গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

গল্পেরঝুড়িতে লেখকদের জন্য ওয়েলকাম !! যারা সত্যকারের লেখক তারা আপনাদের নিজেদের নিজস্ব গল্প সাবমিট করুন... জিজেতে যারা নিজেদের লেখা গল্প সাবমিট করবেন তাদের গল্পেরঝুড়ির রাইটার পদবী দেওয়া হবে... এজন্য সম্পুর্ন নিজের লেখা অন্তত পাচটি গল্প সাবমিট করতে হবে... এবং গল্পে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট থাকতে হবে ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

লাশ চুর

"সত্য ঘটনা" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মোঃ আনিসুর (২ পয়েন্ট)



আমাদের গ্রামের নাম গেড়ামারা,, গ্রামের পূব দিকে,, গ্রাম টা ঐ খানেয় শেষ। ঐ গ্রামের গৌরস্থান অবস্থিত গ্রামের শেষ পান্তে, যেখানে বাড়ি ঘর খুব কম সাথে ২ টা বাড়ি একটা বড় ব্রিজ,,ব্রিজের নিচে বড় কুর (পুকুর), গৌরস্থানের কিছু দূরে একটা খাল বয়ে গেছে,, এই গৌরস্থানে মাঝে অনেকে ঘুরতে যায়ত । হঠাৎ দেখা যায় কবর খুরে লাশ নিয়ে গেছে,, ধারনা করা হত শিয়াল এ রকম করে, তার পর গৌরস্থানে লাইটিং ব্যস্থা করা হলো আগে ও ছিলো তার পর একটু ভালো করে,, এক জন কমী নিয়োগ দিলো কাদেম ধার ত আছেয়,, তার সাথে আর একজন,, লাশ কি ভাবে, কবর থেকে গাইব হয়ে যায় তা ধরার জন্য। প্রায় অনেক কবর দেখে লাশ গাইব,, সাথে কিছু চিন্হ পা গেলো মানুষের পায়ের ছাপ,, জুতা,, পলিথিন,, আর একটা মাঠি খুরার যন্ত্র, এগুলো দেখে নিশ্চিত কেউ লাশ চুরি করে নিয়ে যায়,,সে সময় টা তে রমজান মাস,,, রাত ২ টা বাজে,, হঠাৎ মাইকে শব্দ করে বলতে লাগ লাশ চুর দর পরছে সবাই ওঠেন,, মাইকের আওয়াজ চার দিকে ছড়িয়ে পড়লো গ্রামের মানুষ জন যে যে দিক ছিলো চার দিক দিয়ে লাইট আর লাঠি নিয়ে গৌরস্থান এর দিকে ছুটলো,, মাইকিং করার আগেই,, ধর ধর শব্দে চুর ধরে ফেলছিলো কারন আগে থেকেই সব ঠিক করা ছিলো,, পাহারায় ছিলো লাশ চুর ধরবে,, তাই সবাই উত পেতে ছিলো,,,ধান খেত থাকায় চুর ধরতে খুব কষ্ট হয়ছে,, গোরস্তানের আশে পাশের খেত অনেক নষ্ট হয়েছিলো,, ২ টা চুর ছিলো এক জন খাল বয়ে চলে গিয়েছিলো,, কার মাথায় খালের কথা আসছিলো না,চুর গুলো ঐ খাল বয়ে আসত,,, ত চুর ধর পড়লো,, আশে পাশের গ্রামের লোক জন ও আসছিলো,, গ্রামে মানুষের ভিরে হাটা যাচ্ছিলো না,, রাত হলেও সেফেরী সময় সবাই সজাগ,, সাথে সাথে জনগন মার ধর করে,, চুর টার নাম ছিলো,,, ছেন্টু,,, নিশা করে তারপর লাশ চুরি করত,, এলাকার মাতব্বর রা অনেক কিছু পশ্ন করলো কোন কথা বলে নায়,, এমন অবস্থা হয়ে ছিলো,, তার গায়ে কোন কাপর ছিলো না,, জনগনের দুলাই এত ভয়ংকর নিজের চোখে দেখেছিলাম ঐ দিন,,, ২ টা লাশ তুলে ছিলো ঐ দিন একটা পলিথিনে লাশ গুলো ছিলো,,লাশ এক দম পচে গলে ছিলো,, সাথে সাথে পুলিশ চলে আসছিলো,, শেরপুর সদর থানা থেকে অতিরিক্ত রিজাব পুলিশ মুতায়ন করা হয়েছিলো,, কিন্তু,, হাজার হাজার জনগন যেখানে সেখানে পুলিশ কিছুই না,,, সমস্ত গ্রাম জনগনে ভরপুর ছিলো,, পুলিশ আসার আগে #ছেন্টুর হাত কাটা হয়েছিলো,,, কারন #(নাম,, বললাম না) , এর বাবার লাশ ও নিয়ে গিয়েছিলো, সেই রাগে ক্রোধে,, তার হাত কেটে ছিলো সবার।সামনে কেউ বাধা নেয় নি বরং চ সবাই সাহায্য করে ছিলো,,, একটা হাত কাটার পর ও চোখে কোন জল আসে নায়,এত মার মার ছিলো অজ্ঞান হয়ে,, গিয়ে ছিলো,, জ্ঞান ফেরার পর আবার।মার ধর করা হয়ে ছিলো,, একটুও জল আসে নি চোখে,, একটু শব্দ করেনি,, তার শরীরে মার কিছুই মনে হচ্ছিলো না,, এ রকম মার ধর দেখে কেউ সহ্য করতপ না পেরে ঐ জায়গা থেকে চলে আসে,,, পুলিশের বড় কর্ম কতা রা আসে এবং সঠিক বিচার করবে,, তার আশায় লাশ গাড়িতে তুলা হয়,, কিন্তু জনগন পুলিশের গাড়ি ওল্টে দিব এমন অবস্থা হয়ে যায় এক দিকে।পুলিশ আর জনগন ধাক্কা ধাক্কি শুরু করলে ঐ চুর কে গাড়ি থেকে নামিয়ে আনা হয়,, চ বুকে একটা বড় পাথর সবার সাহায্য উপরে তুলে চুরের বুকে ছেড়ে দেওয়া হয় পুলিশ কিন্তু এটা দেখে নি পুলিশ পাবলিকের সাথে ধাক্কা ধাক্কি হচ্ছে,, বুঝতেই পারছেন কতটা ভাংকর পরিস্তি খারাপ ছিলো,, তার পর, চুর অজ্ঞান,, তার পর মারা যাবে এমন অবস্থায় পরিস্তি কিছু টা নিয়ন্তনে আসলে পুলিশ শেরপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়,,, সেখানেই চুর।মারা যায়,,,,, এর পর ২০১৯ এর শেষ দিকে আবার ঐ গোরস্তান থেকে আর ২ টা লাশ চুরি হয়,,,,,,, পাশের গ্রাম ধনাকুশা ২০১৯ শে ৬ টা লাশ চুরি হয়,,,,,, মানুষ পড়ার পর শান্তি পায় না,,,, মানুষ কেন এমন টা করে,,,যারা #ছেন্টুর অবস্থা দেখেছে তারা হয়ত সারা জীবনে এমন অপরাধ করার চিন্তা মাথায় আনবে না,,,,, তার পর থামে নি লাশ চুরি,,, এরা কি মানুষ নাকি শিয়াল কুত্তার মত জানোয়ার,, ???????????????? নিজের বাবা মায়ের কবরে পাশে গিয়ে যদি দেখতে হয় কবর টা আর নেয়,, ফাকা,, কতটা কষ্ট হয়,,,, আমার জেডা হয়,,তাকেও চুরে নিয়ে গেছে,,, কি করে এই লাশ দিয়ে, ,মৃত ব্যক্ততিও কি কোন উপকার করতে পারে মানুষের,, আমার ত জানা নেয়,,আপনারা জানেন কি ?


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩৩৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ইউসুফ আ. এর উপর চুরির অপবাদ
→ লাশঘর
→ চুর
→ আম চুরি
→ মরা লাশ
→ লাশ♦রহস্য
→ মাথাহীন লাশ!
→ পুরোনো লাশকাটা ঘর
→ চুরি..

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...