যারা একটি গল্পে অযাচিত কমেন্ট করছেন তারা অবস্যাই আমাদের দৃষ্টিতে আছেন ... পয়েন্ট বাড়াতে শুধু শুধু কমেন্ট করবেন না ... অনেকে হয়ত ভুলে গিয়েছেন পয়েন্ট এর পাশাপাশি ডিমেরিট পয়েন্ট নামক একটা বিষয় ও রয়েছে ... একটি ডিমেরিট পয়েন্ট হলে তার পয়েন্টের ২৫% নষ্ট হয়ে যাবে এবং তারপর ৫০% ৭৫% কেটে নেওয়া হবে... তাই শুধু শুধু একই কমেন্ট বারবার করবেন না... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

হৃদয়ের মাঝখানে-২

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Imran khan (৩২৪৪ পয়েন্ট)



♥হৃদয়ের মাঝখানে♥ . পার্ট-০২ . নিঝুম :উপ……………মা (জোরে চিল্লিয়ে) দৌড়ে দুজনে উপমার কাছে গেল। (রাস্তার ওপাশে) উপমা :আ……উচ……(রাস্তায় পড়ে গেল) নিঝুম :তুই ঠিক আছিস তো?(রাস্তা থেকে উঠিয়ে) নিলা :Are You Ok উপমা,, কিছু হয় নাই তো তোর,, উপমা :কে কার এতো সাহস হইলো,, আমারে গাড়ি দিয়ে ধাক্কা দেওয়ার,, আর আমি ঠিক আছি কিছু হয় নাই। (গায়ের ময়লা ঝারতে ঝারতে) সামনে তাকিয়ে দেখে দুজন লোক গাড়ি থেকে নেমে এলো,, উপমা একজন বৃদ্ধ লোককে রাস্তা পার করে দিতে গিয়েই গাড়ির সাথে ধাক্কা লাগে ……. উপমা বৃদ্ধ লোকটাকে রাস্তায় পৌঁছে দিয়ে, উপমা :আপনি ঠিক আছেন তো দাদু? বৃদ্ধ :হুম, আমি ঠিক আছি,, তোমার কিছু হয়নি তো ……….? উপমা :না দাদু,, আপনি এখন যান,, সাবধানে যাবেন দেখেন আবার পরে যাবেন,, বৃদ্ধ লোকটি চলে গেল,, উপমা লোকগুলোর সামনে গেল,, উপমা :ওই মিয়া,, গাড়ি ঠিক মতো চালাইতে না পারলে গাড়ি চালান কেন শুনি? আদি :Sorry, sorry Am Brealy Sorry,,(দুইটা ছেলে থেকে একজন বলে উঠলো) উপমা :এখন আবার সরি বলতে আসেন,,, লজ্জা করে না,,, সরি বলতে,, এখন যদি ওই দাদুটা ধাক্কা খেত তাহলে কি হতো হে কি হতো,,, গাড়ি যখন চালাতেই পারেন না তখন রাস্তায় নামেন কেন,,, এই আপনাদের মতো 3rd Class এর Boy গুলা Style করে গাড়ি চালাতে গিয়ে কতো মানুষকে গাড়ি চাপা দেয় জানেন,, একমাত্র আপদের মতো ছেলে গুলার কারনে বাংলাদেশে ঢাকায় এতো Accident হয়! আদি :Hy You,, Mind Your Language Okk, গাড়ির সাথে একটু ধাক্কা লেগেছে তাই বলে আপনি আমাদের এই ভাবে এত্তো গুলা কথা বলবেন,, উপমা :অবশ্যই বলবো 100 বার বলবো কি করবেন আপনি,, উচিত কথা বললেই দোষ না,, গায়ে লাগে না,, নিঝুম :উপমা থাম এভার বেশি হয়ে যাচ্ছে,, উপমা :কি থামবো আমি হে কি থামবো,, দেখছিস না উনি কি বলছে,, গাড়ির সাথে ধাক্কা দিয়েছে,, আবার বড় বড় কথা বলতে আসে,, 3rd class er লোক কোথাকার,, আদি :আপনি কিন্তু আপনার সিমা অতিক্রম করে যাচ্ছেন! অন্তর : আদি Just Stop This,,, আপু সরি আমাদের ভুল হইছে মাফ করে দেন! আদি :তুই মাফ চাইছিস,, আরে ওনার তো আমাদের কাছে মাফ চাওয়া উচিত,, Rascal কোথাকার,, উপমা :কি বললেন আমি Rascal আপনি Rascel, Stupid, ডায়েন, ইত্যাদি ইত্যাদি সবকিছু (রেগে