গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app
গল্পেরঝুড়ি ফানবক্স ! এখন গল্পের সাথেও মজাও হবে! কুইজ খেলুন , অংক কষুন , বাড়িয়ে নিন আপনার দক্ষতা জিতে নিন রেওয়ার্ড !

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

না বলতে পারা ভালোবাসা-২

"রোম্যান্টিক" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান mim (০ পয়েন্ট)



★লেখকঃ মিম★ ক্লাস সেভেনে থাকতে ওদের ক্লাসে একটা নতুন মেয়ে ভর্তি হয়েছিল।ওর নাম ছিল দিতি। সে মিতুকে বলেছিল, তোমার ১ রোল আমি কেড়ে নেবো। মিতু তো রাগে শুধু ফুলছিল। তখন থেকেই ওই মেয়েটার সাথে ওর তুমুল শত্রুতা। ছোট বাচ্চাদের শত্রুতাতো বোঝাই যাচ্ছে। কিন্তু দিতি আর মিতুর ১ রোল কাড়তে পারল না। তাই প্রতিশোধ নেবার জন্য অন্য রাস্তা বেছে নিল। আর তা হচ্ছে আবীর। ও ভালো করেই বুঝেছিল মিতু আর আবীরের সম্পর্ক শুধু বন্ধুত্বের না। তখন ওরা ক্লাস এইটে পড়ত। মিতু আর আবীর একই স্যারের কাছে প্রাইভেট পড়ত। আবীরদের বাড়ি ছাড়িয়ে থুয়ে প্রাইভেটে যেতে হয়। মিতু রোজ আবীরের জন্য ওয়েট করত। তারপর দুজনে সাইকেল নিয়ে ছুটে যেত সামনের পথে। ওরা মনে মনে ভাবত এই পথ যদি আর শেষ না হত!!চারিপাশে নিঝুম পরিবেশ। সকাল বিকাল দুইবার প্রাইভেট। এই রাস্তা দিয়ে মানুষ খুব বেশি একটা চলাচল করে না। গ্রামের রাস্তা তো। ওরা দুজন এই নিঝুম পরিবেশে পাশাপাশি চলত। তবে এমনিতে ওরা যেমন ঝগড়া করে আর বকাবকি করে তখন দুজনই নিশ্চুপ থাকত। কেউ কোনো কথা বলত না। বলার নাকি কোনো কথাই খুজে পেত না। অনেক দিন আবীরে সাইকেল নিত না সেদিন মিতু সাইকেল নিলেও আবীরের সাথে হেটে হেটে যেত। মাঝে মাঝে আবীরও তাই করত। এমন মধুর ছিল ওদের সম্পর্কটা। অনেকবার আবীর মিতুকে কিছু বলতে চেয়েছে কিন্তু মিতু ভয়ে শুনেনি। আবার অনেকবার মিতু কিছু বলতে চেয়েছে আবীরকে আর আবীর শুনতেও চেয়েছে। কিন্তু মিতু বলতেই পারিনি। এভাবেই ওদের এত দিন কেটে গেছে টানাপড়েনের মধ্যে। তবে খুব সরসুখেই ছিল ওরা। গন্ডগোলটা করল দিতি। পরীক্ষায় মিাতুর কাছে হরে গিয়ে।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ২০২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ হায়রে মানুষ, তাদের কি ছিলনা কোনো হুশ!
→ ~ভূত নামানো(গল্পটি বলেছেন ড.মুহাম্মদ জাফর ইকবাল)।
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৪:-
→ ✳নিজেকে দোষ দিও না✳
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব৩:-
→ সৌন্দর্যের আলাদা করে কোনো রঙ হয় না
→ নিজেকে জানা
→ অভিশপ্ত আয়না পর্ব২:-
→ ~অমুসলিমদের জন্য মক্কা-মদিনায় প্রবেশ নিষিদ্ধ কেন? এতে কী বিশ্ব ভ্রাতৃত্ব হুমকির মুখে?
→ ❣না বলা ভালোবাসা ❣পাঠ ২

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...