গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

ঈশান(পরিচয়পর্ব)

"ফ্যান্টাসি" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান রিয়ামণি (রোবো গার্ল) (০ পয়েন্ট)



ঈশান(পরিচয়পর্ব) লেখাঃশাহরিয়ার রিও আজ ফ্রেন্ডশিপ ডে... ক্যাফেটেরিয়াতে বসে বসে তন্নীর জন্য অপেক্ষা করছিলাম।অপেক্ষা করতে করতে আমাদের সম্পর্কে পাঠকদের কিছুটা ধারণা দিয়ে নেই। তন্নী,আমার বেষ্টফ্রেন্ড।ক্লাশ সেভেন থেকে এই ভার্সিটি লাইফ অবধি একসাথে আছি।বলতে গেলে ও আমার একমাত্র ফ্রেন্ড আর বেস্টফ্রেন্ড দুটোই।কারন,আমি মিশুক নই তাই ফ্রেন্ড সংখ্যাও কম।একা আর চুপচাপ থাকতে ভালবাসি। তবে, খুব প্রাণবন্ত। সবকিছু শেয়ার করা আর দুষ্টামি সবকিছুই আম্মু আর তন্নীর সাথে।চুপচাপ থাকলেও আমি খুব দুষ্ট আর দুষ্টামি করতেও পছন্দ করি।তবে,আমাকে দেখলে সেটা বুঝা যায়না।চোখে মোটা ফ্রেমের চশমা,ছোটছোট চুল এলোমেলো থাকে সবসময়। মোটকথা,সাজ আর সৌন্দর্যের দিকে ধ্যান নেই।সাহিত্য,মুভি কার্টুন এসবেই সময় কেটে যায় দিব্যি। আর আমার বান্ধবী তন্নী, আমার থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন।চঞ্চল, সুন্দরী, বফ আছে আর ফ্রেন্ডেরও অভাব নেই।তবে,স্পেশাল ফ্রেন্ডটা হলাম আমি।বাকিরা এমনি এমনিই জাস্ট টাইমপাসের জন্য।যদি বলেন টাইমপাস আমার সাথেওতো করা যায়।কিন্তু, আমি যখন সাহিত্যচর্চা নিয়ে ব্যস্ত থাকি তখন! সে সময়টুকুই ওদের সাথে কাটায় তন্নী। আমরা ভার্সিটিতে এসেছি একবছর হলো। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি,আমি এখনো ক্লাশে তেমন কাউকে চিনিনা।চিনিনা বলতে মুখে মুখে চিনি কিন্তু নাম জানিনা আর পরিচয়ও নেই।অনেকেই পরিচিত হতে এসেছে তবে আমার হেয়ালি ভাব দেখে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে। আমার একটা অভ্যাস আছে।বাজে কিনা জানিনা,তবে আমার সবাইকে ফলো করতে ভাল লাগে আর এই সুবাদে ক্লাশের প্রায় সবার চালচলন সমন্ধে একটা ধারণা পেয়ে গেছি।এরমাঝে একটা ছেলে আছে যে আমার মতো কারো সাথে মিশেনা আর কথাও বলেনা।চুপচাপ আর অবসরে বই হাতে।চোখে মোটা ফ্রেমের চশমা,চুলগুলো এলোমেলো,হাসিমাখা চোখ। সুদর্শন বলা চলে।অনেক মেয়েকেই দেখি লাইন মারতে চায় কিন্তু ও ফিরেও তাকায়না।ছেলেটার নাম জেনেছি তন্নীর মাধ্যমে।ঈশান.... অনেকক্ষণ থেকে অপেক্ষা করছি।সামনের টেবিলের দিকে তাকালাম।ঈশান বসে আছে আর বরাবরের মতোই একা।ফোনের দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে।দেখে মনে হচ্ছে গেমস খেলছে। আমিও আমার মতো বসে রইলাম।