গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় পাঠকগন আপনাদের অনেকে বিভিন্ন কিছু জানতে চেয়ে ম্যাসেজ দিয়েছেন কিন্তু আমরা আপনাদের ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে পারিনাই তার কারন আপনারা নিবন্ধন না করে ম্যাসেজ দিয়েছেন ... তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ কিছু বলার থাকলে প্রথমে নিবন্ধন করুন তারপর লগইন করে ম্যাসেজ দিন যাতে রিপ্লাই দেওয়া সম্ভব হয় ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

না বলতে পারা ভালোবাসা-৩

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান mim (০ পয়েন্ট)



★লেখকঃ মিম★ এবার মিতুকে দেখিয়ে দেখিয়ে আবীরের সাথে কথা বলতে লাগল। আবীর দিতির সাথে কথা বলতে না চাইলেও দিতি গায়ে পড়ে এসে আবীরের সাথে কথা বলতো। মিতু তবুও মনে মনে আবীরের উপর ভীষন রাগ হয়েছিল। ও কেন ওকে সরাসরি বারন করে দেয় না। তাহলেই তো হয়। এভাবে চলতে চলতে একদিন দিতি সারা স্কুল বাজিয়ে দিল যে আবীর নাকি ওকে ভালোবাসে। আবীর লেখাপড়ায় যেমনই হোক না কেন ক্যারেক্টরের ব্যাপারে ছিল সুনামের পাত্র। কিন্তু এই ঘটনা ছড়িয়ে পড়ল সারা এলাকাব্যাপি। মিতুতো রেগে আর আবীরের সাথে কথাই বলল না। এদিকে আবীরের পরিবারের লোকজন যাকেই দেখছে তাকে এলাকার লোকজন টিটকারি করছে। এতে আবীরের বাবা ঠিক করল এলাকা থেকেই চলে যাবে। কিছুদিন পর আবীরদের পরিবার এলাকা থেকে চলে গেল। যাবার আগে আবীর মিতুর সাথে একটিবার কথা বলার জন্য অনেক চেষ্টা করেছে কিন্তু মিতু বলে নি।আবীর কতবার করে ফোনের নম্বরটা পর্যন্ত দিতে চেয়েছে। কিন্তু মিতু কিছুতেই নেই নি। তবে মিতু প্রতিদিন খুব করে কাদতো আবীরদের চলে যাবার কথা শুনে। কিন্তু যেমন মেয়ে ও। আবীরের সাথে কথা বলতে নারাজ। আবীররা যেদিন যাচ্ছিল মিতু দূরে লুকিয়ে আবীরকে শেষবারের মত দেখল। হয়ত আবীরের সাথে আর কখনো দেখা হবে না। আবীর থাকবে না তবে থাকবে ওর সাথে থাকা সময়গুলোর স্মৃতি। আবীররা চলে যাবার পরের দিন যখন মিতু ক্লাসে গেছিল দিতি তখন বলেছিল,কিরে তোকে জানে না মারতে পারলেও তো প্রানে মেরে দিলাম। বেচারা আবীর!!!কি অপবাদটা নিয়েই না গ্রাম ছাড়ল। আর আমি জিতে গেলাম। মিতু বলল,কি বলতে চাইছিস তুই?দিতি বলল,বুঝতে পারছিস না??এসবই তো নাটক ছিল তোকে কষ্ট দেবার জন্য। আবীর নির্দোশ।বোঝ মজা কেমন লাগে। মিতু কথাগুলোে শুনে একেবারে হতবম্ব। এখন মিতু কলেজে পড়ে ও আজো আবীরকে খুব মিস করে। তবে আবীরের সাথে ওর আর কখনো দেখা হয় নি। ও মনে মনে ভাবে যদি কোনোদিনও আবীরের সাথে দেখা হয়ে যায় তবে কোনোকিছু না ভেবে ওকে সোজা বলে দেবে এতদিন না বলতে পারা ভালোবাসার কথা।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ১৪০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ হায়রে মানুষ, তাদের কি ছিলনা কোনো হুশ!
→ ~ভূত নামানো(গল্পটি বলেছেন ড.মুহাম্মদ জাফর ইকবাল)।
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৪:-
→ ✳নিজেকে দোষ দিও না✳
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৩:-
→ সৌন্দর্যের আলাদা করে কোনো রঙ হয় না
→ নিজেকে জানা
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব২:-
→ ~অমুসলিমদের জন্য মক্কা-মদিনায় প্রবেশ নিষিদ্ধ কেন? এতে কী বিশ্ব ভ্রাতৃত্ব হুমকির মুখে?
→ ❣না বলা ভালোবাসা ❣পাঠ ২

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...