাসির সঙ্গে বললেন........ >> এই পিচ্ছি তুমিতো অনেক কিউট। আমি তোমার বড় আপু না। তুমি এরকম একদম করবে না। লক্ষি ভাই আমার প্লীজ আব্বুকে কিছু বলিস না।( এমন ভাবে বলতেছে যেনো আমি ওনার কত আদরের ছোট ভাই) >> জ্বীনা ম্যাডাম এরকম পামে আমি আর ফুলতেছি না। কলেজে যে অবস্থা করছিলেন আমার তার কি হবে শুনি। >> তার জন্য সরি। >> হুম শুধু সরি বললে হবে নাকি। >> তাহলে কি করতে হবে....? >> আমার কথা শুনতে হবে , আমার কাপর কাচতে হবে, গাযে ব্যাথা করলে টিপে দিতে হবে...... >> হোযাট....? ঐ সালা আমি তোর দাসি নাকি? >> আরে ম্যাডাম আস্তে আস্তে আঙ্কেল শুনেফেলবে তো। রাজি না হলে আঙ্কেলকে সব বলে দিবো। >> দেখ এটা কিন্তু ব্লাকমেইল করা হচ্ছে । >> হলে হচ্ছে,,, আজ থেকে আঙ্কেলের খাবো আর এতটুকু সত্য আঙ্কেল কে না জানালে যে ধর্ম ও আমার বিমুখ হবে গো। >> দেখ এটা কিন্তু একদম ঠিক হচ্ছে না। বলতে বলতেই আঙ্কেল চলে এলো আর তামান্নাকে আমার কাছে বসে থকতে দেখে আঙ্কেল বলে উঠলো....... >> আরে বাহ্ তোমাদের পরিচয পর্ব তাহলে শেষ। >> আসলে আঙ্কেল আপুর সাতে তো কলেজেই পরিচিত হযেছি। কি তাইনা আপু? . তামান্নার দিকে তাকিযে দেখি ওনার মুখ শুকিযে গেছে। . আঙ্কেল >> ওহ তাইনাকি..... তা কিভাবে তোমাদের পরিচয হলো,?? আমি >> কিহলো আপু বলো কিভাবে আমাদের পরিচয হযেছে...? নাকি আমি বলল। তামান্না >> না না আমি বলতেছি...... তোমার বলার দর কার নেই..... আগে খেযে নাও খাওযার সময কথা বলতে নেই। বলেই অতি আদর করে আমাদের মাঝে খাবার পরিবেশন করতে লাগনে। আমি মনে মনে ভাবতেছি বাঘ এবার বসে এসেছে। খেতে খেতে আঙ্কেল বললেন ..... >> তামান্না জানো মা,,,, তোমাদের কলেজের একটা মেযে নাকি রাসেল বাবাজিকে আজ আচ্ছা মতো টাইট দিছে। আমি >> আরে আঙ্কেল টাইট দিছেতো কি হযেছে ঐ মেযের তো প্রেমে পরেগেছি আমি। আঙ্কেল >> কি......? শেষমেশ একটা রংবাজ মেরের প্রেমে পড়ে গেলি ....(বলেই হসতে শুরু করল) আমি >> আরে আঙ্কেল রংবাজ তো কি হযেছে আমি কম কিসে দেখবেন ঠিকেই ঐ মেযে K আমি আমার বসে আনমু। তখন যেটা করতে বলবো সেটাই করবে ..... বলে আমিও হাসতে লাগলাম। এদিকে দেখি তামান্না দেখতেছে শুনতে আর লুচির মতো ফুলতেছে। কিন্তু কিছুই বলতে পারতেছে না। রাগ করলএ যে মেযেদের এতো সুন্দর লাগে তামান্নঅকে এই অবস্থায না দেখলে সেটা বুঝতে পারতাম না। রাগে একেবারে লাল টকটকে করেছে মুখটা। , আমি >> আপু এভাবে কি দেখছেন খাওযাদাওযা তো শেষ তোযালাটা আনুন এবার। সে কিছু না বলে আমাকে তোযালাটা এনে দিযে ফিসফিস করে বলতেছে..... --ভালো হচ্ছে না কিন্তু?? -- তাহলে আঙ্কেল কে বলবো ....... আঙ্কেল >> কি বলবা বাবা? (তামান্না আমার মুখ চেপে ধরে) >> কিছু না বাবা এইযে তুমি একটু তরকারি নাও আর............#চলবে , , পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। গল্প টা কেমন লাগতেছে অবশ্যই তা জানাবেন।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৬৬০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ লোভি মেয়ে
→ সেই মেয়েটি
→ পাহাড়ি মেয়ের প্রেম
→ রংবাজ মেয়ে
→ সেই মেয়েটি
→ ★অহংকারী মেয়ে ★
→ মেয়েটা তো হারিয়ে গেছে
→ বসের অহংকারী মেয়ে পার্ট ৯
→ বসের অহংকারী মেয়ে পার্টঃ১০

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...