গিয়ে) আদি :How Stupid………… আপনার সাহস কি করে হয় আমাকে এগুলো বলার,,, কোথা থেকে ছুটে এসে গাড়ির নিচে পরে,, আমাকে ইন্সাল্ট করছে,,,, নিলা :উপমা প্লিজ চল,,, শুধু শুধু ঝগড়া হইতেছে,,, তোর কিছু হয় নাই এতেই আমাদের অনেক,, চল মা প্লিজ উপমা :নিলা শুধু যেতে বলছে দেখে,, আমি আপনাকে কিছু বলছি না না হলে আজকে বুঝিয়ে দিতাম আপনি কাকে কি বলছেন,,, যাওয়ার আগে একটা কথা বলে যাই Next Time এভাবে কাউকে যদি ধাক্কা দেন তো আমার চেয়ে খারাপ আর কেউ হবে না,,,, হাত থেকে কেপটা মাথায় দিয়ে উপমা,, হনহন করে চলে গেল,,, আদির রাগ প্রচুর পরিমাণ বেড়ে গেছে,, কোথাকার কোন অচেনা একটা মেয়ে তাকে এইভাবে রাস্তায় এতোগুলো কথা শুনালো,, উপমা গাড়িতে উঠে বসে রাগি মুখ নিয়ে চলে গেল,,, আদি :Innocence Girl,, হুহ……… অন্তর :তোকে আমি বলছিলাম আমি গাড়ি চালাই না তুই নিজেই এখন যদি কিছু হতো তাহলে,,, এটা কোনো তোর দেশ না যে ইচ্ছে মতো গাড়ি চালাবি এখানে রাস্তা ঘাটে অনেক লোক থাকে,, SO BE Cearful Drive Okk,, আদি :মেয়ের সাহস দেখে তো আমি অবাক,, আদি চৌধুরীকে এতোগুলো কথা শুনালো,, এর প্রতিশোধ একদিন আমি নিবোই,,, অন্তর :ওকে পেলেই তো নিবি, আমি গাড়ি চালাই তুই ওখানে গিয়ে বস,, ওরাও নিজের গন্তব্যে চলে গেল,,,, নিলা :বাবারে কি রাগি ছেলেরে বাবা,, কি জেদ ছেলের,,, আমি তো ভয় পেগেই গেছিলাম,, নিঝুম :হুম, আমিও,, নিলা :এই রাগি ছেলেরা না অনেক রোমান্টিক হয় জানিস,, উপমা :চুপ,, ওই কালা চশমার কথা একদম বলবি না,,দু চোখ থাকতেও চোখে দেখে না আমার সানগ্লাস লাগইতে যায় যতোসব পাগল কোথাকার আমাকে দমকি দিচ্ছে,, এই উপমা রাহমান কে? রাস্তা বলে কিছু বলি নি না হলে অবস্থা খারাপ করে দিতাম! নিলা :আহা তুই কি,, উপমা খান হবে রাহমান বলিস কেন হে,,, উপমা :দেত কচুর খান,,,, উপমা রাহমানই অনেক সুন্দর রাহমান টা যে একজনের দেওয়া,, (বলতেই চোখ থেকে এক ফোটা পানি পরে গেল) নিঝুম :উপমা কান্না করিস না,, সবার ভাগ্য এক হয় না! আমি জানিনা আল্লাহ কেন তোর জিবনটা এমন করছে,,তুই তো কোনো ভুল করিস নি,, তাহলে কেন? কিন্তু দেখিস তোর জিবনটা বদলে দিতে একজন আসবেইই,, উপমা :আমার এই মনে শুধু একজনেরই যায়গা আর কেউ আসলেও ওর মতো যায়গা পাবে না। (বলেই চোখের পানি মুছে পেলল)……. After Day……………. উপমা :আচ্ছা, তুই ছেলের পিক দেখচছ,,(রেস্টুরেন্টে বসে) নিঝুম :না ….. উপমা :তাহলে চিনবি কিভাবে,,, নিঝুম :বাবা কাল রাতে ছেলেকে আমার ছবি দিছে, আমারে দিছে আমি দেখি নাই, এই বিয়েতেই যখন মত নাই ছেলেরে দেখে কি হবে,, উপমা :আচ্ছা, কোন সমস্যা নাই ছেলে যেহেতু তোরে দেখছে, সেহেতু তোরে ওই খুজে বের করবে? নিঝুম :শুন না একটা কথা বলার ছিল,, উপমা :কি বল? নিঝুম :ওই যে কালকে ছেলে গুলার কথা মনে আছে? উপমা :কোন ছেলে কতো ছেলেদের ই দেখলাম মনে কাকে রাখবো,, নিঝুম :আরে না ওই যে তুই কালকে যার সাথে ঝগড়া করলি,, ওর সাথের