বিরক্ত লাগছে।নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে আধঘণ্টা বেশি হয়ে গেলো এখনো তন্নীর খবর নাই।এমনসময় ফোন বেজে উঠলো।স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে দেখলাম তন্নী।রিসিভ করে বললাম, ঃ কিরে,কই তুই? কতক্ষণ থেকে অপেক্ষা করছি তোর জন্য? ঃস্যরি দোস্ত,আসলে শাওন(ওর বফ) কল করে ওর সাথে দেখা করতে বলছে।না গেলে রাগ করবে।তাই সেখানে যাচ্ছি।দোস্ত প্লিজ রাগ করিসনা। ঃতুই থাক তোর বয়ফ্রেন্ড নিয়ে(রেগে গিয়ে ফোন কেটে দিলাম।) খুব বেশি রাগ হচ্ছে।ফ্রেন্ডশিপ ডে তেও ফ্রেন্ডকে সময় না দিয়ে প্রেমিকের সাথে দেখা করতে হবে। ঃরিয়া.... (কেউ ডাকলো আমাকে।সামনে তাকিয়ে অবাক হয়ে লক্ষ্য করলাম সেটা ঈশান।কিছু বলতে পারলামনা।রাগে দুঃখে মন ভারি হয়ে আছে।) ঃকাঁদছো কেন? অবাক হয়ে লক্ষ্য করলাম চোখ বেয়ে টপটপ করে জল পড়ছে।আবার বললো, ঃকোনো সমস্যা? একে একে সব বলে দিলাম।আর তারপর নিজেই অবাক হলাম।আমি কিনা অপরিচিত একটা ছেলেকে নিজের বেস্টফ্রেন্ডের উপর করা অভিমান সব ব্যক্ত করলাম!.ঈশান হেসে উঠলো আমার কথা শুনে আর বলা বাহুল্য, হাসিটা অনেক সুন্দর। ও বলতে থাকলো, ঃতোমার যখন বয়ফ্রেন্ড হবে আর তুমি প্রেমে পড়বে তখন বুঝবে এসব।শুধুশুধু মন খারাপ করোনা। ঃআমি শুধু সৌজন্যতা সরূপ মুচকি হাসলাম। ও নিজেও মুচকি হেসে বলল, ঃবন্ধু হবে? ঈশানের কাছ থেকে এমন প্রস্তাব পেয়ে অবাক হলাম।কি বলবো ভেবে পাচ্ছিলাম না। ঈশান বলতে লাগলো, ঃআমাকে যেমন দেখছো আমি তেমন না।আমার অনেক ফ্রেন্ড ছিল একসময়, কালক্রমে সবাই হারিয়ে গেছে যে যার মতো।তাই ঠিক করলাম,ভার্সিটি এসে সবাইকে ফলো করবো।যাকে দেখবো আমার মতো আর আমার সাথে মিলে যায় যার ব্যবহার তাকেই ফ্রেন্ড করে নেবো।আর তোমাকেই পেলাম তেমন। আর আশা করছি,তুমি নিজেও আমার সাথে তোমার মিলগুলো লক্ষ্য করেছো।আমি জানি তুমিও আমাকে ফলো করতে।আসো বন্ধু হয়ে যাই।তাহলে আর একাকী থাকতে হবেনা। (মনেমনে ভাবলাম প্রস্তাবটা ভাল।তাছাড়া ওকে আমারো ভাল লাগে।) সেখানে টুকটাক কথা নাম্বার আদানপ্রদান এসব হলো কিন্তু বন্ধুত্বের প্রস্তাব এক্সেপ্ট করলাম না।বললাম,ভেবে দেখবো। ঈশান সিরিজের গল্পগুলো একেরপর এক আসতে থাকবে।ফ্রেন্ডশিপ, ফ্যান্টাসি, খুনসুটি, হরর আর রোমান্স....সব মিলিয়েই হবে সিরিজটি।আপনাদের ভাল লাগলে লেখা চালিয়ে যাবো....


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২৮৯ জন


এ জাতীয় গল্প

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...