গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

যারা একটি গল্পে অযাচিত কমেন্ট করছেন তারা অবস্যাই আমাদের দৃষ্টিতে আছেন ... পয়েন্ট বাড়াতে শুধু শুধু কমেন্ট করবেন না ... অনেকে হয়ত ভুলে গিয়েছেন পয়েন্ট এর পাশাপাশি ডিমেরিট পয়েন্ট নামক একটা বিষয় ও রয়েছে ... একটি ডিমেরিট পয়েন্ট হলে তার পয়েন্টের ২৫% নষ্ট হয়ে যাবে এবং তারপর ৫০% ৭৫% কেটে নেওয়া হবে... তাই শুধু শুধু একই কমেন্ট বারবার করবেন না... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

বাচ্চা থেকে দুরে

"মজার অভিজ্ঞতা" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান al-mahamud russell (guest) (৪১৯২০ পয়েন্ট)



বহুকাল আগের একটি ঘটনা। আমরা সবাই জানি যে শয়তানের কাজ কি, সর্বরকমের খারাপন কাজ করা। এক শয়তান প্রতিদিনের মতই খারাপ কাজ করার জন্য ঘুড়ে বেড়াচ্ছে কিন্তু কোন জায়গায় খারাপ কাজ করার কোন লোক পেল না। যেদিকেই যায় অন্য কোন শয়তান সেখানে নিযুক্ত আছে যার ফলে সে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত ঘুড়ে বেড়াচ্ছে। কাজ না পাওয়ায় তার মনটা ভীষণ খারাপ। কান্ত হওয়ায় বসে কোন এক জায়গায় বিশ্রাম নিতে লাগল। সে লক্ষ্য করল যে, একটু দুরে কিছু বাচ্চা খেলা করচ্ছে। এই দেখে দুষ্টু শয়তানের মাথায় দুষ্টু ফন্দী আটল। যেভাবেই হোক তাদের নিজেদের মধ্যে ঝগড়া সৃষ্টি করতে হবে। যে ভাবা সেই কাজ। কিন্তু কিভাবে ঝগড়া লাগানো যায়, তাই নিয়ে খুব চিন্তায় পড়ে গেল। অবশেষে তার মাথায় একটি দুষ্টু বুদ্ধি উদয় হল। সে একটি সুন্দর ঘোড়া সেজে তাদের সামনে উপস্থিত হবে। ঘোড়ার উপর উঠার জন্য তাদের নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করবে। এই ভেবে সে ঘোড়া রুপ ধারণ করে তাদের সামনে উপস্থিত হল। এত সুন্দর ঘোড়া দেখে বাচ্চারা খুব হই-উল্লাশ করতে লাগল। শয়তান তু ভীষণ খুশি। বাচ্চাগুলো দৌড়ে কে কার আগে ঘোড়া পিঠে উঠে সোয়ার করবে এই চিন্তা। কিছু বাচ্চা ঘোড়ার উপর উঠল, কেউ ঘোড়ার গলায়, কেউ পায়ে মানে হল যে ঘোড়ার যে জায়গা ফাঁকা ছিল সেই জায়গায় উঠে ধরে বসে রইল। বাকি বচ্চারা উঠার জন্য কোন জায়গা খুজে পেল না। অবশেষে তারা একটি সিন্ধান্ত স্থির হল। তারা একটি শক্ত লাঠি খুজ করল তারপর লাঠির এক প্রাস্তে ধারালো করলো। বাচ্চারা এসে সেই লাঠিটা ঘোড়ার পিছন দিক দিয়ে ঢুকিয়ে দিল, রুপধারণকারী শয়তান ঘোড়াটি অসহ্য যন্ত্রনা নিয়ে দৌড়াতে লাগল। বাচ্চাগুলো ছিটকে পড়ে গেল। শয়তানটি যেতে যেতে বলতে লাগল, এ জগতে যদি কোন বড় শয়তান থেকে থাকে তা হল এই বাচ্চাগুলো। তারা নাকি আমার পিছন দিক দিয়ে লাঠি ঢুকায়। আর ভাবতে লাগল, এই জন্য কোন শয়তান তাদের ধারেও টেকে না..........। আর আমিও যতদিন বেচে থাকবো ওদের সামনে দিয়েও যাবনা। সমাপ্ত।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১৪১৫ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ~বাড়ি থেকে পালিয়ে-শিবরাম চক্রবর্তী(বুক রিভিউ)
→ গল্প থেকে শিক্ষা: শিকারি ও বুদ্ধিমান পাখি
→ সীরাহ কেন পড়া উচিৎ? মুহাম্মাদ (সাঃ), সবদিক থেকে সর্বশ্রেষ্ঠ – চতুর্থ পর্ব
→ জাহান্নাম থেকে মুক্তির সহজ উপায়
→ তোর থেকে তোর বাবা ভালো
→ আমি মেরাজ থেকে এসেছি
→ শূন্য থেকে শুরু
→ ~ আমার আম্মুর কাছ থেকে!
→ বউয়ের ফেইসবুক আইডি থেকে।
→ শূন্য থেকে শুরু।

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...