ছেলে টা,, উপমা :ওওওও ওই সানগ্লাসের সাথের আপুটা,, নিঝুম :হুম, আমি না ওরে, উপমা :তুই কি ওরে,, বল নিঝুম :আমি ওরে এই মনে গেথে পেলছি,, . উপমাতো আকাশ থেকে পরলো ………….. . উপমা :What ……….? ওই 3rd Class এর ছেলেগুলোরে তুই,,,, তুই আসলে আমাদের নারী জাতীর মান-সম্মান সব ডুবাইবি! নিলা :Hi,, সুইট হার্ড,,,(পাশের চেয়ারে বসে) এমা তোরা এমন ভাবে আছচ কেন? কি হইছে ……… Anything Wrong ……… উপমা :হুম,,, নিঝুম নাকি আপুরে ভালোবেসে পেলছে,,,, নিলা :কোন আপু,,, কে সেই আপু? উপমা :আরে কালকে ওই যে কালো চশমা,, আর সাথে একটা আপু ছিল,, ওই আপুরে নাকি,, নিলা :নিঝুম তাই নাকি জান,,, একটা Hipi দে দোস্ত,,,, দুজনে একটা হাইপাই দিলো,,,, উপমা :What is this,, Hipi Why? নিঝুম :কেননা,, আমিও কালো সানগ্লাসের প্রেমে ওলরেডি পরে গেছি,,, বল __________ ওর প্রতি আমার Love Attraction করছে,, উপমা :হায়, হায়,, তোদের জন্য আমাদের মতো অবোলা নারীদের মান, ইজ্জত সব যাইবো,, আল্লাহ একটু দেখ মেয়েগুলার দিকে,,,, অন্তর :হাই _________ (নিঝুকে উদেশ্যে করে) উপমা :কি চাই এখানে,,, কেন আসছেন এখানে আবার ঝগড়া করতে? । । । অন্তর :না আপু,,, আমি আমার একটা কাজে আসছি,,, উপমা :তো কাজে আসছেন যান না কাজে আমাদের কাছে কেন,,, অন্তর :আপনাদের কাছেই তো সেই কাজের,, জিনিস টা,,,, এইদিকে তো নিঝুম চোখই সরাতে পারছে না অন্তরের দিক থেকে,,,, । । । উপমা :কই আছে যান নিয়া যান,,, শুধু শুধু বেজাল কইরেন না তো,,,, অন্তর :হুম ……… উপমা :এমা আপনি নিঝুম কে কোথায় নিচ্ছেন, ছাড়ুন ওকে,,,, অন্তর :কেননা,,, এর সাথেই যে আমি দেখা করতে আসছি,,,, আমার হবু বউ,,,, ওনি,,, নিঝুম :আল্লাহ তুমি তাহলে আমার দিকে একটু তাকাইছো,,,, যাকে প্রথম দেখায় ভালোবেসে পেলছি …….. সে কিনা আমার হবু বর ……… অফ……….ফ ভাবতেই কি যে আনন্দ লাগে,, মন চাইতেছে তারে নিয়া এখানে একটা নাচ দেই,,,, (মনে মনে বলছে),,, । । । উপমা :ও আচ্ছা,, তার মানে আপনি আমাদের জিজু,,, অন্তর :আজ্ঞে হে,, নিলা :আপনি কালকে আমাদের পরিচয় দেন নাই কেন? আপনাদের সাথে অযথা যা খারাপ কথা বলছে উপমা! অন্তর :এটা কোনো সমস্যা না,, আমরাও তো আপনাদের চিনতাম না! আমি কালকেই Australia থেকে পিরেছি দেশে,,, আর যে আমার সাথে ছিল সে আমারে বন্ধ অনেক ভালো বন্ধু,,, Australia ই থাকে,,, ও অনেক রাগি তাই অল্প তে কিছু বললেই রেগে যায়,,, আর আপনাদের সাথে ও যা বলছে তার জন্য আমার পক্ষ থেকে sorry,, উপমা :ঠিক আছে,,, আমরাও সরি,,, । । ।