গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

আমার মায়াবতী বান্ধবী(পর্ব৬)

"উপন্যাস" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান Eshrat Jahan (০ পয়েন্ট)



আমি উঠে দাঁড়ালাম।আবার বসলাম।বললাম,দেখি কে কতোক্ষণ হাসতে পারে।"এই বলে এমনি এমনি হাসতে থাকলাম।আমার হাসি দেখে বুবলি আর রাত এমনি এমনি হাসতে হাসতে সত্যি সত্যি হাসির পর্যায়ে গেছে।আমি উপুড় হয়ে মাঠের উপর টম জেরির মধ্যে টম যেরকম উপুর হয়ে হাত আর পা নাচাতে নাচাতে হাসে আমিও ওরকম করে হাসছি।আমার হাসি দেখে রাত আর বুবলির আরো হাসি এলো।রাতও মাঠের মধ্যে শুয়ে পড়লো।আর বুবলি দাঁড়িয়ে হাসছে।উফফ।হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা ধরেছে।ভাবলাম এখানে আর থাকা যাবে না।এখানে থাকলে হাসতে হাসতে দম বন্ধ হয়ে যাবে।তাই আমি উঠে দাঁড়িয়ে এক দৌড়র দিয়ে গেলাম কাকির দোকানে।আমাদের স্কুলের দোকানদারও মেয়ে।হিন্দু মহিলা।মানে এই স্কুলটা হিন্দুপাড়ার মধ্যে।কাকির স্বামীর দোকান স্কুলের বাইরে।সেখান থেকে এখানে দোকানের জিনিস নিয়ে আসা হয়।আমি দূর থেকে দেখলাম তারা হাসি থামিয়েছে।আমি পাঁচটা চকলেট কিনে নিয়ে গেলাম।দুইজনের হাতে দুইটা দিলাম।আর তিনটার মধ্যে একটা মুখে দিলাম আর দুইটা রাখলাম পরে খাবো। "ইভা আর জানি এরকম হাসি দিছ না।উহ।"(রাত) "তাইতো পালছিলাম।আর বেশি হাসলে স্মৃতিশক্তি লোভ পাই।এই বুবলি তোর হাতে লাঠি কেন?আর তোর হাতেও।"(আমি) "আমার হাতে লাঠি কেন সেটা এখনি বুঝবি।"(বুবলি) তখনই বুবলি আমাকে একটা মার দিলো।আরেকটা দিবে তখনি বললাম,"আমাকে মারছিস কেন?"(আমি) "তুই আমাদের হাসাতে হাসাতে অবস্থা খারাপ করে দিছিস।"(বুবলি) আবার মারতে থাকলো।আমি তো দিলাম দৌড়র।তারাও আমার পিছে পিছে।কি করবো আমার হাতে তো আর লাঠি নাই।তাই দৌড়াচ্ছি।দুইতিন মিনিট দৌড়ানোর পর থামিয়ে বললাম"এই থাম।" এই বলে আমি পা থেকে জুতা খুলে তাদের মারতে থাকলাম। "এই জুতা দিয়া মারতেছিস ক্যান?(রাত) "হাহ।তোদের হাতে লাঠি আছে আর আমার হাতে কিছু নাই।তা ভাবলাম একেবারে কিছু নাই তাতো না।জুতা তো আছে।তাই জুতা দিয়ে মারলাম।আর এখন মারামারি অফ।হাতে হাত মিলা।" আমরা হাতে হাত মিলালাম। বিকেল আমি বিকেলে পার্কে বসে আছি।কে যেনো পিছিন থেকে চোখ ধরলো।চশমা পরে থাকি।চোখের সমস্যা।চশমা ছাড়া মাথা ঘুরে আর দূরের জিনিস ভালো করে দেখি না।এই জন্যই সবসময় চশমা পরতে হয়।চশমা পরে আছি বলে চশমার জন্য ভালো করে ধরতে পারলো না।আমি আন্দাজে বললাম,"বুবলি।" চোখ ছেড়ে দিলো।দেখলাম সত্যিই বুবলি।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৪৮২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ আমার কল্পনায় তুমি
→ আমার প্রথম জিজেতে আসা
→ আমার মাঝে আল্লাহর পরিচয়
→ ময়মনসিংহের প্রেম (আমার নিজ এলাকা)
→ আমার প্রাণের সুর
→ আমার বাবা মা নেই
→ আমার ভালোবাসার মানুষ।
→ আমার শৈশব_০১
→ আমার শৈশব_০২
→ আমার শৈশব_০৩

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...