গল্পেরঝুড়ির এ্যাপ ডাউনলোড করুন - get google app

সুপ্রিয় গল্পের ঝুরিয়ান ... গল্পেরঝুড়ি একটি অনলাইন ভিত্তিক গল্প পড়ার সাইট হলেও বাস্তবে বই কিনে পড়ার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান করে... স্বয়ং জিজের স্বপ্নদ্রষ্টার নিজের বড় একটি লাইব্রেরী আছে... তাই জিজেতে নতুন ক্যাটেগরি খোলা হয়েছে বুক রিভিউ নামে ... এখানে আপনারা নতুন বই এর রিভিও দিয়ে বই প্রেমিক দের বই কিনতে উৎসাহিত করুন... ধন্যবাদ...

সুপ্রিয় গল্পেরঝুরিয়ান... জিজেতে আজে বাজে কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন ... অন্যথায় আপনার আইডি বা কমেন্ট ব্লক করা হবে... আর গল্প দেওয়ার ক্ষেত্রে গল্প দেওয়ার নিয়ম মেনে চলুন ... সার্বিকভাবে জিজের নীতিমালা মেনে চলার চেস্টা করুন ...

প্রবাস বন্ধু-১

"উপন্যাস" বিভাগে গল্পটি দিয়েছেন গল্পের ঝুরিয়ান রিয়াদুল ইসলাম রূপচাঁন (৪১৪ পয়েন্ট)



বাসা পেলুম কাবুল থেকে আড়াই মাইল দূরে খাজা মোল্লা গ্রামে । বাসার সঙ্গে সঙ্গে চাকরও পেলুম । অধ্যক্ষ জিরার জাতে ফরাসি । কাজেই কায়দামাফিক আলাপ করিয়ে দিয়ে বললেন,এর নাম আবদুর রহমান । আপনার সব কাজ করে দেবে_জুতো বুরুশ থেকে খুনখারাবি । অর্থাৎ ইনি হরফন মৌলা বা সকলের কাজের কাজি । জিরার সায়েব কাজের লোক,অর্থাৎ সমস্ত দিন কোনো না কোনো মন্ত্রীর দপ্তরে ঝগড়া বচসা করে কাটান । কাবুলে এরই নাম কাজ । ও রভোয়া বিকেলে দেখা হবে বলে চলে গেলেন । কাবুল শহরে আমি দুটি নরদানব দেখেছি । তার একটি আবদুর রহমান । পরে ফিতে দিয়ে মেপে দেখেছিলাম ছ ফুট চার ইঞ্চি । উপস্থিত লক্ষ্য করলুম লম্বাই মিলিয়ে চওড়াই । দুখানা হাত হাটু পর্যন্ত নেমে এসেছে আঙুল গুলো দু কাদি মর্তমান কলা হয়ে ঝুলছে । পা দুখানা ডিঙি নৌকার সাইজ । কাধ দেখে মনে হলো,আমার বাবুর্চি আব্দুর রহমান না হয়ে সে যদি আমীর আব্দুর রহমান হত তবে অনায়াসে গোটা আফগানিস্তানের ভার বইতে পারত ।।।


এডিট ডিলিট প্রিন্ট করুন  অভিযোগ করুন     

গল্পটি পড়েছেন ৩১৩ জন


এ জাতীয় গল্প

→ প্রবাসীর সুখ কেনা
→ প্রবাস বন্ধু-৩
→ প্রবাস বন্ধু-২
→ য়ুরোপ-প্রবাসীর পত্র (৪)
→ য়ুরোপ-প্রবাসীর পত্র (৩)
→ য়ুরোপ-প্রবাসীর পত্র (২)
→ য়ুরোপ-প্রবাসীর পত্র (ভূমিকা-০১)
→ প্রবাসী এক ভাইয়ের একটি চিঠি

গল্পটির রেটিং দিনঃ-

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করুন

গল্পটির বিষয়ে মন্তব্য করতে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করুন ... ধন্যবাদ...