নিলা :আপনার দুজন এখানে বসেন আমরা পিছনের টেবিলে যাই,,, চল ……… উপা……………… অন্তর :আচ্ছা, আপনাদের সাথে পরিচয় হলে ভালো হতো,,, নিলা :আমি নিলা,,,, আর ও উপমা খান, আমরা সবাই এবার অনার্স ফাইনাল ইয়ারে,,, উপমা :তুই আবার খান লাগাইচ,,, সরি Bro আমার নাম উপমা রাহমান,,,, বলেই দুজনে পিছের টেবিলে চলে গেল,,, । । । । অন্তর :বসুন মেম,,, নিঝুম :জি,,,, অন্তর :হুম, তুমি করে বলতে পারি,, হবু বউ বলে কথা তো তাই,, নিঝুম :বলুন সমস্যা নাই! অন্তর :আমাকেও তুমি করে বলতে হবে,,,, নিঝুম লজ্জায় মাথা নিচু করে পেলল,, অন্তর :বাবা……বা কি লজ্জা আমার বউয়ের,, কি খাবেন বলুন? চা, কপি, সুপ, পিজ্জা, ভার্গার,, নিঝুম :কপি হলেই চলবে,,, দুজনে কপি অর্ডার দিয়ে কথা বলছে,,, নিঝুম :আচ্ছা, আপনি আমাকে ছিনলেন কিভাবে? অন্তর :আবার আপনি বললাম না তুমি করে বলতে,,, নিঝুম :Ok Sorry, তুমি? অন্তর :কালকে তো প্রথম আমি আপনাকে দেখে এই বুকের বা পাশে গেথেই পেলছি, রাতে ঘুমাতে দেয় নাই আপনার ওই মায়াবি মুখটা,, শুধু চোখের সামনে বেসে উঠতো,, আর রাতেই মা তোমার ছবিটা দেখাইছে,, তোমার আর আমার বিয়ে, এই ভাবে দেখা হবে কল্পনাই করতে পারিনি,,,, আমি তো খুশিতে পুরো আত্ম হারা হই গেছি! একটা কথা বলি? নিঝুম :হুম বলো? অন্তর :তোমাকে না আজ নীল ড্রেস টায় অনেক সুন্দর লাগছে,,, নিঝুম :একটা হাসি দিয়ে,, তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে,,, অন্তর :আমরা তো কথা বলেই যাচ্ছি,, আমার সালি সাহেবাদের কিছু লাগবে কিনা তা তো জিজ্ঞেস করলাম না,, এই যে সালি সাহেবা ? উপমা :জি জিজু বলুন? অন্তর :আপনারা কিছু খাবেন না, কিছু লাগবে আপনাদের,,,, উপমা :হে আমাদের জন্য একটা পিজ্জা অডার দিন তাতেই হবে,, অন্তর :Okk, ওয়েটার ওনাদের একটা পিজ্জা দিন তো? উপমা আর নিলা পিজ্জা খাচ্ছে আর সেলফি তুলছে,, নিলা :আচ্ছা, আমি সানগ্লাসকে তো দেখলাম না? উপমা :ওই আপদটা নেই ভালোই হলো,,, না হলে এতক্ষণ কতো যে ঝগড়া হইতো,,, নিলা :Wow, Just Osam,, কি? Handsam, ব্লাক জিন্স, হ্বাইট গেঞ্জি, ব্লাক জেকেট,, চোখে সানগ্লাস দেখতে পুরো হিরোর মতো লাগছে,,, অফ……..ফ মনটা চাইতেছে ধরে এনে এই বুকে বন্ধি করে রাখি,, উপমা :বাব্বা,, ভূতের মুখে রাম রাম,, ওই ভূত টার প্রেমে এতোই হাবু ডুবু খাইচছ,, নিলা :বলতে না বলতেই চলে এলো রে পিছনে পিরে দেখ,,,, আদি উপমার দিকে পিরতেই তার মাথা 100 ভোল্ডের বাতির মতো জলে উঠলো,,, আদি :এই মেয়েটা এখানে কি করছে, নিশ্চয়ই আবার ঝগড়া করতে আসছে,, আজ আমি কালকের অপমানের শোধ তুলবোই,, . To Be Continue ……………….?


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩৯৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ হৃদয়ের মাঝখানে-১০
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৯
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৮
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৭
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৬
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৫
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৪
→ হৃদয়ের মাঝখানে-৩
→ হৃদয়ের মাঝখানে-১১
→ হৃদয়ের মাঝখানে-১২

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...

X