গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান গন আপনারা শুধু মাত্র কৌতুক এবং হাদিস পোস্ট করবেন না.. যদি হাদিস /কৌতুক ঘটনা মুলক হয় এবং কৌতুক টি মজার গল্প শ্রেণি তে পরে তবে সমস্যা নেই অন্যথা পোস্ট টি পাবলিশ করা হবে না....আর ভিন্ন খবর শ্রেনিতে শুধুমাত্র সাধারন জ্ঞান গ্রহণযোগ্য নয়.. ভিন্ন ধরনের একটি বিশেষ খবর গ্রহণযোগ্যতা পাবে

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

[এটি সম্পুর্ন কালপোনিক বাস্তোবের সাথে কনো মিল নেই শুধু মানুষকে মোজা দেবার জন্য]

"ছোটদের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান মো:শামসুল হক(guest) (৩১৯০ পয়েন্ট)



এক গ্রামে ছিলো এক বুড়ি। বুড়ির ছিল একটি পাঁঠা[ব্যাটা ছাগোল] ও একটি ছিল বকরি[ মেয়ে ছাগোল] বুড়ি একদিন ঠিক করলো নাতির বাড়ি যাবে। কিন্ত তার বাড়িতে সেই ছাগোল দুটি রাখার জায়গা ছিলোনা। তাই সে ছাগোল দুটিকে নাতির নিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নিলো।এবার সে ছাগোল দুটিকে নিয়ে নাতির বাড়ি রওনা দিলো । যেতে যেতে পথে প্রায় সাজ [সন্ধা] হয়ে এলো। তাই সে ছাগোল দুটিকে বোনের ধারে রেখে চোলে গেলো । কারোন তার নাতির বাড়িতেও ছাগোল দুটিকে রাখার জায়গা ছিলোনা।সেদিন রাতে বুড়ি নাতির বাড়ি অবোস্থান করলো।তার পরের দিন বুড়ি বাড়ি ফিরতে চাইলো কিন্তু তার নাতি তাকে আসতে দিলোনা। সেদিন একটি শিয়াল সেই বোনের ধার দিয়ে জাচ্ছিলো। শিয়ালের চোখে পড়লো সেই দুটি ছাগোল।ছাগোল দুটিকে খাবার জন্য শিয়াল ছুটে গেলো । কিন্ত দাঁড়ি ওয়ালা পাঠাটিকে সে চিনতে পারলোনা। শিয়াল জিগ্গেস করলো আপনারা কোথা থেকে এসেছেন কি করতে এসেছেন।পাটা ছিলো চালাক সে বললো আমরা ভারোত থেকে এসেছি শিয়াল শিকার করতে আপনি যদি শিয়াল এর দেখা পান তাহোলে আমাদের খবোর দিবেন । শিয়াল ভয় পেয়ে দিলো এক দোড়।দৌড়াতে দৌড়াতে তার বাঘের সাথে দেখা হলো। বাঘ বললো দৌড়াচ্ছো কেনো? শিয়াল বললো ভারোত থেকে শিকারি এসেছে শিয়াল শিকার করতে।শিকারির বড়ো বড়ো দাঁড়ি আর সেই বিরাট চেহারা। বাঘ বললো আমাদে এরিয়াই এসে আমাদেরি শিকার করবে চল দেখি।শিয়াল বললো তুমি বড়ো জানোয়ার তোমার সাথে দৌড়ে পালাতে পারবো না। বাঘ বুদ্ধি বের করলো সে তার লেজের সাথে শিয়ালের লেজ বেধে দিলো । তারপর তারা ভয়ে ভয়ে সেই শিকারির দিকে এগোতে লাগলো । ছাগোল দুটি দেখলো বাঘ ওশিয়াল তাদের দিকে এগিয় আসছে । তাই তারা বুদ্ধি করে বাঘের দিকে ছুটতে লাগলো আর উচ্চ স্বরে আওয়াজ করতে লাগলো [বো বো বো বো.........]।বাঘ দেখলো সেই দাড়ি ওয়ালা বড়ো জানোয়ার তাদের দিকে তেড়ে আসছে ।বাঘ ভয় পেয়ে কোনো উপায় না পেয়ে ক্ষেতের মধ্যে দিয়ে দিলো দৌড়। শিয়াল ছোট আর পিছোন দিকে দৌড়োতে না পেরে গেলো পড়ে।বাঘ প্রচুর জোরে দৌড়াচ্ছিলো তাই ক্ষেতের আইল[ক্ষেতের উচু সত্থান] লাগছিলো শিয়ালে মুখে শিয়াল জোরে বোলতে লাগলো মামা আইল মামা আইল বাঘ মনে করল শিয়াল বলছে আইলো আইলো এই ভেবে বাঘ আরো জোরে দৌড় সুরু করলো এক সমোয় বাঘ ওশিয়াল দুজোনেই মারা গেলো । বুড়ি পরের দিন ছাগোল দুটিকে নিয়ে আবার বাড়ি ফিরে গেলো। [এটি সম্পুর্ন কালপোনিক বাস্তোবের সাথে কনো মিল নেই শুধু মানুষকে মোজা দেবার জন্য]


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫৯০ জন


এ জাতীয় গল্প

→ শামসুর রহমানের সাথে একদিন।
→ পর্দা করা এত জরুরী কেন? ইসলামে পর্দা কি শুধু মহিলাদের জন্য নাকি পুরুষ-মহিলা উভয়ের জন্যে??
→ হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে ধর্মীয় বাধা নেই
→ ইসলামে কেন কোনো মহিলা নবী নেই?এতে কি মহিলাদের অধিকার হরণ করা হচ্ছে??
→ গল্পের কোনো নাম নেই
→ নাম জানা নেই
→ শয়তানের সাথে এমনই হয়!!(হাসতে বাধ্য!! না হাসলে সময় ফেরত!!!)
→ ব‌উ এর সাথে বাজার
→ যে যেমন তার সাথে তেমন ব্যবহার
→ কোরআনের রচয়িতার নাকি অঙ্ক জ্ঞান নেই??

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...