সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

জাদুর যাঁতা

"রূপকথা " বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Sirajam Munira(Era) (৩২৫২ পয়েন্ট)



অনেক দিন আগে,এক গ্রামে রবিন নামের এক লোক বাস করত।সে ছিল খুব গরীব।কোনোদিন খেতে পেত আর কোনোদিন খেতে পেত না।এভাবেই তার দিন চলে যেত। তার বড় ভাই প্রবীন ছিল অনেক বড়লোক।কিন্তু সে রবিনকে কোনো সাহায্য করতো না। একদিন রবিন কাজ না পেয়ে মন খারাপ করে বাড়ি ফিরছিল।সে দেখতে পেল,একজন বৃদ্ধা একটা কাঠের বোঝা নিয়ে বসে আছেন।রবিন তার কাছে গেল এবং বলল, -মা,আপনার কি কোনো সমস্যা হয়েছে? -বাবা,আমি এই কাঠের বোঝাটা তুলতে পারছি না। -তাতে কি হয়েছে? আমি আপনাকে এটা আপনার বাড়ি পর্যন্ত দিয়ে আসছি। এই বলে রবিন সেই কাঠের বোঝাটি নিয়ে বৃদ্ধার বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিল। যখন সে চলে আসছিল,তখন বৃদ্ধা তাকে বলল, -বাবা,তুমি আমার অনেক বড় উপকার করেছ।এই নাও,এ যাঁতাটি নাও। -এ যাঁতা নিয়ে আমি কি করব,মা? -এটা কোনো সাধারণ যাঁতা নয়,এটা একটা জাদুর যাঁতা।এ যাঁতার কাছে তুমি যা চাইবে,তাই পাবে।আর যখন নেয়া হয়ে যাবে,তখন একটা লাল কাপড় এর উপর দিয়ে দিবে।তাহলে এটা থেমে যাবে। বৃদ্ধার দেওয়া যাঁতা নিয়ে রবিন আনন্দে বাড়ি ফিরল।তারপর থেকে তাকে আর কোনোদিনও না খেয়ে থাকতে হয় নি। এ দেখে প্রবীন বলল,রবিন আগে আমার কাছে কত কিছু চাইতে আসতো।এখন কিছুই চাইতে আসে না।ব্যাপারটা দেখতে হচ্ছে । যখন রবিন যাঁতার কাছ থেকে কিছু চায় ছিলো প্রবীন তার জানালা দিয়ে সব দেখে ফেলে। এরপর সে যাঁতাটি চুরি করে নিয়ে জঙ্গলে পালিয়ে যাচ্ছিল।পালিয়ে যাওয়ার সময় তার পাঁয়ে অনেকগুলো জোঁক লাগলো।সে জোঁকগুলোকে মারার জন্য যাঁতার কাছে লবণ চাইলো।তখন যাঁতা লবণ দিতে শুরু করলো।যাঁতা আর থামছে না।প্রবীন যাঁতা বন্ধ করার উপায় দেখে নি।তাই সে যাঁতাও থামাতে পারলো না।একসময় লবণে চাপা পড়ে সে মারা গেলো। হিংসুক প্রবীনের এইভাবেই মৃত্যু ঘটলো।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৮৬৯ জন


এ জাতীয় গল্প

→ জাদুর যাঁতা
→ জাদুর পাথর
→ জাদুর পাথর
→ জাদুর কাঁচি
→ শেয়াল ও যাঁতাচালক
→ জাদুর যাঁতা
→ জাদুর পাখি

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...

X