গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

খেলা থেকে যুদ্ধঃ(০১)

"সত্য ঘটনা" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Md.Hasan Imam(Footballer) (০ পয়েন্ট)



আমার নাম ইভান। তখন আমি ক্লাস ৭এ পড়তাম।পড়ালেখার খুব চাপ কারণ সামনের বছর জেএসসি।একদিন সকালে গণিত টিচারের(মাহাবুব) কাছে প্রাইভেট পড়ার জন্য রেডি হচ্ছিলাম।যখন আমি রাস্তায় বের হই তখন দেখি অনেক মোটরসাইকেল আর রিকশা দিয়ে লোকজন কোথায় যেন যাচ্ছে। আমি কিছু বুঝতে না পেরে একজন পথচারীকে জিজ্ঞেস করলামঃ- ইভানঃকাকা,সব মানুষ মোটরসাইকেল আর রিকশায় করে কোথায় যাচ্ছে ? পথচারীঃতুমি কী কিছু জানো না? ইভানঃনা!কেন,কী হয়েছে? পথচারীঃহালাদার বাড়ির ফখরুদ্দিন ভাইকে কারা যেন কুপিয়ে হত্যা করেছে! ইভানঃকী!!! পথচারীঃহ্যা।আমিও তো সেখানে যাচ্ছি। এই কথা শোনার পড় আমার শরীরে খারাপ বোধ করলাম।সাথে সাথে ঘরে গিয়ে বাবা-মাকে বিষয়টা জানালাম।তারাও খুব চমকে উঠলেন।আমার বাবা ছিলেন খুব অসুস্থ।তাই,বাবাকে বললাম,"তুমি ঘরে থাকোΠআমি গিয়ে দেখে আসছি।তারপর জলদি করে একটা রিকশায় উঠলাম এবং রওনা দিলাম।তখন ছিল শীতের শুরু। তাই শীতল হাওয়া আমার শরীরে ভেসে আসছিল।আর আমার মনের মধ্যে একটা ভীতিকর অবস্থা কাজ করছিল। অনেকটা আনমোনা হয়ে রিকশায় বসে আছি।পৌঁছে দেখলাম, পুরো হালাদার বাড়িটা নিস্তব্ধ হয়ে আছে।অথচ, কত মানুষ। আমি গিয়ে ফখরুদ্দিন কাকার ঘরে ডুকলাম।সেখানে তার সকল কাছের এবং দূরদুরানতের আততীয়। তার আগে ফখরুদ্দিন কাকার পরিচয়টা দিয়ঃ- ফখরুদ্দিন কাকা ১৯৭১ সালের সময় একজন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন।তার সাহসিকতা ছিল অনেক। অন্যায় কাজ তিনি কখনোই সহ্য করতেন না।তিনি চরহোগলার সাবেক মেম্বার ছিলেন। তার এক ছেলে আর এক মেয়ে।ছেলেটা সেবার Inter 2nd year-এ পড়ত ।মেয়েটার সঙ্গে তেমন একটা পরিচয় ছিল না। আসলে হয়েছিল, একদিন হালাদার বাড়ির স্কুল মাঠে হালাদার বাড়ির ছেলেরা ফুটবল খেলছিল।তখন ফখরুদ্দিন কাকা তাদের খেলা দেখছিল।হঠাৎ করে ,বাঘা বাড়ির ছেলেরা মাঠে আসে ফুটবল খেলার জন্য.........


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫৭৪ জন


এ জাতীয় গল্প

→ ~বাড়ি থেকে পালিয়ে-শিবরাম চক্রবর্তী(বুক রিভিউ)
→ গল্প থেকে শিক্ষা: শিকারি ও বুদ্ধিমান পাখি
→ সীরাহ কেন পড়া উচিৎ? মুহাম্মাদ (সাঃ), সবদিক থেকে সর্বশ্রেষ্ঠ – চতুর্থ পর্ব
→ জাহান্নাম থেকে মুক্তির সহজ উপায়
→ তোর থেকে তোর বাবা ভালো
→ আমি মেরাজ থেকে এসেছি
→ শূন্য থেকে শুরু
→ ~ আমার আম্মুর কাছ থেকে!
→ বউয়ের ফেইসবুক আইডি থেকে।
→ শূন্য থেকে শুরু।

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...