গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

টপপপপ রোম্যান্টিক

"রোমাঞ্চকর গল্প " বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান LE K H ON (৪৭ পয়েন্ট)



কোনো মেয়েকে প্রপোজ করার পরপরই যদি মেয়েটি প্রেমে রাজি হয়ে যায় তাহলে প্রেমের ফিলিংসটাই চলে যায় - কোনো মেয়েকে প্রপোজ করবো সে প্রথমে সালা আবাল, ক্ষেত বলে গালি গালাজ করবে - জোড়ে জোড়ে চিল্লাইয়া লোক জড়ো করে অপমান করবে - খুব ভালো হবে যদি আমার গালে কষিয়ে একটা থাপ্পর মারে, দুইটা মারলে আরও ভালো ফুল প্যাকেজ - আমি পিছু ছাড়বো না জোঁকের মতো লেগে থাকবো - স্কুলে যাওয়ার সময় পথে দাড়িয়ে থাকবো। কোচিংয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় ফুল দিয়ে প্রপোজ করবো বান্ধবীদের সাথে ফুচকা খেতে গেলে আমি হুট করে বিলটা দিয়ে চলে আসবো - ওর জানালার পাশে রোজ সকালে একটা হাফপ্যন্ট পড়ে দাড়িয়ে দাঁত ব্রাশ করবো। পড়নে একটা সেন্টু গেঞ্জিও থাকতে পারে। - সকালে প্রথমেই আমাকে দেখে উড়াধুরা জাড়ি দিতে থাকবে......... জুতা দিয়া ঢিল মারবে - একদিন তাকে রাস্তায় একা পেয়ে তার চুল ধরে টান দিয়ে দৌড় দিতাম আর সে পিছন থেকে বলবে " তরে সামনে পাইলে জুতা দিয়া বাইরাইতাম রে সালারপুত - তারপর দিন আমি তাকে এক জোড়া গিফট করবো। আমার জুতা দিয়াই আমাকে মারবে - একদিন সে যার কাছ থেকে ফ্লেক্সি দেয় তাকে তোষামদ করে তার নাম্বারটা নিবো। - রাতের ১২ টার সময় ৪৯ টা মিসকল দিবো - তারপর ছোট একটা টেক্সট পাঠাবো বাবু খাইছো - দু একদিন পর হুট করে তার বাসায় চলে যাবো - কোনো ফর্মালিটি না মেনে সরাসরি তার বেড রুমে চলে যাবো তার টেবিলের সমস্ত বই উলট পালট করে রেখে আসবো তারপর সে তার বাবার কাছে বিচার দিবে - তারপর তার বাবা একদিন সুযোগমতো পেয়ে আমাকে অনেক মারবেন শক্ত বাঁশ দিয়ে বাইরাইতে বাইরাইতে আমার হাড্ডি ভেঙ্গে ফেলবেন আর সাথে সাথে বলবেন " আরো প্রেম করবি - বামন হয়ে চাঁদের দিকে হাত বারাস বজ্জাত - মার খেয়ে আমি অজ্ঞান হয়ে যাবো -আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে - একমাস পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে সোজা তার স্কুলে/কলেজে চলে যাবো মাইক নিয়ে - জোড়ে জোড়ে চিল্লাইয়া বলতে থাকবো "ভালোবাসি খুব তোমাকে নিশি" - তারপর কলেজ/ স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের হাতে দ্বিতীয় দফায় মার খাবো - দশ দিন হাসপাতালে ভর্তি থাকবো - হাসপাতাল থেকে বেড়িয়েই চলে যাবো কোনো সাধু বাবার কাছে প্রেমে ফেলার তাবিজের জন্য - সাধু বাবা শর্ত দিবেন কোনো আমাবষ্যার রাতে কোনো খরস্রোতা নদীর মাঝখান থেকে তাবিজটা ভিজিয়ে নিয়ে আসতে তারপর মাঝ রাতে কোনো কবরের পাশে তাবিজটা মাটির নীচে পুতেঁ আসতে - আমি কথামতো সব করবো - কিন্তু তাবিজটা কোনো কাজ হবে না - আমি হতাশ হবো - তারপর একদিন তার সামনে গিয়ে বলবো " দেখো এতদিন যা করেছি তার জন্য আমি দুঃখিত আমি আর তোমাকে বিরক্ত করবো না বলে চলে আসবো - তারপর সে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরবে আর ভিড় ভিড় করে বলবে " ভালোবাসি রে পাগলা তোকে।collected


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১৭৬০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ কালো মেয়ের রোম্যান্টিক ভালোবাসা
→ রোম্যান্টিক ভালোবাসা--০২
→ বোবা বউয়ের রোম্যান্টিক ভালোবাসা----১ম পর্ব
→ রোম্যান্টিক ভালোবাসা--(অন্তিমপর্ব)
→ রোম্যান্টিক ভালোবাসা---০৩
→ রোম্যান্টিক ভালোবাসা--০৪
→ রোম্যান্টিক মেয়ে---০১
→ বোবা বউয়ের রোম্যান্টিক ভালোবাসা--০২
→ রোম্যান্টিক মেয়ে ----(শেষ-পর্ব)

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...