গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

ভূতের পাথর

"সত্য ঘটনা" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মোঃ আনিসুর (২ পয়েন্ট)



আমি ক্লাস ১০ পড়ি, ,তখন ২০১৩ সালের গঠনা,, আমার দাদু খুব অসুস্থ ময়মনসিংহ মেডিকলে ভর্তি ছিলো,, তার পর একটু সুস্থ হয়, ,পরে নালিতাবাড়ি সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসি,,। -। ,,কিন্ত দাদুর কি হয়ছে কি রোগ কোন ডাক্তার বলতে পারলো না,, শুধু হাপানি রোগ ছিলো,, বলছিলো,,ডাক্তার আর কোন কথা বলে নি, ,তার পর কবিরাজের কাছে যাওয়া হল,,নকলা ,,থানা চিতলিয়া,, মাঠের পাশেই কবিরাজ বাড়ি,, কবিরাজ সন্ধায় আসলো ,,আমাদের ঘরে বসলো লাল চাদর বিছানো তার মাঝে জবা ফুলের ছাপ ,,ত কবিরাজ চকি তে বসা আমি বাবা,,,কাকা রা সবাই মাটিতে পাটিতে বসা,, কবি রাজ তার নিজের শরীরে জ্বিন আমিজ করালো,, ,তখন মনে হচ্ছিলো বাহিরে ঝড় তুপান হচ্ছে তার পর কবিরাজ কথা বলতে লাগলো,,মানে জ্বিন তখন কবিরাজের শরীরে, ,,জিন বললো কেন ডাকা হয়ছে তাকে ,,জিন নাকি উ্ত্তর দিয়ে যাচ্ছিলো তার ডাকে আসছে, ,চলে যাবে যা বলবে খুব তারাতাড়ি বলতে হবে ,,ত দাদার কথা বলা হলো জিন বললো বয়স হয়ছে, ,ছোট বেলা থেকেই দাদু খুব কাজ করত, ,ত কি রোগ তা বললো না,,ঘরের লাইট বন্ধ ছিলো,, জিন একটা তাবিজ দিবে, তাই বললো হাতের মুষ্টি বন্ কর,, বড় ছেলে আমার বাবা ,,সাথে হাতে তাবিজ চলে আসলো, ,এর পরেই, ,শুরু হলো ঘরের চালে কি যানি পড়ছে বৃষ্টির মত ,,পরে সবাই বলো এমন কেন হচ্ছে,, ,জিন বললো আমার সহ পাঠিরা এমন করছে ,ধনাকুশা ,,গ্রামের পূবে আনছার মাষ্টার এর বাড়ির কাছে যে নতুন ব্রিজ হচ্ছে ঐ খানের পাথর তারা ছিটাচ্ছে ঘরের চালে ,,,,খুব তীব্র ভাতে পাথর ফেলছিলো সবাই ভয় পাচ্ছে ,,,তার দাদা কে জাড় ফুক দিলো,, আর বলছিলো ৪০ দিনের মাঝে সুস্থ না হলে, ,,খুব বিপদ,,দাদা ঠিক ৪০ দিনপর মারা যায় ,, জিন যখন চলে যাব কিছু না কিছু প্রমান রেখে যায়,,আমার বিছানার চাদর আমাদের ধান রাখার যে।মাচা সেখানে ফেলে গিয়েছিলো


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫২২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ভূতের বাড়ি
→ বোকা ভূতের গল্প
→ অভিশপ্ত ভূতের পুকুর
→ ভূতের মিষ্টি
→ গোছো ভূতের ক্রিকেট খেলা
→ ভূতের সাথে খণ্ডযুদ্ধ!!!
→ পাথর ও জীবন
→ সত্যিকারের ভূতের গল্প (ভয়ংকর পেত্নী)
→ গল্পটা রমজান আলী ভূতের

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...