গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

গল্পেরঝুড়িতে লেখকদের জন্য ওয়েলকাম !! যারা সত্যকারের লেখক তারা আপনাদের নিজেদের নিজস্ব গল্প সাবমিট করুন... জিজেতে যারা নিজেদের লেখা গল্প সাবমিট করবেন তাদের গল্পেরঝুড়ির রাইটার পদবী দেওয়া হবে... এজন্য সম্পুর্ন নিজের লেখা অন্তত পাচটি গল্প সাবমিট করতে হবে... এবং গল্পে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট থাকতে হবে ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

টু লেট ভূত

"ছোটদের গল্প" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান (০ পয়েন্ট)



আবুলের বাড়ি ৪ তালা বিল্ডিং। নিচতলায় ভারাটিয়া। দোতালায় আবুলেরা থাকে। সদস্য সংখ্যা ৪ জন। আবুলের ছোট ভাই মফিজ বাটপার আর বাবা মা। তিন তলায় কেউ থাকে না। ভাড়া দেওয়ার জন্য গেটের সাইন বোর্ড। সাইন বোর্ডটা যে ব্যাক্তি দেখে সেই বলে - হায়রে বাংলাদেশের মানুষ, থাকার যায়গা হচ্চে না, আর সেই দেশে অভিজাত এলাকায় এমন লোকদের কি বিলাসিতার জন্যই এ সাইন বোর্ড। সাইন বোর্ডে কি লেখা আছে....!..? যা দেখে সবাই অবাক হচ্ছে। তাহলে সাইনবোর্ড সম্পরকে বলে নেই। আবুল আর মফিজের ইচ্ছায় সাইন বোর্ড টা লাগাতে বাধ্য হয়েছে তাদের বাপ,মা। আবুল আর মফিজ বাটপার ছোট থেকেই অনেক প্রানী দেখেছে। মিশেছে স্কুলে ছেলেমেয়েদের সাথে। আবুল আর মফিজের ইচ্ছা হলো ---- ভূত দেখতে হবে....? { লেখক - এ কেমন বিচার...... } সেদিন বাবা মাকে বলল, বাবা তৃতীয় তালাটা ভাড়া দিবো শুদুমাত্র ভূতের জন্য.....? তাই সাইন বোর্ডে লেখেছে to let ভূত। বেশ কিছুদিন হয়ে গেল। ভাড়া নিতে আসছে না কোনো ভূত। আসলে কি ভূত ভাড়া নিতে আসবে..? আবুল আর মফিজ চিন্তায় পরে গেল। আবুল - আমাদের ইচ্ছা সম্পূর্ন হবেনা। তিনতালায় রুমে গিয়ে ঘুড়ছে। রুমগোলো ফাকা পরে আছে। মফিজ - কিরে ভাইয়া ভূত কি ভারা নিতে আসবে...? আবুল - কী বলিস? অবশ্যই আসবে..। একটু ধৈর্য ধর। মফিজ -কিন্তু ভূত যদি ঠিকমতো পানি,গ্যাস,বিদ্যুত না পায় তাহলে আমাদের ভয় দেখাবে না তো। আবুল - আগে ভূত পাই। তারপরে সমস্যার কথা ভাবা যাবে। চল পড়তে বসি। ( আজাইরা গল্প )


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৫২২ জন


এ জাতীয় গল্প

→ মাছের ভূত
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ শেষ অনুভূতি
→ একটু রাগ একটু ভালোবাসা

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...